ঢাকা, ২০২২-০৬-২৬ | ১২ আষাঢ়,  ১৪২৯
সর্বশেষ: 
উবার ও লিফট ড্রাইভারদের বেতন বৃদ্ধি নিরাপত্তা নিয়ে শংকিত আমেরিকা -চিকেন ফার্মে বার্ড ফ্লু আতঙ্ক মেডিকেইড হারাচ্ছেন লাখো আমেরিকান পাল্টে যাচ্ছে রাজনীতির হিসাব-নিকাশ! অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় হস্তক্ষেপ না করার ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্র বিচার ১২৩ বছর আগে গ্রেপ্তার গাছ, শেকলে বন্দি আজো ফ্রান্স প্রেসিডেন্টকে চড় মারার মাশুল কতটা? কুরআনের আয়াত বাতিলে ‘ফালতু’ রিট করায় আবেদনকারীকে জরিমানা আদালতের দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদনে নতুন রেকর্ড ওয়াক্ত ও তারাবি নামাজের জামাতে সর্বোচ্চ ২০ জন বিদেশে মারা গেছে ২৭০০ বাংলাদেশি আর্থিক ক্ষতি মেনেই সাঙ্গ হলো বইমেলা সুন্দরী মডেলের অপহরণ চক্র ! মোটরসাইকেল উৎপাদনে বিপ্লবে দেশ যুক্তরাজ্যে করোনার আরও মারাত্মক ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত ৮ থেকে ১২ সপ্তাহ বিরতিতে অক্সফোর্ডের টিকা বেশি কার্যকর সবাই সপরিবারে নির্ভয়ে করোনা ভ্যাকসিন নিন: প্রধানমন্ত্রী শেষ রাতে দু’রাকাত নামাজ জীবন পরিবর্তন করে দিতে পারে নতুন করোনাভাইরাস আতঙ্কে ইউরোপ-আমেরিকার শেয়ারবাজারে ধস জুনের মধ্যে আসছে আরও ৬ কোটি করোনার টিকা বাড়িভাড়ায় নাভিশ্বাস, ফের বাড়ানোর পাঁয়তারা অমিতাভের পর অভিষেকও করোনা আক্রান্ত বিশ্ব ধরেই নিচ্ছে বাংলাদেশ জালিয়াতির দেশ : শাহরিয়ার কবির ইরাকে মর্গের পাশে রাত কাটছে বাংলাদেশিদের! বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শক বাংলাদেশের সেঁজুতি সাহা সাহেদর টাকা থাকত নাসির, ইন্ডিয়ান বাবু ও স্ত্রী সাদিয়ার কাছে ‘বাংলাদেশিদের ভোট দিন’ মানবতার সেবায় কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ অনিশ্চিতায় ফেরদৌস খন্দকার কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা থামছেই না বিক্ষোভ অব্যাহত গভর্নরের সিদ্ধান্ত মানছে না মেয়র অভিবাসীরা জিতলেন হারলেন ট্রাম্প করোনার ধাক্কা - মে মাসে রপ্তানি কমেছে ২০ হাজার কোটি টাকার পুলিশ সংস্কার বিল উঠলো মার্কিন কংগ্রেসে লাইফ সাপোর্টে থাকা নাসিমের জন্য মেডিকেল বোর্ড পুনর্গঠন আইসিইউ নিয়ে হাহাকার ঈদের ছুটিতে অনিরাপদ হয়ে উঠছে গ্রামগুলো ঘরে ঘরে ভুতুড়ে বিল, বিদ্যুৎ বিভাগ বলছে সমন্বয় হবে নিউইয়র্কে ‘ট্রাম্প ডেথ ক্লক’ নিউইয়র্কে জেবিবিএ’র পরিচালক ইকবালুর রশীদ লিটনের মৃত্যু নিজ আয়ে চলা শুরু করলো বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি কবে খুলবে নিউইয়র্ক নিউইয়র্কে এবার নতুন ভাইরাসে শিশুরা আক্রান্ত
জেদ্দায় সোনাসহ বিমানের কেবিন ক্রু ফ্লোরা আটক

এবার তিন কোটি টাকার সোনা ও বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রাসহ সৌদিতে আটক হলেন বিমানের কেবিন ক্রু। তার নাম ফ্লোরা। ১৩ জুন ফ্লাইটে ওঠার আগ মুহূর্তে তাকে আটক করে সৌদি পুলিশ। এ কারণে বাধ্য হয়ে তাকে ছাড়াই দেশে ফিরে আসে বিমানের ফিরতি ফ্লাইট। এ ঘটনায় ফ্লোরাকে গ্রাউন্ডেট করা হয়েছে। গঠন করা হয়েছে তদন্ত কমিটি।

বিমানের একটি সূত্র জানিয়েছে, এ ঘটনায় ফ্লোরা চাকরিচ্যুত হতে পারেন।

উল্লে­খ্য, কিছুদিন আগে সোনাসহ আটক হয়েছিলেন আরেক কেবিন ক্রু রুহুল আমিন শুভ।

সৌদি পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বিমানের ঢাকাগামী ফ্লাইট বিজি ০৩৪০-এর ফ্লাইট পার্সার হিসাবে ডিউটি ছিল ফ্লোরার। রিয়াদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমানে ওঠার আগ মুহূর্তে সৌদি পুলিশ জানতে পারে তার লাগেজে বিপুল পরিমাণ সোনা ও বৈদেশিক মুদ্রা আছে। এরপর পুলিশ লাগেজ তল্লাশি করে প্রায় ৩ কোটি টাকা সমমূল্যের সোনা উদ্ধার করে। এসব সোনার কাগজপত্র দেখতে চাইলে ফ্লোরা তা দেখাতে পারেননি। এ কারণে তাকে আটক করা হয়। পরে বিমানের ফ্লাইটটি তাকে ছাড়াই ঢাকার উদ্দেশে বিমানবন্দর ত্যাগ করে।

সিভিল এভিয়েশন আইন অনুযায়ী, বিমানের এ ধরনের ফ্লাইটে ১০ জন কেবিন ক্রু থাকা বাধ্যতামূলক। কিন্তু ফ্লোরা আটক হওয়ায় পাইলট আইন লঙ্ঘন করে ৯ জন ক্রু নিয়ে ঢাকায় আসেন। এ ঘটনায় বিমানকে মোটা অঙ্কের টাকা জরিমানার শিকার হতে হবে।

 
বিমানের কাস্টমার সেন্টার সূত্রে জানা যায়, সৌদি কারাগার থেকে ফ্লোরাকে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে। অভিযোগ আছে, বিমানের শিডিউলিং শাখার একটি সিন্ডিকেটের হাত ধরে ফ্লোরা ও শুভ এই রুটে একটি বড় ধরনের সোনা চোরাচালান চক্র গড়ে তুলেছেন। চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে সৌদি আরব, দুবাইসহ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশ থেকে সোনা আনত বিমানের ফ্লাইট ব্যবহার করে। শিডিউলিং শাখায় ওই সিন্ডিকেট মোটা অঙ্কের টাকা মাসোহারা নিয়ে চক্রের সদস্যদের এই রুটে ফ্লাইটের ব্যবস্থা করে দেয়। প্রতি ফ্লাইটে শিডিউলিং শাখার সিন্ডিকেট ১০ থেকে ২০ হাজার করে টাকা নেয় ক্রুদের কাছ থেকে।

সোনা চোরাচালান চক্রের গডফাদাররা বিমানের এসব কেবিন ক্রুকে ক্যারিয়ার হিসাবে ব্যবহার করে প্রতিমাসে কোটি কোটি টাকার সোনা আনছে। ফ্লোরা, শুভ ও তার (শুভ) স্ত্রীর বিরুদ্ধে সোনা আমদানি ও টাকা পাচারসহ অসংখ্য অভিযোগ থাকলেও বিমানের একজন সাবেক প্রভাবশালী পরিচালকের কারণে কর্তৃপক্ষ তা আমলে নিতেন না। এ কারণে ১৩ জুন ফ্লোরা আটক হলেও বিমান কর্তৃপক্ষ পুরো ঘটনাটি গোপন রেখে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে। শুধু তাই নয়, হাতেনাতে আটক হওয়ার পরও শুভকে ফের চাকরিতে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু করেছে সিন্ডিকেট। এ কারণে তারা কাউকে পরোয়া করে না।

জানা যায়, চক্রের এক সদস্যের বিরুদ্ধে চাকরিচ্যুতিসহ বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে বিমান। তার নাম শেহজাদ। সম্প্রতি সোনাসহ হাতেনাতে ধরা পড়েছিলেন তিনি।


সাড়ে ৪ বছর পর বাংলাদেশিদের ভিসা দিচ্ছে বাহরাইন

সাড়ে ৪ বছর পর বাংলাদেশিদের ভিসা দিচ্ছে বাহরাইন

সাড়ে ৪ বছর বন্ধ থাকার পর বাংলাদেশিদের ভিসা দিতে যাচ্ছে বাহরাইন সরকার। ফেসবুক লাইভে মানামায় বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত নজরুল ইসলাম জানান, করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে দেশে এসে আটকেপড়া ১৬১ জনকে প্রথম দফায় ভিসা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার।

বিভিন্ন ঘটনার প্রেক্ষাপটে বাহরাইন সরকার ২০১৮ সাল থেকে বাংলাদেশিদের ভিসা দেওয়া বন্ধ করে দেয়। মহামারির মধ্যে দেশে ফিরে যারা আটকা পড়েন, তারাও সে কারণে যেতে পারছিলেন না। এরপর বাংলাদেশ সরকার ও দূতাবাসের উদ্যোগে বাহরাইন সরকারের ইতিবাচক ইঙ্গিত পাওয়ার পর ফিরতে ইচ্ছুক প্রবাসীদের নিবন্ধন করতে বলা হয়।

সে সময় ৯৬৭ জন বাংলাদেশি ফেরার জন্য নিবন্ধন করেছিলেন জানিয়ে রাষ্ট্রদূত নজরুল বলেন, তখন বলা হয়েছিল, তাদের মালিকপক্ষ বা নিয়োগকর্তা যাতে জানায় যে, তাদের ফেরত নিতে রাজি আছেন। মালিকপক্ষের সাড়া পাওয়ার ওপর ভিত্তি করে ১৬১ জনের নাম চ‚ড়ান্ত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, বাহরাইনের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শুরুতে ভিজিট ভিসা ইস্যু করবে। বাইরাইনের যাওয়ার পর নিয়োগকর্তার মাধ্যমে সেটাকে ওয়ার্ক ভিসায় রূপান্তর করে সেন্ট্রাল পপুলেশন রেজিস্ট্রেশন (সিপিআর) করা যাবে। প্রাথমিক তালিকায় থাকা ১৬১ জনের নাম-পরিচয় ফেসবুকে প্রকাশ করে দূতাবাস।

এক বিজ্ঞপ্তিতে ভিসা আবেদনের প্রক্রিয়াও তুলে ধরা হয়। সেখানে বলা হয়, ভিসার আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে বাহরাইন সরকারের ই-ভিসার ওয়েবসাইটে। প্রথমে ভিজিট ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে। তবে তালিকাভুক্তকর্মী নিজে আবেদন করতে পারবেন না। তার পক্ষে স্পন্সর বা মালিককে আবেদন করতে হবে।

আবেদনের পর স্পন্সর বা মালিককে বাহরাইন সরকার থেকে পাওয়া ‘ই-ভিসা রেফারেন্স’ নম্বর দূতাবাসকে ইমেইলে ([email protected])   অথবা হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরে (+৯৭৩-৩৩৩৭৫১৫৫) জানাতে হবে। এরপর দূতাবাস ওই কর্মীকে ভিজিট ভিসা দিতে বাহরাইন কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করবে।

মহামারির মধ্যে এসে আটকেপড়া যেসব বাংলাদেশি ফেরত যেতে নিবন্ধন করেছেন কিন্তু তালিকায় নেই তাদের বিষয়ে রাষ্ট্রদূত নজরুল ইসলাম বলেন, তারা নির্দিষ্ট সময়ে মালিকপক্ষ বা স্পন্সরের সম্মতির বিষয়ে দূতাবাসকে অবহিত করতে পারেননি। সে কারণে বড় অংশ তালিকার বাইরে। স্পন্সরের সম্মতি পেলে আমরা তাদের ফেরানোর বিষয়েও বাহরাইন সরকারকে অনুরোধ করব।

কর্মীদের মধ্যে যারা ফ্যামিলি ভিসায় পরিবারের সদস্যদের নিতে চান, তাদেরও পরিবারের সদস্যদের নাম-পরিচয় ও পাসপোর্ট নম্বর উলে­খ করে দূতাবাসের ইমেইলে আবেদন করার পরামর্শ দেন রাষ্ট্রদূত।

সোমবার, ১৩ জুন ২০২২, ০৩:১৫

ফোর্বসের নতুন তালিকায় ৭ বাংলাদেশি

ফোর্বসের নতুন তালিকায় ৭ বাংলাদেশি

বিশ্বখ্যাত মার্কিন সাময়িকী ফোর্বস প্রতিবছরই সম্ভাবনাময় তরুণ সংগঠক, উদ্যোক্তা ও উদ্ভাবকের তালিকা প্রকাশ করে। বৃহস্পতিবার ফোর্বসের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়েছে এ বছরের এশীয় তালিকা। তালিকায় মোট ৩০০ তরুণ সংগঠক, উদ্যোক্তা ও উদ্ভাবকের জায়গা হয়েছে। তাতে শিল্প, প্রক্রিয়াজাতকরণ ও জ্বালানি, প্রযুক্তি উদ্যোগ এবং সামাজিক প্রভাব শ্রেণিতে স্থান পেয়েছেন সাত বাংলাদেশি তরুণ।

শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ০৪:০৫

বন্ধ হয়ে যাচ্ছে সোনালী ব্যাংক ইউকে প্রবাসীদের গর্ব এখন লজ্জার নাম

বন্ধ হয়ে যাচ্ছে সোনালী ব্যাংক ইউকে প্রবাসীদের গর্ব এখন লজ্জার নাম

 প্রায় ছয় বছর ধরে সোনালী ব্যাংক ইউকে লিমিটেডের ব্যাংকিং কোনো কার্যক্রম ছিল না। এর পরও ব্রিকলেনের প্রবেশমুখে অসবর্ণ স্ট্রিটে দাঁড়িয়ে থাকা ভবনে সোনালী অক্ষরে লেখা সোনালী ব্যাংক ইউকে লিমিটেড ছিল প্রবাসীদের গর্বের প্রতীক। ২০০১ সালে প্রতিষ্ঠিত গর্বের সেই ব্যাংকটি এখন ব্রিটেনে লজ্জার নাম। আগামী ১৬ আগস্ট বন্ধ হয়ে যাবে যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের গর্বের নাম সোনালী ব্যাংক। অর্থ পাচার প্রতিরোধে ব্যর্থতা ও বিভিন্ন সময়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের অবহেলা-অনিয়ম-দুর্নীতিতে ধুঁকতে থাকা ব্যাংকটিকে বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে ব্যাংক অব ইংল্যান্ড। এ সংবাদে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে এক ধরনের ক্ষোভ ও হতাশা তৈরি হয়েছে।

কমনওয়েলথ জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সৈয়দ নাহাস পাশা বলছিলেন, ব্রিটেনে ভারতীয় ব্যাংক রয়েছে, পাকিস্তানি ব্যাংক রয়েছে, অথচ বাংলাদেশের ব্যাংকের শুধু বদনাম আর বদনাম!
উল্লেখ্য, ভারতীয় হাইকমিশন থেকে প্রাপ্ত তথ্য বলছে, ১৫টি ব্যাংকের অন্তত ৩০টির বেশি শাখা রয়েছে ব্রিটেনে। তাই বাংলাদেশের মাত্র একটি ব্যাংক ব্রিটেনে টিকতে পারল না। এ জন্য সৈয়দ নাহাস পাশা হতাশায় বলেন, যে কমপ্লায়েন্সের জন্য বছরে কোটি টাকার ওপরে বেতন দিয়ে একাধিক কমপ্লায়েন্স অফিসার রাখা হলো, সেই কমপ্লায়েন্স ইস্যুতে ব্যাংক শেষ পর্যন্ত বন্ধই করে দেওয়া হলো! সৈয়দ নাহাস পাশাও একসময় সোনালী ব্যাংক ইউকের গ্রাহক ছিলেন। ২০১৬ সালের ২২ সেপ্টেম্বর যখন ব্যাংকটির কার্যক্রম বন্ধ হয় তখন সৈয়দ নাহাস পাশা নিজের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে টাকা তুলে নেন। সোনালী ব্যাংক ইউকে লিমিটেড ব্রিটেনের প্রধান তিন শহর লন্ডন, ওল্ডহ্যাম ও বার্মিংহাম থেকে পরিচালিত হলেও ২০১৩ সালের ২ জুন সোনালী ব্যাংক ইউকের ওল্ডহ্যাম শাখা থেকে সুইফট কোড জালিয়াতির মাধ্যমে ২ লাখ ৫০ হাজার ডলার হাতিয়ে নেওয়া হয়। ওই শাখার তৎকালীন ব্যবস্থাপক ইকবাল আহমেদ ব্যাংকের ভল্ট থেকে অর্থ চুরি, গ্রাহকের হিসাব থেকে অবৈধভাবে অর্থ উত্তোলন ও গ্রাহকের অর্থ হাতিয়ে নেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৫ সালের ১৫ ডিসেম্বর শাখাটি বন্ধ করে দেয় ব্যাংক অব ইংল্যান্ড। ২০১৭ সাল থেকে চালু আছে শুধু লন্ডন ও বার্মিংহাম শাখা। ২০১০ সালের ২০ আগস্ট থেকে ২০১৪ সালের ২১ জুলাই সময়ে অর্থ পাচার প্রতিরোধ ব্যবস্থার দুর্বলতার কারণে সোনালী ব্যাংক ইউকে লিমিটেডকে ৩২ লাখ পাউন্ড জরিমানা করে দেশটির আর্থিক খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা এফসিএ। বন্ধ করে দেয় নতুন হিসাব খোলা। এ ছাড়া সোনালী ব্যাংক ইউকের মুদ্রা পাচার প্রতিরোধ বিভাগের প্রধান স্টিভেন স্মিথকে এ ধরনের চাকরিতে নিষিদ্ধ ও ১৮ হাজার পাউন্ড জরিমানা করা হয়। ব্যাংক অব ইংল্যান্ডের প্রুডেন্সিয়াল রেগুলেশন অথরিটি (পিআরএ) ও ফাইন্যান্সিয়াল কন্ডাক্ট অথরিটির (এফসিএ) সিদ্ধান্তে বন্ধ হচ্ছে সোনালী ব্যাংক ইউকে। ২৭ জানুয়ারি বিষয়টি সোনালী ব্যাংক ইউকেকে জানিয়েও দেওয়া হয়েছে। এ অবস্থায় যুক্তরাজ্যে অবস্থিত ব্যাংকটিকে বাঁচাতে তৎপর হয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ। এ জন্য সোনালী ব্যাংক ইউকের পরিবর্তে যুক্তরাজ্যে দুটি নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার প্রস্তাব দেওয়া হচ্ছে। মোট চারটি প্রস্তাব দিয়ে এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সারসংক্ষেপ পাঠাচ্ছে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ। প্রস্তাবে যুক্তরাজ্যে বসবাসরত বাংলাদেশিদের রেমিট্যান্স পাঠানোর জন্য ‘সোনালী পে ইউকে লিমিটেড’ এবং বাংলাদেশি ব্যাংকগুলোর ঋণপত্রের নিশ্চয়তা দেওয়ার জন্য ‘সোনালী বাংলাদেশ (ইউকে) লিমিটেড’ নামে কোম্পানি তৈরির পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে সোনালী পে ইউকের লাইসেন্সের জন্য বাংলাদেশ থেকে আরও ১০ লাখ পাউন্ড মূলধন জোগান দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। আর যদি প্রধানমন্ত্রী চান তাহলে তিনি পুরো কার্যক্রম বন্ধ করে সোনালী ব্যাংকের পুরো অধ্যায় গুটিয়ে নিতে পারেন। সোনালী ব্যাংক ইউকে লিমিটেডের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সাবেক এক কর্মকর্তা বলেন, নতুন করে যে তিন প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে এর মধ্যে প্রথম দুটি সফল হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। সে ক্ষেত্রে বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে। সোনালী ব্যাংক ইউকে লিমিটেড সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বাংলাদেশে সোনালী ব্যাংকের বর্তমান ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. আতাউর রহমান প্রধান যখন ইউকে শাখার দায়িত্বে ছিলেন সেই সময়। তার দায়িত্বে অবহেলা, সুপারভাইজরি ঘাটতি ও অন্যান্য কারণে ৭৬ হাজার ৪০০ পাউন্ড জরিমানা করা হয়। ২০১৮ সালের ৪ ডিসেম্বর আতাউর রহমান প্রধানের বিরুদ্ধে আরোপিত শাস্তির সিদ্ধান্ত এফসিএর ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়। ২০১৬ সালের ২২ সেপ্টেম্বর থেকেই সোনালী ব্যাংক ইউকের ব্যাংকিং কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয়। এর পর থেকে ব্যাংকটি কেবল ট্রেড ফাইন্যান্স ও রেমিট্যান্স হাউস হিসেবে সচল রয়েছে। যিনি এত বড় শাস্তি পেয়ে দেশের নাম লজ্জায় ডুবিয়েছেন তিনিই বাংলাদেশে যাওয়ার পর পুরস্কৃত হয়েছেন, দায়িত্বে রয়েছেন সোনালী ব্যাংকের! এতে হতাশা ব্যক্ত করেন লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি নবাব উদ্দিন। তিনি বলেন, যিনি ব্রিটেনে ব্যাংকিং খাত ডুবিয়ে গেছেন তিনিই কি না এখন আবার আরও বড় দায়িত্বে! যার শাস্তি পাওয়া উচিত ছিল তিনিই হলেন পুরস্কৃত। এভাবেই দেশের ব্যাংকিং খাত আজ ব্যর্থ। ব্রিটিশ বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্সের সিনিয়র সহ-সভাপতি মহিব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ব্যাংক বোঝেন না এমন লোকদের স্বজনপ্রীতি করে দায়িত্বে পাঠানোর কারণেই আজ ব্রিটেনের মাটিতে আমাদের গর্বের এক প্রতিষ্ঠান প্রায় হারাতে বসেছে। তিনি হতাশা নিয়ে বলেন, বাংলাদেশের কত পজেটিভ জিনিস আমাদের অনুপ্রাণিত করে। বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি, বাংলাদেশ সরকারের বৈধ পথে রেমিটেন্স পাঠানোর জন্য নানা কার্যক্রম সবকিছু ম্লান করে দেয় সোনালী ব্যাংকের এই ব্যর্থতা।

বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ০১:৫৬

সততার লড়াইয়ে কখনও কেউ পরাজিত হয় না
আজকাল’কে টাওয়ার হ্যামলেটসের মেয়র

সততার লড়াইয়ে কখনও কেউ পরাজিত হয় না

বৃটেনের স্থানীয় নির্বাচনে ঐতিহাসিক লন্ডন শহরের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এলাকার মেয়র প্রার্থী হয়ে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়ে বাংলাদেশের সন্তুান লৎফর রহমান ঈর্ষণীয় এক মাইলফলক তৈরি করেছেন, যা এখন বৃটেনের আভ্যন্তুরীণ রাজনীতিতে আলোচনার ‘ভূ-কম্পন’ সৃষ্টি হয়েছে। বৃটেনের বিভিন্ন মিডিয়ায় এখন লুৎফর রহমানকে নিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হচ্ছে।

শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৫:১৭

প্রবাসীদের ১০ হাজার ডলার বহনে অনুমোদন লাগবে না

প্রবাসীদের ১০ হাজার ডলার বহনে অনুমোদন লাগবে না

বিদেশ থেকে আসার সময় কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে সর্বোচ্চ ১০ হাজার ডলার দেশে আনা যাবে। এর চেয়ে বেশি আনলে ঘোষণা দিতে হবে, গুনতে হবে শুল্ক।

মঙ্গলবার (১০ মে) বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিদ্যমান বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেন ব্যবস্থায় বিদেশে বসবাসরত প্রবাসী এদেশে প্রাইভেট ফরেন কারেন্সি হিসাব কিংবা নন-রেসিডেন্ট ফরেন কারেন্সি ডিপোজিট হিসাব পরিচালনা করতে পারেন। অর্থাৎ প্রবাসীরা সহজেই দেশের যেকোনো ব্যাংকে বিদেশি মুদ্রার হিসাব খুলতে পারেন। বিদেশ থেকে পাঠানো ফরেন কারেন্সি (বিদেশি মুদ্রা) কিংবা বিদেশ থেকে বাংলাদেশে আগমনকালে সঙ্গে নিয়ে আসা বিদেশি মুদ্রা এসব হিসাবে জমা রাখা যায়। বিদেশ থেকে আগত যাত্রী যে কোনো পরিমাণ বিদেশি মুদ্রা বাংলাদেশে আনতে পারেন। সঙ্গে নিয়ে আসা বিদেশি মুদ্রার পরিমাণ অনধিক ১০ হাজার মার্কিন ডলার বা সমতুল্য অন্য কারেন্সি হলে শুল্ক কর্তৃপক্ষের নিকট ঘোষণা প্রদানের প্রয়োজন নেই।

স্থানীয়ভাবে পরিচালিত এসব বিদেশি মুদ্রা হিসাবের স্থিতি অবাধে টাকায় নগদায়ন করা যায়। বিদেশ থেকে আগত প্রবাসী ব্যক্তি বাংলাদেশ ত্যাগকালে তার হিসাবের স্থিতি হতে অনধিক পাঁচ হাজার ইউএস ডলার নোট আকারে এবং হিসাবের স্থিতি থাকা সাপেক্ষে প্রয়োজন অনুযায়ী অন্য ফরেন কারেন্সি সঙ্গে নিয়ে যেতে পারেন।

প্রবাসী/অনিবাসী ব্যক্তির নামে পরিচালিত এসব বিদেশি মুদ্রা হিসাবের স্থিতি সুদসহ অবাধে বিদেশে পাঠানো যায়। এক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংকের কোনোরূপ অনুমোদনের প্রয়োজন নেই বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

বুধবার, ১১ মে ২০২২, ০০:২৩

লিবিয়ায় দুই শতাধিক বাংলাদেশি আটক

লিবিয়ায় দুই শতাধিক বাংলাদেশি আটক

ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে অবৈধভাবে ইউরোপে যাওয়ার চেষ্টাকালে দুই শতাধিক বাংলাদেশিকে আটক করেছে লিবিয়ার পুলিশ। গত শনিবার দেশটির পূর্ব উপকূলীয় জেলা মিসরাতা থেকে তাঁদের আটক করা হয়। পরে তাঁদের লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলির একটি বন্দিশিবিরে পাঠানো হয়েছে।

লিবিয়ার সংবাদমাধ্যমে প্রথমে এ খবর প্রকাশিত হয়। পরে লিবিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল এস এম শামীম উজ জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

গতকাল সোমবার রাতে শামীম উজ জামান বলেন, বাংলাদেশিসহ অবৈধ অভিবাসীরা লিবিয়ার জারিখ উপকূল থেকে নৌকায় করে ইউরোপের উদ্দেশে যাত্রার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। সে সময় তাঁদের আটক করা হয়।


লিবিয়ার পুলিশের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, সেখান থেকে মোট ৫৪১ জনকে আটক করা হয়। তাঁদের মধ্যে অধিকাংশই বাংলাদেশি বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে দূতাবাসের পক্ষ থেকে রোববার যোগাযোগ করে তাঁদের মধ্যে ২৪০ জন বাংলাদেশি বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। অন্যদের সঙ্গে যোগাযোগের পর জানা যাবে, সেখানে মোট কতজন বাংলাদেশি আছেন।

রাষ্ট্রদূত শামীম উজ জামান জানান, আটক এই ব্যক্তিরা মানব পাচারকারীদের সহায়তায় অবৈধ পথে ইউরোপ যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এখন তাঁদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার পর আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) সহায়তায় দেশে ফেরত পাঠানো হবে। এ জন্য দূতাবাস থেকে ইতিমধ্যে আইওএম এবং স্থানীয় পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা হচ্ছে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে অবৈধভাবে ইতালি যাওয়ার পথে নৌযানডুবিতে প্রাণহানির ঘটনা বেড়েছে। এই অবৈধ অভিবাসীদের দলে বাংলাদেশিদের থাকার খবর আগেও এসেছে। বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তথ্য অনুযায়ী, মানব পাচারকারীরা ইউরোপের উন্নত জীবনের লোভ দেখিয়ে বাংলাদেশিদের কাছ থেকে বড় অঙ্কের অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে।

মঙ্গলবার, ২৬ এপ্রিল ২০২২, ০৪:৩৭

`ওরা আমাকে মেরে ফেলবে বাঁচতে চাই`
সৌদি থেকে গৃহকর্মীর আকুতি

`ওরা আমাকে মেরে ফেলবে বাঁচতে চাই`

'লোহার পাইপ দিয়ে পিটিয়ে পুরো শরীরে কালো বানিয়ে দিয়েছে। কাতরাচ্ছি ব্যথায়। ওষুধও দিচ্ছে না। পেট ভরে খেতে দেয় না চার মাস। আমি বাঁচতে চাই। এখানে থাকলে ওরা আমাকে মেরে ফেলবে। দয়া করে এই দেশ থেকে আমাকে উদ্ধার করে নিয়ে যান।' অ্যাপসভিত্তিক যোগাযোগমাধ্যম ইমোতে এমন ভয়াবহ আর্তনাদ নিয়ে  কষ্টের কথা জানান সৌদি আরব প্রবাসী গৃহকর্মী ৩৯ বছর বয়সী শিখা বেগম।

রাজধানীর উত্তরখানের চানপাড়ায় একটি ভাড়া বাসায় থাকে শিখার পরিবার। তার স্বামী হযরত আলী; সংসারে দুই ছেলে ও এক মেয়ে। ঘরে সচ্ছলতা আনতে গত সেপ্টেম্বরে রাজধানীর বনানীর একটি রিক্রুটিং এজেন্সির মাধ্যমে গৃহকর্মী হিসেবে সৌদি আরবে যান শিখা। সেখানে যাওয়ার পর তিন মাস সবকিছু ছিল ঠিকঠাক। পেয়েছেন বেতন ও খাবার। এর পর থেকে বন্ধ বেতন। খাবারও দেওয়া হয় না ঠিকমতো। বেতন-খাবার চাইলেই তার ওপর নেমে আসে নির্মম নির্যাতনের খÿ। তামান্না নামের এক নারীর সহায়তায় সৌদিতে যান শিখা। স্ত্রীকে দেশে ফিরিয়ে আনতে তার সঙ্গে যোগাযোগও করেন হযরত আলী। তবে তামান্নার পক্ষ থেকে মেলেনি সাড়া। হযরত আলীর সঙ্গে গত রোববার সন্ধ্যার পর কথা হয়  ।

তিনি বলেন, 'স্ত্রীকে দেশে ফিরিয়ে আনতে হন্যে হয়ে ঘুরছি বিভিন্ন জায়গায়। কোনো ব্যবস্থা হচ্ছে না। স্ত্রী দেশে ফেরার জন্য প্রতিদিন ফোন করে কান্নাকাটি করছে।'

হযরত আলীর ইমো নম্বর থেকে শিখা বেগমের সঙ্গে রোববার কথা হয়। তিনি জানান, ২৬ সেপ্টেম্বর তিনি সৌদিতে যান। বিমানবন্দর থেকে সে দেশের একটি অফিসে নেওয়া হয় তাকে। এক দিন পরই তাকে আতর আলি নামের একজনের বাসায় কাজ দেওয়া হয়। কথা ছিল, মাসে দেওয়া হবে ২২ হাজার টাকা বেতন। পরে দেওয়া হয় ১৬ হাজার টাকা। পরিবারের সঙ্গে ফোনে কথা বলার জন্য ইন্টারনেট সুবিধা দেওয়ার কথা থাকলেও দেয়নি। বেতন থেকে মাসে ইন্টারনেট খরচ চলে যায় তিন হাজার টাকা। ডিসেম্বর পর্যন্ত ঠিকমতো বেতন পেয়েছেন তিনি। এর পর থেকে বেতন বন্ধ। রমজানে সেহরিতে একটি রুটি এবং ইফতারের সময় দুটি রুটি পান তিনি। রমজানের আগে সকালে দুটি পাতলা রুটি, দুপুরে অল্প একটু ভাত দেওয়া হতো; যা খেয়ে ক্ষুধা মিটত না তার। বাড়ির মালিকের কাছে বেতন ও পেট ভরে খাবার দাবি করায় গত ২৯ মার্চ তাকে ওই বাসা থেকে প্রাইভেটকারে তিন ঘণ্টার পথ দূরত্বে একটি অফিসে নিয়ে যান আতর আলি। সেখানে একটি কক্ষে আটকে মেঝেতে ফেলে লোহার পাইপ দিয়ে শিখাকে পেটানো হয়।

তিনি জানান, তার হাঁটু, দুই হাতের আঙুল, হাতের কনুইসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে পাইপের আঘাতের কারণে কালচে দাগ হয়ে গেছে। প্রচণ্ড ব্যথায় ঠিকমতো হাঁটতে পারছেন না, হাত নড়াচড়া করতেও কষ্ট হচ্ছে। এই শরীর নিয়েও কাজ করতে হচ্ছে তাকে। শিখা বলেন, 'আমার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ফুলে গেছে। কষ্ট হচ্ছে খুব। অনেকবার বাড়ির মালিককে বলেছি, ওষুধ কিনে দিতে। একটা ওষুধও দেয়নি। কত দিন পেট ভরে খাইনি।' দেশে ফেরার আকুতি জানান এই নারী।

শিখার স্বামী হযরত আলী বলেন, 'সংসারে বড্ড অভাব। তাই স্ত্রীকে সৌদি আরবে গৃহকর্মীর কাজে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। একই এলাকার শাহ আলম নামের এক ব্যক্তি বনানীতে তামান্না নামের এক নারীর সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন। তামান্না একটি রিক্রুটিং এজেন্সির মাধ্যমে শিখাকে সৌদিতে পাঠান। যাওয়ার প্রথম তিন মাসে মোট ৩৪ হাজার টাকা পাঠিয়েছিল শিখা।'

তামান্নার সঙ্গে গতকাল সোমবার ফোনে কথা হয়। তিনি শিখাকে বিদেশে পাঠানোর কথা স্বীকার করলেও রিক্রুটিং এজেন্সিটির নাম মনে নেই বলে দাবি করেন। তামান্না বলেন, 'আমি বিভিন্ন রিক্রুটিং এজেন্সির মার্কেটিং বিভাগে কাজ করি। কোন এজেন্সির মাধ্যমে শিখাকে পাঠিয়েছি, তা এখন মনে পড়ছে না।' শিখাকে দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে দাবি করেন তিনি।সমকাল

মঙ্গলবার, ১২ এপ্রিল ২০২২, ০৫:৫৮

সৌদিআরবে চুরির দায়ে ৬ বাংলাদেশীসহ ১৫ জনকে গ্রেপ্তার

সৌদিআরবে চুরির দায়ে ৬ বাংলাদেশীসহ ১৫ জনকে গ্রেপ্তার

সৌদিআরবে চুরির দায়ে ৬জন বাংলাদেশীসহ মোট ১৫জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ।

আল-বাহা পুলিশের মিডিয়া মুখপাত্রের বরাত আল-মাখওয়াহ পুলিশ জানিয়েছে যে, তারা বিভিন্ন তামার তার, গ্যাস সিলিন্ডার এবং এয়ার কন্ডিশনার চুরি করার কারনে ১৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

এদের মধ্যে ৬ জন বাংলাদেশি নাগরিক, ১ জন ভারতীয় নাগরিক এবং ৪ জন সৌদি নাগরিক রয়েছে। তবে চুরির দায়ে গ্রেপ্তারকৃত ৬জন বাংলাদেশীর নাম পরিচয় জানা যায়নি ।

তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে এবং তাদের পাবলিক প্রসিকিউশনে রেফার করা হয়েছে।

সোমবার, ২৮ মার্চ ২০২২, ০৩:২৮

আশ্রয়ের সন্ধানে এখনও অনেক বাংলাদেশি
রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ

আশ্রয়ের সন্ধানে এখনও অনেক বাংলাদেশি

বিশ্বের দরবারে ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধ পরিস্থিতি আলোচনার প্রধান খোরাক হয়ে উঠেছে। দিন যতই গড়িয়ে যাচ্ছে ততই মানুষের বেঁচে থাকার অধিকারের ওপর চাপ বেড়ে চলছে। এই যুদ্ধে এক বাংলাদেশি নাবিকের মৃত্যুর মাধ্যমে তৈরি হয় উৎকন্ঠা আর আতঙ্ক। সেই আতঙ্কের ধাক্কা লাগে প্রবাসে অবস্থানরত প্রতিটি বাংলাদেশি নাগরিকদের মনে। যে মনন হয়ে ওঠে অস্থির। কিন্তু যে সকল বাংলাদেশি নাগরিক ইউক্রেনে বসবাস করতেন তারা কেমন করে এই পরিস্থিতি মোকাবেলা করেছে? কিভাবে নিরাপদ আশ্রয় খুজে পেলেন? এরকমই একজন বাংলাদেশি নাগরিক সদ্য ইউক্রেন যুদ্ধের পরিস্থিতি নিজ চোখে প্রত্যক্ষ করে স্পেনে এসে পৌছেছেন।

শনিবার, ১৯ মার্চ ২০২২, ০২:৫৮

ইউক্রেনের বাংকারে আটকে আছেন দুই বাংলাদেশি ছাত্র

ইউক্রেনের বাংকারে আটকে আছেন দুই বাংলাদেশি ছাত্র

ইউক্রেনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের শহর মারিউপোলের একটি বাঙ্কারে আটকে আছেন দুই বাংলাদেশি ছাত্র৷ যুদ্ধের কারণে তারা সেখান থেকে বের হতে পারছেন না৷ 

আটকে পড়া দুই ছাত্রের নাম মাহমুদুল হাসান দোলন ও মেহেদি হাসান৷ এক মাস আগে তারা ইউক্রেনে আসেন স্টুডেন্ট ভিসায়৷ সম্প্রতি ইউক্রেনের যে কয়টি শহরে রাশিয়া আক্রমণ করে, তার একটি মারিউপোল৷ এটি আজোভ সাগরের উপকূলীয় শহর৷

দোলনের ভগ্নিপতি পোল্যান্ড প্রবাসী মাসুদুর রহমান তুহিন জানান, গত শনিবারের পর থেকে দোলনের আর কোন খোঁজ পাচ্ছেন না তিনি৷ ‘‘গত শনিবার শেষ কথা হয়েছে৷ সে সময় পাঁচ ঘণ্টার ‘হিউম্যান করিডর’ দেয়া হয়েছিল৷ তখন দোলন ও মেহেদিসহ ৪০ জন সীমান্ত পাড়ি দেয়ার চেষ্টা করছিল৷ কিন্তু মাঝপথে ইউক্রেনের সেনারা তাদের গাড়ি ঘুরিয়ে দেয়৷ কারণ তখন রাশিয়া সেখানে বোমাবর্ষণ করছিল৷ আমরাও ফোনে বোমাবর্ষণের আওয়াজ পেয়েছি,” বলেন তিনি৷

এরপর মারিউপোলে একটি বাঙ্কারে আশ্রয় নেন দোলন ও মেহেদিসহ অন্যরা৷ সেখানে পোঁছে ভগ্নিপতিকে ভয়েস মেসেজ পাঠান দোলন৷

‘‘এরপর থেকে আর কোন যোগাযোগ নেই৷ ফোনে পাওয়া যাচ্ছে না৷ তারা খুবই অমানবিক অবস্থায় সেখানে আছে৷ বিদ্যুৎ নেই, পানি নেই, খাবার নেই,” বলেন তুহিন৷
এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে পোল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সুলতানা লায়লা হোসেন বলেন, সুমি থেকে এরই মধ্যে নয়জন বাংলাদেশিকে উদ্ধার করা হয়েছে৷ এই দুই বাংলাদেশিকেও উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত আছে৷

‘‘সমস্যা হলো, ওদের সঙ্গে যোগাযোগ করা যাচ্ছে না গত পাঁচ-ছয়দিন ধরে৷ সুমিতে বাংলাদেশিদের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল৷ তাই উদ্ধার করা সহজ হয়েছে৷ তবে এই দুই বাংলাদেশিকে তাদের ‘লোকেশন’ ধরে উদ্ধারের চেষ্টা করা হচ্ছে৷ আমরা অপেক্ষা করছি হিউম্যান করিডরের জন্য,” ডয়চে ভেলেকে টেলিফোনে বলেন রাষ্ট্রদূত৷

সরকারি পর্যায়ে আগেই যোগাযোগ করা হয়েছে জানিয়ে সুলতানা লায়লা হোসেন বলেন, আন্তর্জাতিক সংস্থা রেডক্রসের মাধ্যমে এখন তাদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে৷ ‘‘রেডক্রসের সঙ্গে আমাদের যোগাযোগ অব্যাহত আছে,” বলেন তিনি৷

এদিকে, দোলন ও মেহেদির পরিবারের পক্ষ থেকে দুই বাংলাদেশিকে উদ্ধারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়েছে৷

রোববার, ১৩ মার্চ ২০২২, ০৩:৫০

রকেট হামলায় নিহত হাদিসুরের মরদেহ আসছে আজ

রকেট হামলায় নিহত হাদিসুরের মরদেহ আসছে আজ

ইউক্রেনের অলভিয়া সমুদ্রবন্দরে হামলার শিকার ‘এমভি বাংলার সমৃদ্ধি’ জাহাজের নিহত থার্ড ইঞ্জিনিয়ার হাদিসুর রহমানের মরদেহ আজ বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) দেশে আনা হবে। বুধবার (৯ মার্চ) রাতে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের একটি সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।  

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক কূটনীতিক জানান, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার সকালে ইউক্রেন থেকে হাদিসুরের মরদেহ প্রথমে মলদোভা নিয়ে যাওয়া হবে। এরপর রোমানিয়া ও হাঙ্গেরির রাজধানী বুদাপেস্ট হয়ে বাংলাদেশে পৌঁছাবে।

এর আগে বুধবার (৯ মার্চ) দুপুরে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক (পূর্ব-ইউরোপ) শিকদার বদিউজ্জামান বলেছিলেন, হাদিসুর রহমানের মরদেহ এখনো ইউক্রেনে রয়েছে। যত দ্রুত সম্ভব আমরা তার মরদেহ দেশে ফেরাতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেব। এ বিষয়ে আমরা আন্তরিক। বিষয়টি নিয়ে এরই মধ্যে আমাদের তিনটি মিশন একসঙ্গে কাজ করছে।

তিনি বলেন, হাদিসুরের মরদেহ কতদিনের মধ্যে নিয়ে আসা সম্ভব হবে, তা টাইম ফ্রেম বেঁধে বলা মুশকিল। কারণ আপনারা জানেন ইউক্রেনে যুদ্ধ চলছে। সেখানে কেউ প্রবেশ করতে পারছেন না। তবে তার মরদেহ দেশে আনতে আমাদের শতভাগ আন্তরিকতা রয়েছে।

এদিন দুপুরে রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ভিআইপি টার্মিনালে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। তার আগে, ইউক্রেনে আটকেপড়া ২৮ বাংলাদেশি নাবিক রোমানিয়া হয়ে দেশে ফেরেন। তাদের বহন করা বিমানটি বুধবার বেলা ১২টার দিকে ঢাকার হযরত শাহজালাল (রাহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায়।
 

হাদিসুরের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, প্রথমে আমরা তার মরদেহ দেশে ফেরানোর ব্যাপারে কাজ করছি, সেটা সম্পন্ন হোক। তারপর ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের জন্য যা করণীয়, তা আমরা করব।
এ সময় ২৮ বাংলাদেশি নাবিক নিরাপদে দেশে ফিরতে পারায় তিনি আনন্দ প্রকাশ করে বলেন, আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। কারণ ইউক্রেনে যে যুদ্ধাবস্থা, সেই পরিস্থিতি থেকে বাংলাদেশের নাবিকদের দেশে ফিরিয়ে আনতে পেরেছি।

নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় প্রকাশিত তালিকা অনুযায়ী দেশে ফেরা ২৮ নাবিক হলেন- জি এম নূর ই আলম, মো. মনসুরুল ইসলাম খান, সেলিম মিয়া, রামকৃষ্ণ বিশ্বাস, মো. রোকনুজ্জামান রাজীব, ফারিয়াতুল জান্নাত তুলি, ফয়সাল আহমেদ সেতু, মো. ওমর ফারুক, সৈয়দ আশিফুল ইসলাম, রাজীবুল আউয়াল, সালমান সরওয়ার সামি, ফারজানা ইসলাম মৌ, মো. শেখ সাদী, মো. মাসুদুর রহমান, মো. জামাল হোসাইন, মোহাম্মদ হানিফ, মো. আমিনুর ইসলাম, মো. মোহিন উদ্দিন, হোসাইন মোহাম্মদ রাকিব, সাজ্জাদ ইবনে আলম, নাজমুল উদ্দিন, মো. নজরুল ইসলাম, সারওয়ার হোসাইন, মো. মাসুম বিল্লাহ, মোহাম্মদ হোসাইন, মো. আতিকুর রহমান, মো. শফিকুর রহমান ও মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন।

বৃহস্পতিবার, ১০ মার্চ ২০২২, ০৪:৩৪

ইউক্রেনের বন্দরে বাংলাদেশি জাহাজে গোলা, নিহত ১

ইউক্রেনের বন্দরে বাংলাদেশি জাহাজে গোলা, নিহত ১

ইউক্রেনে যুদ্ধের মধ্যে দেশটির অলভিয়া বন্দরের জলসীমায় আটকে পড়া বাংলাদেশি জাহাজ 'এমভি বাংলার সমৃদ্ধি' গোলার আঘাতের শিকার হয়েছে। এতে জাহাজটিতে বিস্ম্ফোরণ হয় এবং আগুন ধরে যায়। এ ঘটনায় হাদিসুর রহমান নামে এক প্রকৌশলী নিহত হয়েছেন। বাংলাদেশ সময় গতকাল রাত ১০টা থেকে সোয়া ১০টার মধ্যে এ ঘটনা ঘটে।

ইউক্রেন যুদ্ধে কোনো বাংলাদেশি নিহতের ঘটনা এটিই প্রথম। তবে রকেকটি কারা ছুড়েছে, সে বিষয়ে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। সাত দিন আগে শুরু হওয়া রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যকার যুদ্ধে এরই মধ্যে অনেক মানুষ হতাহত হয়েছে।

হামলার শিকার জাহাজটি বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের (বিএসসি) মালিকানাধীন। হাদিসুর রহমান ওই জাহাজের থার্ড ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন। তার বাড়ি বরগুনার বেতাগী উপজেলায়। এ প্রকৌশলী নিহত হওয়ার খবরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শোক প্রকাশ করে বহু মানুষ স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

কুর্ডস গ্লোবাল নামে একটি শিপিং প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশি জাহাজের রকেট হামলার শিকার হওয়ার তথ্য নিশ্চিত করে তাদের ফেসবুক পেজে পোস্ট দিয়েছে। তারা একটি ভিডিও পোস্ট করেছে। তাতে দেখা গেছে, জাহাজটিতে বিস্ম্ফোরণের পর আগুন ধরে যায়। ইউক্রেনের সমুদ্রবন্দর কর্তৃপক্ষের বরাতে ওই পোস্টে আরও বলা হয়েছে, একটি রকেট আঘাত হানার পর ৩৬৩ নম্বর অ্যাঙ্করেজে থাকা 'বাংলার সমৃদ্ধি'তে আগুন ধরে যায়। পরে বন্দর থেকে দুটি টাগবোট পাঠানো হয় সেখানে।

বিএসসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) কমডোর সুমন মাহমুদ সাব্বির গতকাল রাতে সমকালকে জানান, এমভি বাংলার সমৃদ্ধির আগুন নেভানো হয়েছে। জাহাজটিতে ২৯ বাংলাদেশি নাবিক ছিলেন। প্রকৌশলী হাদিসুর নিহত হয়েছেন। বাকিরা অক্ষত।
তিনি আরও জানান, জাহাজে খাবারসহ অন্যান্য রসদ পর্যাপ্ত রয়েছে। এখন জাহাজের সঙ্গে যোগাযোগ করা যাচ্ছে।

জাহাজে থাকা মেরিন ইঞ্জিনিয়ার ফয়সাল আহমেদ সেতুর বাবা ফারুক আহমেদ বলেন, 'সেতুর সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। ওরা সবাই ভালো আছে।' তিনি জানান, হামলার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় ও বিএসসির কর্মকর্তারা তাদের খোঁজ নিচ্ছেন। ছেলে ভালো আছে বলে সবাই আশ্বস্ত করছেন আমাদের।

বিএসসির ডিজিএম (চার্টার্ড) ক্যাপ্টেন মুজিবুর রহমান গতকাল মধ্যরাতে বলেন, আমরা শুনেছি, গোলা হামলা হয়েছে। তবে সেটি গোলা, নাকি বিমান হামলা- এখনও নিশ্চিত নয়। তবে আক্রান্ত 'বাংলার সমৃদ্ধি'তে অবস্থান করা নাবিক আতিকুর রহমান মুন্না তার ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, জাহাজে রকেট হামলা হয়েছে। একজন মারা গেছেন।

জাহাজটিতে থাকা এক নাবিকের ভাই আজিজুল হক টাঙ্গাইল সিভিল সার্জন কার্যালয়ের চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত। তিনি সমকালকে বলেন, 'জাহাজটি হামলার শিকার হয়েছে। আমাদের ভাইদের জন্য দোয়া করুন।'

বিএসসির নির্বাহী পরিচালক (বাণিজ্য) পীযূষ দত্ত জানান, আন্তর্জাতিক ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না ন্যাশনাল মেশিনারি ইমপোর্ট অ্যান্ড এক্সপোর্ট করপোরেশন (সিএমসি) ও বাংলাদেশের যৌথ অর্থায়নে এটি তৈরি করে চীনের জিয়াংশু নিউ ইয়াংজি শিপ বিল্ডিং কোম্পানি লিমিটেড। ২০১৮ সালের ১০ অক্টোবর জাহাজটি বিএসসিকে বুঝিয়ে দেয় তারা। রকেটের আঘাতে জাহাজটি কতটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে; প্রাথমিকভাবে তা নিরূপণ করা যায়নি। ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে পৌঁছানোর পর গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে জাহাজটি সেখানে আটকা পড়েছে।

বিএসসি সূত্রে জানা গেছে, সিরামিকের কাঁচামাল 'ক্লে' পরিবহনের জন্য জাহাজটি তুরস্ক থেকে ২২ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরের জলসীমায় পৌঁছে। দেশটিতে যুদ্ধ শুরু হওয়ায় পণ্য বোঝাই না করেই দ্রুত ফিরে আসার জন্য নির্দেশনা দেয় শিপিং করপোরেশন। শেষ মুহূর্তে বন্দরের পাইলট না পাওয়ায় ইউক্রেনের জলসীমা থেকে বেরিয়ে আসতে পারেনি জাহাজটি।

বিএসসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক জানান, গত বৃহস্পতিবার ভোরে ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলা চালানোর পর থেকে দেশটির বন্দরগুলোতে বাণিজ্যিক কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয়। বাংলাদেশি জাহাজটির মতো আরও কয়েকটি জাহাজ সেখানে আটকা পড়েছে। জাহাজ চলাচল পর্যবেক্ষণকারী 'মেরিন ট্রাফিক'-এর ওয়েবসাইটে দেখা যায়, এমভি সমৃদ্ধি ২২ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে পৌঁছে। জাহাজটি অলভিয়া বন্দর থেকে পণ্য বোঝাই করে ইতালির রেভেনা বন্দরে যাওয়ার কথা ছিল। পরিস্থিতি ভালো হলে জাহাজটির ইউক্রেন ত্যাগ করার কথা ছিল।

এদিকে জাহাজের একাধিক নাবিক নিজেদের ফেসবুক পেজে পরিস্থিতি জানিয়ে স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তাতে উদ্ধারের আকুতি জানিয়ে সহযোগিতা চেয়েছেন তারা।

যুদ্ধের কারণে ইউক্রেনে বসবাসকারী অন্য বাংলাদেশিদেরও ফিরিয়ে আনার প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

বৃহস্পতিবার, ৩ মার্চ ২০২২, ০৪:২৯

জাহাজসহ আটকা ২৯ বাংলাদেশি
ইউক্রেনের অলিভিয়া বন্দর

জাহাজসহ আটকা ২৯ বাংলাদেশি

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্যে আটকে পড়েছে বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের (বিএসসি) জাহাজ 'বাংলার সমৃদ্ধি'। ইউক্রেনের অলিভিয়া বন্দরে আটকে পড়া জাহাজটির ২৯ নাবিকের সবাই বাংলাদেশি। ওই বন্দর এলাকার সাগরে রাশিয়া মাইন ছড়িয়ে দেওয়ায় জাহাজটি বের করা যাচ্ছে না। যুদ্ধক্ষেত্রের মধ্যে এখন নাবিকদের প্রতিটি মুহূর্ত কাটছে চরম আতঙ্কে। এই অবস্থায় উদ্ধার পেতে সরকার, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও বিএসসির প্রতি আকুতি জানিয়েছেন আটকে পড়া নাবিকরা।

গতকাল রোববার দুপুরে জাহাজটির নাবিক ওমর ফারুক তুহিন হোয়াটসআপ নম্বর থেকে গণমাধ্যমকে নিজেদের আটকে পড়ার বিষয়টি জানান। জাহাজটিতে ২৯ জন নাবিক রয়েছেন উল্লেখ করে ফারুক তুহিন জানান, রাশিয়ান সেনারা সাগরে মাইন পুঁতে রাখায় বন্দর থেকে কোথাও যেতে পারছেন না তারা। তাদের চারপাশে বোমা বিস্ম্ফোরণ হচ্ছে। যে কোনো সময় গোলা বা ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে তারা প্রাণ হারানোর শঙ্কায় রয়েছেন। এরই মধ্যে তাদের আশপাশে থাকা অন্তত পাঁচটি জাহাজ ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় বিধ্বস্ত হয়েছে। খাবারও ফুরিয়ে আসছে। আর ১০ থেকে ১৫ দিনের খাবার রয়েছে তাদের।

ইউক্রেনে জাহাজসহ নাবিক আটকে পড়ার বিষয়টি সমকালকে নিশ্চিত করেছেন বিএসসির নির্বাহী পরিচালক পীযূষ দত্ত। তিনি বলেন, ২১ ফ্রেব্রুয়ারি জাহাজটি ইউক্রেনে অলিভিয়া বন্দরের আউটারে পৌঁছে। পরদিন ২২ ফেব্রুয়ারি জাহাজটি বন্দরের জেটিতে ঢোকে। ওই বন্দর থেকে কিছু পণ্য লোড করার কথা ছিল। কিন্তু রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে যুদ্ধাবস্থা তৈরি হলে পণ্য লোড না করেই জাহাজটিকে ফিরে আসতে বলা হয়েছিল। তবে স্থানীয় বন্দরের পাইলট না পাওয়ায় জাহাজটি জেটি ত্যাগ করতে পারেনি। এরই মধ্যে ২৩ ফেব্রুয়ারি যুদ্ধ শুরু হয়ে যায়। ফলে নাবিকসহ জাহাজটি আটকে পড়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে বিএসসির এই নির্বাহী পরিচালক বলেন, ইউক্রেনে বন্দরের প্রবেশমুখে মাইন পুঁতে রাখা হয়েছে বলে আমরাও ধারণা করছি। তাই আপাতত তাদের সেখানেই অবস্থান করতে বলা হয়েছে। নাবিকদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। তারা যেখানে রয়েছেন সেটি কিছুটা সেফ জোন। তবে এই অবস্থায় কী করা যায় তা নিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কথা হচ্ছে।

সোমবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ০৪:৩৯

ইউক্রেন ছেড়ে পোল্যান্ড-রোমানিয়ায় ২০০ বাংলাদেশি

ইউক্রেন ছেড়ে পোল্যান্ড-রোমানিয়ায় ২০০ বাংলাদেশি

 

ইউক্রেন ছেড়ে প্রায় ২০০ বাংলাদেশি পোল্যান্ড ও রোমানিয়ায় পৌঁছেছেন। আরো অনেকে ইউক্রেন ছাড়ার অপেক্ষায়। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহিরয়ার আলম গতকাল শনিবার রাতে এ তথ্য জানান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা ইউক্রেনপ্রবাসী প্রায় ৭০০ জনের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি।


পোল্যান্ডে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সুলতানা লায়লা হোসেন গতকাল শনিবার কালের কণ্ঠকে বলেন, ইউক্রেন থেকে পোল্যান্ডে ঢুকতে সীমান্তে একেকজনকে আট-দশ ঘণ্টা করে অপেক্ষা করতে হয়েছে। সীমান্তে অপেক্ষার সময় অনেক অসুবিধা ও কষ্ট সহ্য করতে হয়েছে। এখনকার যুদ্ধাবস্থা উপেক্ষা করার বা অন্য কোনো স্বাভাবিক অবস্থা তৈরি করা আমাদের কারো পক্ষে সম্ভব নয়। ’

রাষ্ট্রদূত আরো বলেন, ‘যাঁরা সীমান্ত অতিক্রম করতে চান, তাঁদের মানসিক ও শারীরিকভাবে এই অবস্থার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। এই পরিস্থিতিতে স্বাভাবিকভাবে সীমান্ত পার হওয়ার নিশ্চয়তা কেউ দিতে পারবে না। ’

পোল্যান্ড থেকে পাওয়া খবরে জানা গেছে, গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত এক শ-এর বেশি বাংলাদেশি পোল্যান্ডে ঢুকেছেন। মোট সাতটি পয়েন্টে লোকজন ইউক্রেন থেকে পোল্যান্ডে ঢুকছে। বাংলাদেশ দূতাবাসের একটি দল সীমান্ত এলাকায় অবস্থান করছেন। তাঁরা ইউক্রেন থেকে আসা বাংলাদেশিদের থাকা, পরিবহনসহ সব ব্যবস্থা করছেন। তবে অনেকে পোল্যান্ডে তাঁদের আত্মীয়-স্বজন বা পরিচিতদের সঙ্গে থাকছেন।  

পোল্যান্ড প্রান্তে সমস্যা না থাকলেও ইউক্রেন প্রান্তে বেশ ভিড়। ফলে অনেকে সীমান্ত এলাকায় এসে সারা দিন অপেক্ষার পরও পোল্যান্ডে ঢুকতে না পেরে ফিরে যাচ্ছেন। পরদিন আবার আসছেন। বাংলাদেশ দূতাবাস বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছে। তারা সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছে।  

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহিরয়ার আলম বলেন, ইউক্রেনের দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে যাঁরা আছেন তাঁরা রোমানিয়ায় যেতে পারেন। রোমানিয়া সরকার দুই দিনের থাকার ব্যবস্থা করবে এবং তারপর তাঁদের বুখারেস্টে বাংলাদেশ দূতাবাসের তত্ত্বাবধানে রেখে বাংলাদেশে আসার ব্যবস্থা করা হবে।  

সীমান্তে অর্থ নেওয়ার অভিযোগ
এই সংকটের সময়ও প্রতারকচক্র সীমান্ত অতিক্রম ও পোল্যান্ডে যাওয়া ব্যক্তিদের সহযোগিতা দেওয়ার বিনিময়ে অর্থ নিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। পোল্যান্ডে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘আমরা জেনেছি, একটি অসাধু চক্র ইউক্রেন থেকে আগত ব্যক্তিদের সহযোগিতা দেওয়ার বিনিময়ে অর্থ নিচ্ছে, যা মোটেই কাম্য নয়। এ রকম ঘটনা নজরে এলে দূতাবাস তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে। ’

ইউক্রেনে বাংলাদেশের দূতাবাস নেই। প্রতিবেশী পোল্যান্ডে বাংলাদেশ দূতাবাস ইউক্রেনে বাংলাদেশের স্বার্থ দেখভাল করে থাকে। ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরুর প্রায় দুই সপ্তাহ আগে দূতাবাসের পক্ষ থেকে ইউক্রেনপ্রবাসী বাংলাদেশিদের অন্যত্র নিরাপদ স্থানে চলে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু বেশির ভাগই তখন ইউক্রেন ছাড়েননি।  

দূতাবাস সূত্র জানায়, যুদ্ধ শুরুর প্রাক্কালে ইউক্রেনপ্রবাসী অনেক বাংলাদেশি পোল্যান্ডে দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করলেও অনেকে এখনো করেননি। দূতাবাসের হিসাবে, ইউক্রেনে বাংলাদেশির সংখ্যা প্রায় দেড় হাজার।  

এদিকে ডয়েচে ভেলেকে পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় ইউক্রেনপ্রবাসী বাংলাদেশি ছাত্র সুসময় সরকার বলেন, তিনি সীমান্ত এলাকায় যাওয়ার ট্রেনে উঠেছেন। তিনি জেনেছেন, সীমান্ত পাড়ি দিতে গিয়ে বাংলাদেশিদের সমস্যায় পড়তে হচ্ছে।   

ডয়েচে ভেলে জানায়, ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে এখনো অনেক বাংলাদেশি আটকে আছেন।   কিয়েভ ছেড়ে যেতে তাঁরা কোনো পরিবহন পাচ্ছেন না। রাত বাড়লেই হামলার শঙ্কা বাড়ে। একটু পর পর রকেট হামলার শব্দ পাচ্ছেন।

 

রোববার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ০৩:২৭

আজারবাইজানে হাত-পা ভেঙে হত্যা বাংলাদেশি ছাত্রীকে

আজারবাইজানে হাত-পা ভেঙে হত্যা বাংলাদেশি ছাত্রীকে

 আজারবাইজানের বাকু বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ছাত্রী রিয়া ফেরদৌসী (৩৩) দুর্বৃত্তের হাতে খুন হয়েছেন। বুধবার আজারবাইজান সময় সকাল ১০টার দিকে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত শিক্ষার্থী রিয়া ফেরদৌসী রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলা সদরের কাঁঠালবাড়িয়া গ্রামের আবু বক্করের মেয়ে। পরিবারের দাবি, সেখানকার পুলিশ হত্যার বিষয়টি গোপন করার চেষ্টা করছে। তবে কী কারণে বা কারা হত্যা করেছে সে বিষয়ে কিছুই জানাতে পারেনি তার পরিবারের লোকজন।

এদিকে আজারবাইজানে বাংলাদেশি কনস্যুলেট নেই। এ কারণে ইরানে অবস্থিত বাংলাদেশের কনস্যুলেট থেকে কূটনৈতিক তৎপরতা চালানো হচ্ছে বলে জানা গেছে।
নিহত রিয়ার ভাই ফরমান আলী বলেন, রিয়া ঢাকার একটি কলেজ থেকে কয়েক বছর আগে অনার্স শেষ করেছে। এরপর আইন পড়তে গত বছর আজারবাইজানের বাকু বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়। লেখাপড়ার পাশাপাশি সেখানকার একটি রেস্টুরেন্টে খন্ডকালীন চাকরি নেয়। সেখানকার লোকের মাধ্যমে শুনেছেন ওই রেস্টুরেন্টে যাতায়াতের সময় স্থানীয় কিছু বখাটে তাকে উত্ত্যক্ত করত। তাদের কথায় রাজি না হওয়ায় বুধবার সকালের দিকে রিয়াকে তুলে নিয়ে যায়। পরে তার হাত-পা ভাঙা মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তবে কারা কী কারণে এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে তা এ মুহূর্তে তারা বলতে পারছেন না। রিয়া ভাই-বোনের মধ্যে সবার ছোট। বাবা আবু বক্কর বলেন, অনেক কষ্টে আমাদের সংসার চলে। ছোট থেকেই মেয়েটার একটা স্বপ্ন ছিল, সে ব্যারিস্টার হবে। আর আমাদের সব কষ্ট দূর করবে। এখনতো সব শেষ। আমি গরিব মানুষ। খুনিকে শনাক্ত করা বা বিচার পাওয়ার কোনো আশা নেই। তাই সরকারের কাছে আবেদন জানাই, অন্তত মেয়ের লাশটা যেন দেশে এনে আমাদের কাছে পৌঁছে দেন। রাজশাহীর পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেন বলেন, এখানকার একটি মেয়ে বিদেশে হত্যাকান্ডের শিকার হয়েছেন এমন কথা শুনেছি। তবে এখন পর্যন্ত প্রশাসনিকভাবে লিখিত কোনো তথ্য বা ভুক্তভোগী পরিবারের কেউ আমাদের কিছুই জানায়নি।

শুক্রবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ০২:২৫

যুদ্ধ উত্তেজনার মধ্যে ইউক্রেনে যেমন রয়েছেন বাংলাদেশিরা

যুদ্ধ উত্তেজনার মধ্যে ইউক্রেনে যেমন রয়েছেন বাংলাদেশিরা

শহরের অবস্থা থমথমে, মানুষজনের চলাফেরা অনেক কমে গেছে। বিশেষ করে তরুণদের একেবারেই দেখা যাচ্ছে না। গাড়িতে, পথে আগের মতো মানুষের দেখা মেলে না।

শহরের অবস্থা থমথমে, মানুষজনের চলাফেরা অনেক কমে গেছে। বিশেষ করে তরুণদের একেবারেই দেখা যাচ্ছে না। গাড়িতে, পথে আগের মতো মানুষের দেখা মেলে না।

প্রায় ৩০ বছর ধরে ইউক্রেনের খারকিভে বাস করছেন খালেদা নাসরিন নীলিমা। সোভিয়েত আমল থেকে শুরু করে ইউক্রেনের স্বাধীনতা, বর্তমান যুদ্ধাবস্থা – সবই তার চোখের সামনে ঘটেছে। কিন্তু এতদিন পর ইউক্রেনে থাকা নিয়ে অনিশ্চয়তায় ভুগছেন বাংলাদেশি এই চিকিৎসক।

‘এতদিন ধরে যত্ন করে যে বাসা সাজিয়েছিলাম, এখন সেটা ছেড়ে যেতে হবে। আপাতত ওয়েস্টে, পোল্যান্ড সীমান্তের কাছাকাছি এক বন্ধুর বাসায় গিয়ে কিছুদিন থাকব। এরপর সিদ্ধান্ত নেব ইউক্রেনেই থাকব, বাংলাদেশে যাব নাকি অন্য কোথাও যাব,’ বিবিসি বাংলাকে বলছিলেন ডা. খালেদা নাসরিন।

তিনি যে শহরে থাকেন, সেই খারকিভ থেকে রাশিয়ার সীমান্তের দূরত্ব ৩০ কিলোমিটার। এটিও পূর্ব ইউক্রেনের একটি শহর। বিমান, ট্যাঙ্ক, ট্রাক্টর ইত্যাদি ভারী যানবাহন তৈরির জন্য এই শহরের পরিচিতি রয়েছে।

‘খু্বই উদ্বেগে আছি, তাই অন্য শহরে চলে যাচ্ছি। আগামীকালই যাব। এই বাসায় ২০ বছর ধরে থাকি, একেবারেই যেতে ইচ্ছা করছে না। কিন্তু আমি এখানে থাকা এখন একেবারেই নিরাপদ বোধ করছি না,’ বলছিলেন ডাঃ নাসরিন।

দোনেৎস্ক ও লুহানস্ককে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে রাশিয়ার স্বীকৃতি দেওয়ার পর যুদ্ধভীতির ছায়া পড়তে শুরু করেছে এই শহরের ওপরেও।

খালেদা নাসরিন আশঙ্কা করছেন, রাশিয়ার সঙ্গে ইউক্রেনের পুরাদস্তুর যুদ্ধ বেধে গেলে গুরুত্বপূর্ণ এই শহরের ওপর প্রথমদিকে তার প্রভাব পড়বে। তাই এরইমধ্যে শহরের অনেক বাসিন্দা শহর ছাড়তে শুরু করেছেন।

‘শহরের অবস্থা থমথমে, মানুষজনের চলাফেরা অনেক কমে গেছে। বিশেষ করে তরুণদের একেবারেই দেখা যাচ্ছে না। গাড়িতে, পথে আগের মতো মানুষের দেখা মেলে না। হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা অনেক কমে গেছে। দোকানপাট খোলা আছে, তবে খাবার, সবজির দাম এক সপ্তাহের মধ্যেই ২০/৩০ শতাংশ বেড়ে গেছে,’ বলছেন তিনি।

ডা. নীলিমা জানান, শহরের অনেক বাসিন্দা গোপনে শহর ছেড়ে অন্যত্র চলে গেছেন। তার সন্তান যে স্কুলে পড়ে, সেখানেও শিক্ষার্থীদের সংখ্যা অর্ধেকের নিচে নেমে এসেছে।

ইউক্রেনে আনুমানিক প্রায় এক থেকে দেড় হাজার বাংলাদেশি রয়েছেন বলে বাংলাদেশের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

পোল্যান্ডে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সুলতানা লায়লা হোসেন বিবিসি বাংলাকে বলেছেন, ‘তারা পুরো ইউক্রেনে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে এবং ইস্টার্ন ইউক্রেনের যেসব এলাকায় সমস্যা রয়েছে, সেখানেও অনেক বাংলাদেশি আছেন, স্টুডেন্ট আছেন।’

ইউক্রেনে বাংলাদেশের দূতাবাস না থাকায় পোল্যান্ড দূতাবাস থেকে সেখানকার কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

রাষ্ট্রদূত সুলতানা লায়লা হোসেন বলছেন, যদিও শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীদের জন্য বিভিন্ন কারণে ইউক্রেন ছাড়ার ব্যবহারিক নানা অসুবিধা আছে, কিন্তু পরিস্থিতির কারণে অনেকে বাধ্য হয়ে ইউক্রেন ছাড়ার কথা ভাবছেন এবং ছাড়ছেনও।

‘যারা শিক্ষার্থী বা ব্যবসায়ী হিসেবে এসেছেন, বা চাকরি করেন, তারা চাইছেন সেখানে থেকে যেতে। তবে পরিস্থিতি আরও খারাপ হলে হয়তো তাদের সরে আসতে হবে। অনেকে এরইমধ্যে অন্যত্র সরে যাচ্ছেন,’ বলছেন সুলতানা লায়লা হোসেন।

তবে ইউক্রেনে থাকা বেশিরভাগ বাংলাদেশি এখনই বাংলাদেশে ফিরে যেতে চান না বলে তিনি জানিয়েছেন।

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের অবস্থা অবশ্য খারকিভের তুলনায় অনেক স্বাভাবিক।

এই শহরের বাসিন্দা বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মাহবুব আলম বিবিসি বাংলাকে বলছেন, ‘সবার মধ্যে একটি চাপা উত্তেজনা আছে, তবে জীবনযাত্রা স্বাভাবিকই বলা চলে। কনসার্ট হচ্ছে, অফিস-আদালত, যানবাহন চলছে। কিন্তু সবার মধ্যেই রাশিয়া নিয়ে একটি আলোচনা আছে।’

তবে রাশিয়ার সীমান্তের কাছাকাছি যেসব শহরে বাংলাদেশিরা থাকেন, তারা বেশ উদ্বেগে রয়েছেন বলে তিনি জানিয়েছেন।

‘অনেকের সঙ্গেই আমার নিয়মিত কথা হচ্ছে, যোগাযোগ হচ্ছে। তারা একটু ভয়ে আছেন। তারা অনেকেই ডর্মে বা বাসায় থাকছেন। পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়ে গেলে তারা হয়তো কিয়েভে চলে আসবেন বা পোল্যান্ডে চলে যাবেন,’ তিনি বলছেন।

পোল্যান্ডে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সুলতানা লায়লা হোসেন বলছেন, ‘দুইটি গ্রুপের মাধ্যমে ইউক্রেনে থাকা পাঁচশোর বেশি বাংলাদেশির সঙ্গে আমাদের নিয়মিত যোগাযোগ হচ্ছে। তাদের আমরা সহযোগিতার সব রকম আশ্বাস দিয়েছি। তারা পোল্যান্ডে আসলে এখানে সাময়িকভাবে থাকা বা আশ্রয়ের সব ব্যবস্থা করা হবে।’

তিনি জানান, তাদের হিসাবে ইউক্রেনে এখন এক হাজার থেকে ১৫০০ বাংলাদেশি রয়েছেন। পূর্ব ইউক্রেনের যে অংশে সমস্যার তৈরি হয়েছে, সেখানেও অনেক বাংলাদেশি রয়েছেন বলে তিনি জানান।

ডা. খালেদা নাসরিন খারকিভের একটি হাসপাতালে চিকিৎসক হিসেবে কাজ করেন। সরকারি ভবনে তিনি পরিবার নিয়েই বসবাস করেন। তিনি জানাচ্ছেন, এক সপ্তাহ আগেও খারকিভের স্কুল বা শহর কর্তৃপক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, যুদ্ধের কোনো সম্ভাবনাই নেই।

কিন্তু গতকাল থেকে তাদের পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে, সুযোগ থাকলে তারা যেন অন্য কোনো জায়গায় চলে যান। খারকিভে থাকলে সাইরেন বাজতে শুরু করলে যেন তারা ভবনের নিচে থাকা বাঙ্কারে গিয়ে আশ্রয় নেন।

২০১৪ সালের ঘটনাগুলোও তার চোখের সামনেই ঘটেছে। তিনি বলছেন, সেই সময় সবকিছু একটা বিশৃঙ্খল অবস্থার মধ্যে ঘটেছে। কিন্তু এবার মনে হচ্ছে যেন সবকিছুই পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী ঘটছে।

খারকিভের বাসিন্দাদের একটি বড় অংশ রুশ ভাষাভাষী। তাদের মধ্যে রাশিয়ার হামলা নিয়ে খুব বেশি উদ্বেগ তিনি দেখতে পাননি। তাদের অনেককে দেখে মনে হয় যেন কিছু আসে যায় না।

তিনি বলছেন, ‘যুদ্ধ না বাধলেও আমি হয় দেশে ফিরে যাবো, না হয় অন্য দেশে চলে যাবো। কারণ এখানে যেসব গভীর সমস্যা তৈরি হয়েছে, সেগুলোর আর সমাধান হবে বলে আমার মনে হচ্ছে না।’

বৃহস্পতিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ০৪:৪১

চাকরি হারিয়ে নিঃস্ব অবস্থায় দেশে ফিরেছেন ৫৩ শতাংশ প্রবাসী

চাকরি হারিয়ে নিঃস্ব অবস্থায় দেশে ফিরেছেন ৫৩ শতাংশ প্রবাসী

করোনা মহামারিকালে চাকরি হারিয়ে নিঃস্ব অবস্থায় দেশে ফিরেছেন ৫৩ শতাংশ প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মী। এ সময় তাঁদের অনেকে এক বছর পর্যন্ত বেতন হারিয়েছেন। সেই সঙ্গে বোনাস, ওভারটাইম এবং চাকরিকালীন অন্যান্য আর্থিক সুবিধাও পাননি। অভিবাসী কর্মী উন্নয়ন প্রোগ্রামের (ওকাপ) এক গবেষণায় এ তথ্য জানানো হয়।

রাজধানীর গুলশানে একটি কনভেনশন সেন্টারে বৃহস্পতিবার ‘কোভিড-১৯: হাও দ্য প্যান্ডেমিক হ্যাজ এক্সাসারবেটেড সিচুয়েশনস অব ভালনার‍্যাবিলিটি ফর বাংলাদেশি মাইগ্রেন্ট ওয়ার্কার্স’ শীর্ষক গবেষণা প্রকাশ করে ওকাপ।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএমইটির মহাপরিচালক মো. শহিদুল আলম। আলোচক ছিলেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উপসচিব এবিএম আবদুল হালিম, বিআইআইএসএসের রিসার্চ ফেলো বেনুকা ফেরদৌসী, ব্র্যাকের অভিবাসন প্রধান শরিফুল ইসলাম হাসান, বিএনএসকের নির্বাহী পরিচালক সুমাইয়া ইসলাম এসডিসির নিরাপদ অভিবাসন প্রোগ্রামের ব্যবস্থাপক নাজিয়া হায়দার। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ওকাপের চেয়ারম্যান শাকিরুল ইসলাম।

গবেষণায় জানানো হয়, ৫৪ শতাংশ বাংলাদেশি প্রবাসী শ্রমিককে চাকরি থেকে বাদ দেওয়া হয়। আর তাঁদের মধ্যে ২৭ শতাংশ কর্মীর ওয়ার্ক পারমিট নবায়ন করা হয়নি। ফেরত আসা শ্রমিকদের ৮ শতাংশকে পর্যাপ্ত সুরক্ষা ব্যবস্থা ছাড়াই কাজ করতে হয়েছে। বাংলাদেশে ফেরত আসা ৭৪ শতাংশ শ্রমিকের কোনো সঞ্চয় নেই। তাঁদের আত্মীয়স্বজনের কাছ থেকে ঋণ করে দিন পার করতে হচ্ছে। আর ৭ শতাংশের তিন বেলা খাওয়ার টাকা পর্যন্ত নেই।

 বাংলাদেশে ফেরত আসা প্রবাসী শ্রমিকদের মাত্র ৬ শতাংশ স্থানীয় বাজারে কাজ পেয়েছেন। বাকিদের অর্থনীতিতে অন্তর্ভুক্তিতে সমস্যায় পড়তে হচ্ছে।

 ৫৩ শতাংশ প্রবাসী শ্রমিক খালি হাতে এলে বাংলাদেশের রেমিট্যান্সে কেন বাড়ছে? গবেষণা নিয়ে মুক্ত আলোচনায় এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে ওকাপের চেয়ারম্যান শাকিরুল ইসলাম বলেন, ‘এটি একটি অলৌকিক বিষয়। এ নিয়ে এখনো কোনো গবেষণা হয়নি। তবে করোনাকালে হুন্ডি কম হয়ে ব্যাংকিং চ্যানেলে অর্থ আসা, রেমিট্যান্সে প্রণোদনাসহ আরও কিছু বিষয় হয়তো রেমিট্যান্স বাড়তে সহযোগিতা করেছে।’

 গবেষণায় জানানো হয়, করোনার সময়ে আসা ১০ শতাংশ অভিবাসী শ্রমিক আবার কর্মস্থলে যেতে প্রস্তুত। আর ৪৪ শতাংশ ফ্লাইটের অনুমোদনের জন্য অপেক্ষায় রয়েছেন। ৪৪ শতাংশ অভিবাসী শ্রমিকের ভিসা প্রক্রিয়াধীন। আর ৮২ শতাংশ অভিবাসন প্রত্যাশী এজেন্ট বা সাব এজেন্টকে করোনার আগেই অর্থ দিয়ে রেখেছেন। এ টাকা ফেরত পেতে তাঁদের বেগ পেতে হচ্ছে। তাঁদের মধ্যে ৬৯ শতাংশ অভিবাসন প্রত্যাশী উচ্চ সুদে ঋণ নিয়ে রেখেছেন।

সূত্র: আজকের পত্রিকা

শুক্রবার, ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ০৪:৩৩

সিঙ্গাপুরে নির্মাণাধীন ভবনের স্টিলবার পড়ে বাংলাদেশি শ্রমিক নিহত

সিঙ্গাপুরে নির্মাণাধীন ভবনের স্টিলবার পড়ে বাংলাদেশি শ্রমিক নিহত

 সিঙ্গাপুরে নির্মাণাধীন ভবনে কাজ করতে গিয়ে ৩১ বছর বয়সী এক বাংলাদেশি নির্মাণ শ্রমিক নিহত হয়েছেন। বেডক রিজার্ভ পার্কের একনির্মাণাধীন ভবনে গত শনিবার সকালে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দেশটির সংবাদমাধ্যম স্ট্রেইট টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, একটি টাওয়ার ক্রেন দিয়ে স্টিলবার উপরে তোলা হচ্ছিল। তখন হঠাৎ বারগুলো পড়ে গেলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
সেদেশের পুলিশ জানায়, চিন লি কনস্ট্রাকশনের নিয়োগকৃত ওই বাংলাদেশি শ্রমিককে উদ্ধার করে চাঙ্গি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।তিনি  সেখানে মারা যান।

পুলিশ ও  জনশক্তি মন্ত্রণালয় ঘটনার তদন্ত করছে। জনশক্তি মন্ত্রণালয় সেখানে সব উত্তোলন কার্যক্রম বন্ধ করতে বলেছে।

মঙ্গলবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:২৯

ইতালির স্পন্সর ভিসায় সাফল্য অর্জন, বাংলাদেশিও পাবেন সুযোগ

ইতালির স্পন্সর ভিসায় সাফল্য অর্জন, বাংলাদেশিও পাবেন সুযোগ

সম্প্রতি ইতালির স্বরাষ্ট্র ও পরিবহন মন্ত্রীরা বিভিন্ন গণমাধ্যমে বিষয়টি সম্পর্কে কথা বলেন। ২০২২ সালের জন্য এই ফ্লুসি বা স্পন্সরশিপ ভিসা চালু হবে কৃষি, নির্মাণ, ভারি পরিবহন, হোটেল, পর্যটন ও উৎপাদনশীলখাতে।

রোববার, ৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:৪৯

যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলাদেশি শাহ হালিম

যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলাদেশি শাহ হালিম

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব হিউস্টনের সাবেক চেয়ারম্যান শাহ হালিম এ বছর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট লাইফটাইম অ্যাওয়ার্ড বা প্রেসিডেন্টের আজীবন সম্মাননা পেয়েছেন। তার এ অর্জনে উক্ত সংগঠনসহ প্রবাসী  বাংলাদেশিরা অভিনন্দন জানিয়েছেন।

২৫ বছর যাবত শাহ হালিম বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব হিউস্টনের কর্মী হিসেবে কাজ করে জোরালো ভূমিকা ও অবদান রেখে যাচ্ছেন। তিনি ছয় বছর বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারপারসন হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন এবং বাংলাদেশ-আমেরিকা সেন্টার স্থাপনে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন।

এছাড়াও তিনি বিগত ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে স্থানীয় মূলধারার সংগঠনসহ বিভিন্ন সমাজকল্যাণমূলক প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে কাজ করে চলেছেন।

উক্ত সংগঠনসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত হয়ে অসংখ্য সমাজকল্যাণমূলক কাজে অবদান রেখেছেন। তিনি মূলধারায় অনেক সংগঠনের সঙ্গে সমাজ উন্নয়নমূলক কার্যক্রমসহ মানবাধিকার কার্যক্রম, সামাজিক ন্যায্যতা ইত্যাদি বিষয়ে অবদান ও ভূমিকা রেখেছেন।
 
বাংলাদেশের গোপালগঞ্জের অধিবাসী শাহ হালিম ব্যক্তিগতভাবে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের জন্য যুক্তরাষ্ট্রে গমন করেন তার স্বপ্নপূরণের জন্য। তার পিতা প্রয়াত শাহ আব্দুল হালিম ছিলেন একজন সমাজকর্মী এবং সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট বিজিএমইএ।

হালিমের পরিবার ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে এবং তার পূর্বপুরুষদের অনেকেই সরকারি পর্যায়ে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত থেকে বিশেষ ভূমিকা পালন করেছেন।

শাহ হালিম তার বিভিন্ন কার্যক্রমের মাধ্যমে এবং বিশেষ করে এ সম্মানজনক প্রেসিডেন্টস লাইফটাইম অ্যাওয়ার্ড অর্জন করে আমাদের সবাইকে গর্বিত করেছেন।

রোববার, ২১ নভেম্বর ২০২১, ০৩:১৩

কানাডায় সড়কে প্রাণ গেলো এক বাংলাদেশি শিক্ষার্থীর

কানাডায় সড়কে প্রাণ গেলো এক বাংলাদেশি শিক্ষার্থীর

কানাডার টরন্টোয় গাড়ি চাপায় নাদিয়া ওসমান নামে এক বাংলাদেশি শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। সে টরন্টোর বার্চমাউন্ট কলেজিয়েট স্কুলের ১২ গ্রেডের শিক্ষার্থী ছিলো।

জানা যায়, স্থানীয় সময় মঙ্গলবার আনুমানিক সকাল ১১টা ৪৫ মিনিটে সিগনাল পার হবার সময় একটি ভ্যানের সঙ্গে নাদিয়ার ধাক্কা লাগে। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। অপর দিকে গাড়ির চালক একজন নারী। তিনি গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

মেধাবী নাদিয়া শিক্ষার্থী বাবা মায়ের একমাত্র সন্তান। তার মৃত্যুতে কমিনিউটিতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। অন্টারিও সংসদের সাংসদ ডলি বেগম নাদিয়ার বাসায় গিয়ে তার শোকসন্তপ্ত পরিবারকে সহানুভূতি জানান।

নাদিয়ার নামাজে জানাজা টরন্টো সময় বৃহস্পতিবার ২১শে অক্টোবর বাদ জোহর (২:০০ মি.) টরন্টোস্থ মসজিদ আল-আবেদীন, ইসলামিক রিসার্চ সেন্টারে অনুষ্ঠিত হবে।

শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৪:২২

আফগানিস্তানে আটকা পড়েছে ২৭ বাংলাদেশি

আফগানিস্তানে আটকা পড়েছে ২৭ বাংলাদেশি

আফগানিস্তানে তালেবান নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার পর বিভিন্ন দেশের নাগরিক এবং আফগানিস্তানের স্থানীয় লোকজনের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। ফলে তারা যেভাবে পারছেন দেশ ছাড়ছেন। এরইমধ্যে খবর প্রকাশ হয়েছে আফগানিস্তানে ২৭ জন বাংলাদেশি আটকা পড়েছেন। শেষ মুহূর্তে ফ্লাইট বাতিল হওয়ায় দেশটির সবচেয়ে বড় মুঠোফোন প্রতিষ্ঠানটিতে কর্মরত সাত বাংলাদেশি প্রকৌশলীও আছেন ওই দলে। তাদের দ্রুত দেশে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া চলছে।

শনিবার, ২১ আগস্ট ২০২১, ০৪:০৭

ওয়াশিংটনে কর্মব্যস্ত সালমান

ওয়াশিংটনে কর্মব্যস্ত সালমান

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান যুক্তরাষ্ট্রে কর্মব্যস্ত দিন কাটাচ্ছেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা, রাজনীতিবিদ, সিনেটর, বিশ্ব ব্যাংকের প্রতিনিধি এবং বিদেশি ও প্রবাসী ব্যবসায়ীদের সাথে বৈঠক করেছেন। এসব বৈঠকে তিনি বাংলাদেশের উন্নয়নে সবার অংশীদারিত্বের আহ্বান জানিয়েছেন। দেশের বিভিন্ন খাতে সবাইকে বিনিয়োগেরও আহ্বান জানিয়েছেন সালমান।

শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ০৩:১৫

মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়ার ফাইনালে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কিশোয়ার চৌধুর

মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়ার ফাইনালে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কিশোয়ার চৌধুর

মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়ার ১৩তম আসরে রুবি চিকেন কারি তৈরি করে বিচারকদের মন জয় করে সরাসরি ফাইনালে থাকছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কিশোয়ার চৌধুরী। এর আগে, অ্যালিমিনেশন রাউন্ড থেকে নিজেকে বাঁচাতে রান্না করেছেন নানা পদ। তবে, বিচারকদের কাছে সব থেকে ভালো লাগা চারটি পদের ভিত্তিতেই তিনি জায়গা পেলেন ফাইনালে।

বিশ্বের রান্নাবিষয়ক টেলিভিশন রিয়েলিটি শোর মধ্যে মাস্টারশেফ অন্যতম। বিশ্বের প্রায় ৪০টি দেশ তাদের নিজস্ব মাস্টারশেফ আয়োজন করে থাকে। বিশ্বে মাস্টারশেফ অনুষ্ঠানগুলোর মধ্যে ‘মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়া’ জনপ্রিয়তার দিক থেকে রয়েছে তালিকার শীর্ষে। এটি প্রতিযোগিতামূলক রান্নার একটি গেম শো।

গত ৭ জুলাই অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া পর্বে চারজন প্রতিযোগী পৌঁছে যান মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়ার ফাইনাল রাউন্ডে। তাদের মধ্যে অন্যতম বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কিশোয়ার।

এই পর্বে কিশোয়ার রেঁধেছিলেন রুবি চিকেন কারি। রুবি চিকেন কারি তৈরি করার পেছনে তিনি বলেন, ‘রুবি মানেই হলো আবেগ। এটা লন্ডনে আমাকে আমার একটা সময় নিয়ে যায় যখন আমি একজন তরুণী ছিলাম, এবং সেটা ছিলো আমার সে সময় যখন আমি সত্যি অনেক বেশি আবেগি ছিলাম, আমার স্বপ্নগুলোকে অনুসরণ করছিলাম। তারপরে লন্ডন ছেড়ে আসি কারণ আমি মা হতে চলেছিলাম। আজ একজন মা আমি, আর এতদিন পরে আবার মা হয়ে সেই আবেগ দিয়ে এই খাবার তৈরি করেছি।’

খাবার পরিবেশনের পর এবারও কিশোয়ার বেশ চিন্তামগ্ন ছিলেন। কারণ এই রাউন্ডে তো তাকে জিততেই হবে। কিন্তু খাবারের স্বাদ দিয়ে এবারও কিশোয়ার বিচারকদের মন জিতেছেন। ফলে তিনি পৌঁছে গেছেন মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়ার ১৩তম আসরের ফাইনালে।

রোববার, ১১ জুলাই ২০২১, ০৪:১০

উত্তাল ভূ-মধ্যসাগরে ৪৯ বাংলাদেশি উদ্ধার

উত্তাল ভূ-মধ্যসাগরে ৪৯ বাংলাদেশি উদ্ধার

তিউনিসিয়ার নিয়ন্ত্রাধীন উত্তাল ভূমধ্যসাগরের একটি ডুবে যাওয়া নৌকা থেকে ৪৯ বাংলাদেশিকে উদ্ধার করেছে দেশটির নৌবাহিনী। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার তাদের জীবিত উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার হওয়া অভিবাসন প্রত্যাশীরা লিবিয়া থেকে ইউরোপের উদ্দেশে রওনা হয়।

তিউনিসিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম তাপ নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, তাদের বয়স আনুমানিক ১৬ থেকে ৫০।

তিউনিসিয়ান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, গত ৫ জুলাই যুদ্ধ বিধ্বস্ত লিবিয়া থেকে উত্তাল সাগর পথে ইউরোপে যাত্রা শুরু করে। যাত্রার ৩ দিন পর জারজিস উপকূল থেকে ৮০ মাইল দূরে নৌকাটি ভেঙে যায়। পরে তারা সেখানকার একটি জ্বালানি ট্যাংকারে আশ্রয় নেন।

খবর পেয়ে বাংলাদেশি অভিবাসন প্রত্যাশীদের উদ্ধার করে জারজিস শহরে নিয়ে যায় তিউনিসিয়ার নৌবাহিনী। তাদের বেন গার্ডেন শহরে স্থানান্তরিত করা হয়। তাদের নাম পরিচয় এখনও জানায়নি সংশ্লিষ্টরা।

গত মাসেই ভূমধ্যসাগর থেকে ২৬৪ বাংলাদেশিকে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। একই সঙ্গে উদ্ধার হয় মিসরের তিন নাগরিক। এর মধ্যেই নতুন করে আবারও সাগরে পথে উদ্ধার হল বাংলাদেশি অভিবাসন প্রত্যাশী। উন্নত জীবনের আশায় অবৈধভাবে প্রতি বছরেই সাগর পথে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ইউরোপে যাওয়ার চেষ্টা করে বহু মানুষ। এ যাত্রায় অনেকেই উত্তাল সাগরে ডুবে মারা যান।

রোববার, ১১ জুলাই ২০২১, ০৩:১৭

লিবিয়ায় নৌকাডুবিতে অর্ধশত মৃত্যুর শঙ্কা, ৩৩ বাংলাদেশি উদ্ধার

লিবিয়ায় নৌকাডুবিতে অর্ধশত মৃত্যুর শঙ্কা, ৩৩ বাংলাদেশি উদ্ধার

অবৈধ উপায়ে ইউরোপ যাওয়ার পথে লিবিয়া উপকূলে নৌকা ডুবির ঘটনায় মঙ্গলবার ৩৩ বাংলাদেশিকে উদ্ধার করেছে তিউনেশিয়া নৌবাহিনী। নৌকাটিতে থাকা আরও ৫০ জন নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানানো হয়।

বার্তা সংস্থা এপির বরাতে জানা যায়, উত্তর আফ্রিকার দেশ তিউনিসিয়ার উপকূলে ‘নৌকাডুবি’তে অন্তত ৫০ অভিবাসনপ্রত্যাশী নিখোঁজ হয়েছেন। জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে ৩৩ জনকে। এদের সবাই বাংলাদেশি বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের অভিবাসন সংস্থা (আইওএম)।

নিখোঁজ ব্যক্তিরা কোন দেশের তা এখনো জানা যায়নি। আইওএম’র ভূমধ্যসাগরীয় দফতরের মুখপাত্র ফ্লাভিও ডি গিয়াকোমো টুইটারে বলেছেন, জীবিত উদ্ধার হওয়া ৩৩ জনের সকলে বাংলাদেশের নাগরিক। রোববার লিবিয়ার জাওয়ারা উপকূল থেকে তারা যাত্রা করেছিলেন।

তিউনিসিয়া সরকারের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, উদ্ধারকৃতরা জানিয়েছেন নৌকাটিতে অন্তত ৯০ জন যাত্রী ছিলেন।

বুধবার, ১৯ মে ২০২১, ০৩:০০

ওমানে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল তিন বাংলাদেশির

ওমানে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল তিন বাংলাদেশির

ওমানে সড়ক দুর্ঘটনায় তিন বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। রোববার সকাল দশটায় সালালাহ থেকে মাস্কাটগামী সড়কের আল তামরিত এলাকায় দ্রুতগামী প্রাইভেটকার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৬:১৯

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ৪ বিদেশি নারী গ্রেফতার

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ৪ বিদেশি নারী গ্রেফতার

অনৈতিক কর্মকাণ্ডের দায়ে একটি হোটেল থেকে বাংলাদেশিসহ চার বিদেশি নারীকে গ্রেফতার করেছে মালয়েশিয়া পুলিশ। গ্রেফতারদের মধ্যে একজন বাংলাদেশি, দুইজন থাইল্যান্ড এবং একজন উগান্ডার।

মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) বিকেল ৫টার দিকে রাজধানী কুয়ালালামপুরের জালান নাগাসারির একটি হোটেল থেকে পুলিশ সদর দফতরের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (বিএসজে) একটি দল অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করে।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) এক বিবৃতিতে সহকারী কমিশনার মোহামাদ জয়নাল আবদুল্লাহ জানিয়েছেন, ‌‘অভিযানের সময় বাংলাদেশি নারী ওই হোটেল এলাকায় তত্ত্বাবধায়ক হিসেবে কাজ করছিলেন এবং অন্য তিন নারী অনৈতিক কাজে লিপ্ত ছিলেন। অভিযানে তিনটি মোবাইল ফোনও জব্দ করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে- ৪ এপ্রিল থেকে অনৈতিক কর্মকাণ্ডে লিপ্ত ছিলেন এই চার নারী এবং প্রতি গ্রাহকের কাছ থেকে ৫০ রিঙ্গিত করে নিতেন তারা। দণ্ডবিধি ৩৭৩ ও ৩৭২ বি এবং ইমিগ্রেশন আইনে অধিক তদন্তের জন্য তাদেরকে ১৭ এপ্রিল পর্যন্ত রিমান্ডে নেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ০২:৪৯

বিদেশে মারা গেছে ২৭০০ বাংলাদেশি
করোনা

বিদেশে মারা গেছে ২৭০০ বাংলাদেশি

মরণঘাতী করোনা মহামারি তছনছ করে দিয়েছে কর্মের সন্ধানে বিদেশ বিভুঁইয়ে বাংলাদেশিদের জীবন। গত এক বছর এক মাসে কর্ম হারিয়েছেন কয়েক লাখ প্রবাসী। করোনা আক্রান্ত হয়েছেন লক্ষাধিক। এর মধ্যে মৃত্যু ঘটেছে ২৭শ’র অধিক প্রবাসী বাংলাদেশির। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, বিদেশস্থ বাংলাদেশ মিশন এবং প্রবাসীদের কল্যাণে কাজ করা দেশের বিভিন্ন সংস্থা ও সংগঠনের কাছে থাকা রিপোর্ট পর্যালোচনায় মোটামুটিভাবে এমন পরিসংখ্যানই মিলেছে। সংশ্লিষ্টদের রিপোর্ট মতে, বিশ্বের মোট ২৩টি দেশে বাংলাদেশি মৃত্যুর তথ্য রেকর্ড হয়েছে। সেসব দেশে মারা গেছেন ২ হাজার ৭২৯ জন বাংলাদেশি। কর্মকর্তারা বলছেন, বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হওয়ার কয়েক মাসে দেশের বাইরে সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশি হতাহত হয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রে।

মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০১:৫৫

বাংলাদেশ ভ্রমণে নতুন নির্দেশনা
যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীদের হোম কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক

বাংলাদেশ ভ্রমণে নতুন নির্দেশনা

বাংলাদেশে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় প্রবাসীদের দেশে ভ্রমণের ক্ষেত্রে নতুন নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। নিউইয়র্কে বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেসা জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানকারী প্রবাসীরা দেশে গেলে বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিন করতে হবে।

শনিবার, ৩ এপ্রিল ২০২১, ০১:৪২

সর্বশেষ
জনপ্রিয়