ঢাকা, ২০২১-০৮-০৩ | ১৯ শ্রাবণ,  ১৪২৮
সর্বশেষ: 
অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় হস্তক্ষেপ না করার ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্র বিচার ১২৩ বছর আগে গ্রেপ্তার গাছ, শেকলে বন্দি আজো ফ্রান্স প্রেসিডেন্টকে চড় মারার মাশুল কতটা? কুরআনের আয়াত বাতিলে ‘ফালতু’ রিট করায় আবেদনকারীকে জরিমানা আদালতের দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদনে নতুন রেকর্ড ওয়াক্ত ও তারাবি নামাজের জামাতে সর্বোচ্চ ২০ জন বিদেশে মারা গেছে ২৭০০ বাংলাদেশি আর্থিক ক্ষতি মেনেই সাঙ্গ হলো বইমেলা সুন্দরী মডেলের অপহরণ চক্র ! মোটরসাইকেল উৎপাদনে বিপ্লবে দেশ যুক্তরাজ্যে করোনার আরও মারাত্মক ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত ৮ থেকে ১২ সপ্তাহ বিরতিতে অক্সফোর্ডের টিকা বেশি কার্যকর সবাই সপরিবারে নির্ভয়ে করোনা ভ্যাকসিন নিন: প্রধানমন্ত্রী শেষ রাতে দু’রাকাত নামাজ জীবন পরিবর্তন করে দিতে পারে নতুন করোনাভাইরাস আতঙ্কে ইউরোপ-আমেরিকার শেয়ারবাজারে ধস জুনের মধ্যে আসছে আরও ৬ কোটি করোনার টিকা বাড়িভাড়ায় নাভিশ্বাস, ফের বাড়ানোর পাঁয়তারা অমিতাভের পর অভিষেকও করোনা আক্রান্ত বিশ্ব ধরেই নিচ্ছে বাংলাদেশ জালিয়াতির দেশ : শাহরিয়ার কবির ইরাকে মর্গের পাশে রাত কাটছে বাংলাদেশিদের! বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শক বাংলাদেশের সেঁজুতি সাহা সাহেদর টাকা থাকত নাসির, ইন্ডিয়ান বাবু ও স্ত্রী সাদিয়ার কাছে ‘বাংলাদেশিদের ভোট দিন’ মানবতার সেবায় কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ অনিশ্চিতায় ফেরদৌস খন্দকার কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা থামছেই না বিক্ষোভ অব্যাহত গভর্নরের সিদ্ধান্ত মানছে না মেয়র অভিবাসীরা জিতলেন হারলেন ট্রাম্প করোনার ধাক্কা - মে মাসে রপ্তানি কমেছে ২০ হাজার কোটি টাকার পুলিশ সংস্কার বিল উঠলো মার্কিন কংগ্রেসে লাইফ সাপোর্টে থাকা নাসিমের জন্য মেডিকেল বোর্ড পুনর্গঠন আইসিইউ নিয়ে হাহাকার ঈদের ছুটিতে অনিরাপদ হয়ে উঠছে গ্রামগুলো ঘরে ঘরে ভুতুড়ে বিল, বিদ্যুৎ বিভাগ বলছে সমন্বয় হবে নিউইয়র্কে ‘ট্রাম্প ডেথ ক্লক’ নিউইয়র্কে জেবিবিএ’র পরিচালক ইকবালুর রশীদ লিটনের মৃত্যু নিজ আয়ে চলা শুরু করলো বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি কবে খুলবে নিউইয়র্ক নিউইয়র্কে এবার নতুন ভাইরাসে শিশুরা আক্রান্ত

রাস্তার নোংরা পানিতে বিজেপি বিধায়ককে হাঁটালেন বিক্ষুব্ধ গ্রামবাসী

রাস্তার নোংরা পানিতে বিজেপি বিধায়ককে হাঁটালেন বিক্ষুব্ধ গ্রামবাসী

বিজেপির (ভারতীয় জনতা পার্টি) এক বিধায়ককে রাস্তায় জমে থাকা নোংরা পানিতে খালি পায়ে হাঁটিয়েছেন বিক্ষুব্ধ গ্রামবাসী। ভারতের উত্তরপ্রদেশে চাঞ্চল্যকর এই ঘটনা ঘটেছে। রাজ্যের হাপুরে গড়মুক্তেশ্বর এলাকার ঢোলপুর গ্রামের এ ঘটনা সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। 

সোমবার, ২ আগস্ট ২০২১, ০৩:১৮

নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে তালেবানদের তুমুল যুদ্ধ চলছে
আফগানিস্তানের তিন প্রধান শহরে

নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে তালেবানদের তুমুল যুদ্ধ চলছে

আফগানিস্তানের দক্ষিণ এবং পশ্চিমাঞ্চলের তিনটি প্রধান শহরে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সশস্ত্র তালেবান যোদ্ধাদের তুমুল লড়াই চলছে। তালেবানরা কান্দাহার, হেরাত ও লস্কর গাহ শহরের অংশে ঢুকে পড়েছে। বিবিসি

দুই পক্ষের তুমুল লড়াই চলছে। আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে বিদেশি সেনাদের আফগানিস্তান ছাড়ার ঘোষণা আসার পর তালেবান ক্রমশ গ্রামীণ এলাকাগুলোর নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নিয়েছে।

তবে দেশটির প্রধান শহরগুলোর ভাগ্য নিয়ে ভীষণ উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। উভয়পক্ষ নিয়ন্ত্রণ নিজেদের দখলে নিতে মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে। তবে সরকারি সেনারা কতদিন নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখতে পারবে সেটাই বড় প্রশ্ন। স্থানীয়রাও বাড়িঘর ছেড়ে পালাচ্ছেন।

বিবিসি বলছে, তালেবান মিলিশিয়ারা ইতোমধ্যে অর্ধেক আফগানিস্তান নিজেদের দখলে নিয়েছে। এর মধ্যে প্রতিবেশী দুই দেশ পাকিস্তান ও ইরানের সঙ্গে ‌‘বর্ডার ক্রসিং’ রয়েছে। তবে তালেবান অবশ্য দেশের ৯০ শতাংশ নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার দাবি করছে।

শনিবার তুমুল লড়াই চলা কান্দাহারের একজন সংসদ সদস্য (এমপি) বিবিসিকে বলেছেন, ভয়াবহ এক ঝুঁকির মুখে আছে তার শহর। ইতোমধ্যে হাজার হাজার মানুষ বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়ে বাস্তচ্যুত হয়েছে। দরজায় কড়া নাড়ছে বড় এক মানবিক বিপর্যয়।

শহরটির চারপাশে তালেবান যোদ্ধারা অবস্থান নিয়েছে। তালেবান পূর্ণ শক্তি নিয়ে কান্দাহারে ঢোকার চেষ্টা করলে সরকারি বাহিনীর পক্ষে প্রয়োজনীয় অস্ত্র ও গোলা-বারুদের ব্যবহার করা সম্ভব হবে না। শহরটি জনবহুল হওয়ায় সরকারি সেনারা এটা করতে পারবে না।

এদিকে আফগানিস্তানের দক্ষিণাঞ্চলে অবস্থিত দেশটির অর্থনৈতিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ শহর হেরাতে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ চলছে। দেশটির সংবাদমাধ্যম টোলো নিউজের এক প্রতিবেদক বলছেন, দুই পক্ষের মধ্যে লড়াই-সংঘর্ষ আরও জোরালো হয়েছে।

আরও অন্তত পাঁচটি পৃথক স্থানে লড়াইয়ের খবর পাওয়া যাচ্ছে। এদিকে আফগান বাহিনীকে সহায়তায় এখনো তালেবান যোদ্ধাদের লক্ষ্য করে যুক্তরাষ্ট্র বিমান হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। বিমান হামলা চালিয়ে বিমানবন্দরের পাশের একটি জেলা পুনরায় দখলও করেছে তারা।

এছাড়া শুক্রবার হেরাতে জাতিসংঘের প্রধান একটি স্থাপনায় ‘সরকারবিরোধীদের’ হামলায় এক নিরাপত্তারক্ষী নিহত হয়েছেন। দেশটিতে জাতিসংঘ সহকারী আবাসিক প্রধান বলছেন, রকেটচালিত গ্রেনেড হামলা ও গুলি চালানো হয় হেরাতের জাতিসংঘ কম্পাউন্ডে।

তালেবান যোদ্ধারা হেরাত শহরের অনেকখানি ভেতরে প্রবেশের কয়েক ঘণ্টার মধ্যে এই আক্রমণ করা হয়। অবশ্য হামলায় জাতিসংঘের কোনো কর্মকর্তা হতাহত হননি। ওই সময় জাতিসংঘ দফতরটির কাছে সরকারি বাহিনীর সঙ্গে তালেবানদের তীব্র লড়াই চলছিল।

বাসিন্দারা বলছেন, শহরের কিছু অংশ এখনো নিরাপদ রয়েছে এবং কিছু মানুষ অস্ত্র হাতে তুলে নিয়ে প্রতিরোধ গড়ে তোলা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। শহর রক্ষায় সশস্ত্র প্রতিরোধ আন্দোলনের নেতৃত্ব দিচ্ছে আশির দশকে সোভিয়েত বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই করা এক কমান্ডার।

এদিকে দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশ হেলমান্দের রাজধানী লস্কর গাহ শহরের কেন্দ্র থেকে দুই কিলোমিটারের মধ্যে সরকারির বাহিনীর সেনাদের সঙ্গে তালেবান যোদ্ধাদের লড়াই চলছে। যদিও গতকাল রাতজুড়ে অভিযান চালিয়ে শহরের দখল ফিরিয়ে নিয়েছিল সরকারি বাহিনী।

আফগান বাহিনীর কমান্ডার বলছেন, তাদের শক্ত প্রতিরোধ ও পাল্টা অভিযানে তালেবানদের ব্যাপক প্রাণহানি হয়েছে। স্থানীয় সুত্রগুলো বিবিসিকে জানিয়েছে, সরকারির বাহিনীর পাল্টা আক্রমণের আগে শুক্রবার গভর্নরের কার্যালয়ের কাছে পৌঁছে গিয়েছে তালেবান।

রোববার, ১ আগস্ট ২০২১, ০৫:৩৫

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে বিপর্যস্ত মালয়েশিয়া

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে বিপর্যস্ত মালয়েশিয়া

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার অন্য অনেক দেশের মতোই করোনাভাইরাসের ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণে বিপর্যস্ত হচ্ছে মালয়েশিয়া। মহামারির সবচেয়ে ভয়াবহ ঢেউয়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে দেশটি।

বর্তমানে করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী। দেশটিতে দৈনিক ১৭ হাজারের বেশি মানুষ কোভিড শনাক্ত হচ্ছে। এ নিয়ে ১১ লাখ ১৩ হাজার ২৭২ জন মানুষের ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। কেবল ৩১ জুলাই শনিবারেই সরকারি হিসাবে মারা গেছেন ১৬৫ জন। এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট ৯ হাজার ২৪ জন মারা গেছেন।
সে দেশের বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পরীক্ষার হার অনেক কম হওয়ায় প্রকৃত আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা আরও বেশি। হাসপাতালগুলো রোগীতে উপচে পড়ছে। রোগীরা সিট না পেয়ে চেয়ারে বসে আছে। তারা অক্সিজেন সিলিন্ডার শেয়ার করে ব্যবহার করছে।

হাসপাতাল থেকে রোগীদের ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এমনকি যাদের ভর্তি করা হচ্ছে, তারা যে শয্যা পাবেন এমন নিশ্চয়তা নেই।
এ পরিস্থিতিতে গত ২৬ জুলাই দেশটির কয়েক হাজার জুনিয়র চিকিৎসক হাসপাতাল থেকে ওয়াকআউট করেন। চাকরি স্থায়ীকরণ এবং অবস্থার উন্নয়নের দাবি জানান তারা।

একদিকে হাসপাতালের মর্গে বাড়ছে লাশের দীর্ঘ সারি। একজন উচ্চপদস্থ স্বাস্থ্য আধিকারিক দাবি করেছেন, কারণ কেউ তাদের দাবি করতে আসেনি বা তারা অন্যদের মধ্যে আইনি মামলায় আবদ্ধ।
‘বিদেশী নাগরিকদের মৃতদেহগুলির ক্ষেত্রেও আমরা সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছি, কারণ সেখানে দূতাবাস রয়েছে যা পুরনো পদ্ধতির সঙ্গে লেগে থাকে যখন দেহাবশেষ দাবি করা হয়।’ ফলস্বরূপ, কিছু দূতাবাস থেকে রিলিজ লেটার পাওয়ার আগে একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য, গড়ে এক সপ্তাহ অপেক্ষা করতে হয়।

রোববার, ১ আগস্ট ২০২১, ০৫:৩২

সেনাবাহিনীকে যুদ্ধের প্রস্তুতি নিতে বললেন কিম
জাহাজ আটক করল যুক্তরাষ্ট্র,

সেনাবাহিনীকে যুদ্ধের প্রস্তুতি নিতে বললেন কিম

 আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলে উত্তর কোরিয়ার একটি তেলবাহী জাহাজ আটক করেছে যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার মার্কিন বিচার মন্ত্রণালয় উত্তর কোরিয়ার জাহাজ আটকের কথা ঘোষণা করে।

মার্কিন বিচার মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, জাহাজটি সিঙ্গাপুরের মালিকানাধীন এবং এটি তেলজাতীয় পণ্য নিয়ে উত্তর কোরিয়ায় যাচ্ছিল। উত্তর কোরিয়ার নামপো বন্দরে এই তেল খালাস করার কথা ছিল।
মার্কিন বিচার মন্ত্রণালয় তাদের বিবৃতিতে বলেছে, ২০২০ সালের মার্চ মাসে মার্কিন সরকারের নির্দেশ অনুসারে কম্বোডিয়া কর্তৃপক্ষ জাহাজটি আটক করে এবং এতদিন ধরে বিষয়টি গোপন রাখা হয়েছে। গতকাল থেকে এ বিষয়ে মার্কিন ফেডারেল আদালতে বিচার শুরু হয়েছে এবং তখনই বিষয়টি জনসমক্ষে এনেছে মার্কিন কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন দেশের সামরিক বাহিনীর কর্মকর্তাদের যুদ্ধ-প্রস্তুতি জোরদার করার নির্দেশ দিয়েছেন। আগামী মাসে দক্ষিণ কোরিয়া এবং আমেরিকা যৌথ সামরিক মহড়া শুরু করবে। তার আগে কিম জং উন নিজের দেশের সামরিক বাহিনীকে যুদ্ধের প্রস্তুতি নেয়ার নির্দেশ দিলেন। তবে এই নির্দেশের সঙ্গে জাহাজ আটকের ঘটনার কোনো সম্পর্ক আছে কিনা তা পরিষ্কার নয়।

উত্তর কোরিয়া পরমাণু ও ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে যার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে আমেরিকা। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে ব্যবহার করে দেশটি উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে সক্ষম হয়েছে। তবে উত্তর কোরিয়া তার পরমাণু ও ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি চালিয়ে নেয়ার অবস্থানে অটল রয়েছে।

রোববার, ১ আগস্ট ২০২১, ০৪:০২

বিমানবন্দরেই করোনার বিশাল হাসপাতাল

বিমানবন্দরেই করোনার বিশাল হাসপাতাল

বিশ্বজুড়ে নতুন করে তাণ্ডব চালাচ্ছে করোনাভাইরাস। প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। এমন পরিস্থিতিতে থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককের ডন মুয়াং বিমানবন্দরের একটি কার্গো ওয়্যারহাউজকে করোনা হাসপাতালে রূপ দেওয়া হয়েছে। এক হাজার ৮০০ শয্যার এই হাসপাতালে তুলনামুলকভাবে কম তীব্র লক্ষণের রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হবে।

শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ০৬:০১

আন্দোলনের মুখে তিউনিসিয়ার প্রধানমন্ত্রী অপসারিত

আন্দোলনের মুখে তিউনিসিয়ার প্রধানমন্ত্রী অপসারিত

 করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ব্যর্থতা ও ভঙ্গুর অর্থনীতির জন্য সরকারকে দায়ী করে চলমান তীব্র আন্দোলনের মুখে পার্লামেন্ট স্থগিত ঘোষণা করেছেন তিউনিসিয়ার প্রেসিডেন্ট কাইস সাইয়েদ। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী হিচাম মেচিচিকে অপসারণ করা হয়েছে।

রবিবার নিজ বাসভবনে জরুরি বৈঠক শেষে এক বিবৃতিতে এ ঘোষণা দেন প্রেসিডেন্ট কাইস সাইয়েদ। নতুন ঘোষণায় যাতে করে বিক্ষোভ দানা না বাধে সেজন্য হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন তিউনিসিয়ান প্রেসিডেন্ট।
এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, কেউ যদি হাতে অস্ত্র তুলে নেয় এবং গুলি নিক্ষেপ করে আমি তাদেরকে সতর্ক করে দিচ্ছি সশস্ত্র বাহিনীও পাল্টা জবাব দেবে গুলি দিয়ে।

পার্লামেন্ট ভেঙে দেয়া ও আগাম নির্বাচনের দাবিতে রবিবারও রাজধানী তিউনিসসহ বেশ কিছু শহরে বিক্ষোভ করেন হাজার হাজার মানুষ। তারা সরকারের উদ্দেশে ‘চলে যাও, চলে যাও’ বলে স্লোগান দেন।

সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ০৬:২৮

ভূমধ্যসাগরীয় উপকূলে ৩৬৮ অবৈধ অভিবাসী উদ্ধার

ভূমধ্যসাগরীয় উপকূলে ৩৬৮ অবৈধ অভিবাসী উদ্ধার

 মরোক্কো বার্তা সংস্থা এমএপি জানিয়েছে, ভূমধ্যসাগরীয় উপকূলবর্তী অঞ্চলে তিন শিশু এবং সাত নারীসহ ৩৬৮ জন অবৈধ অভিবাসিদের উদ্ধার করেছে দেশটির কোস্ট গার্ড। আনাদোলু এজেন্সি

উদ্ধারকৃতদের মধ্যে বেশিরভাগই আফ্রিকার সাব-সাহরান অঞ্চলের দেশগুলোর নাগরিক। তাদের গত ২০ থেকে ২৩ জুলাই তারিখের মধ্যে আফ্রিকান বিভিন্ন অঞ্চল থেকে নিয়ে ইউরোপ পাচারের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল।

এরই ধারাবাহিকতায় গত শুক্র ও শনিবার অবৈধভাবে তিউনিসিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে ১৬টি চেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী। অভিযানে ১৫৫ জনকে উদ্ধার করা হয়।

তিউনিসিয়ার ন্যাশনাল গার্ডের মুখপাত্র হুস্সাম এদ্দিন আল-জাবালি বলেন, ন্যাশনাল গার্ডের প্রচেষ্টায় তাদের থামানো গেছে। এদের মধ্যে ১০ জন পলাতক আসামি রয়েছে ।

প্রতিবছর উন্নত জীবনের আশায় অবৈধ পথে ইউরোপ পাড়ি দিতে চায় আফ্রিকাসহ এশিয়া উপমহাদেশের হাজার হাজার নাগরিক। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ভূমধ্যসাগরে কোস্ট গার্ডের কড়া নজরদারি ফাঁকি দিয়ে ইউরোপ পৌছানো সম্ভব হয়না।

রোববার, ২৫ জুলাই ২০২১, ০৫:৪৪

প্রগতির পথে সৌদি আরব
পবিত্র হজ পালিত

প্রগতির পথে সৌদি আরব

প্রগতির পথে হাঁটছে মুসলিম বিশ্বের অন্যতম প্রধান দেশ সৌদি আরব। করোনা মহামারির কারণে পর পর দুই বছর সীমিত পরিসরে শেষ হয়েছে পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা। হজ শেষে এবার ধর্ম নিরপেক্ষ পর্যটন চালু করার পরিকল্পনা নিয়েছে দেশটি।
তেলের ওপর থেকে অর্থনৈতিক নির্ভরশীলতা কমাতে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান এই পরিকল্পনা নিয়েছেন। বিদেশি, বিশেষ করে পশ্চিমা পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে বড় বড় পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে রিয়াদ। ২০৩০ সালের মধ্যে এ পরিকল্পনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ০৪:২২

ভূমধ্যসাগরে ডুবে ৬ মাসে ১১৪৬ অভিবাসীর মৃত্যু
সংখ্যা দ্বিগুন বৃদ্ধি

ভূমধ্যসাগরে ডুবে ৬ মাসে ১১৪৬ অভিবাসীর মৃত্যু

চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসে ইউরোপে আসার পথে ভূমধ্যসাগরে ডুবে প্রাণ হারিয়েছে ১ হাজার ১৪৬ জন। এ সংখ্যা গত বছরের এই সময়ের তুলনায় দ্বিগুন। ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর মাইগ্রেশন (আইওএম) গত বুধবার এ তথ্য প্রকাশ করে জানিয়েছে, গত বছর জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত ইউরোপে পাড়ি দেয়ার পথে ভূমধ্যসাগরে নৌকা ডুবে মৃত্যুর সংখ্যা ছিল ৫১৩। এর আগের ২০১৯ সালে এ সংখ্যা ছিল ৬৭৪ জন।

শনিবার, ১৭ জুলাই ২০২১, ০৪:০৯

পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণের সময় ভেঙে পড়লো ভারতের ব্রহ্মস ক্ষেপণাস্ত্র

পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণের সময় ভেঙে পড়লো ভারতের ব্রহ্মস ক্ষেপণাস্ত্র

পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণের সময় ভেঙে পড়লো ভারতের অত্যন্ত শক্তিশালী ‘ব্রহ্মস’ ক্ষেপণাস্ত্র। সোমবার উড়িষ্যার বালেশ্বরের সমুদ্র উপকূল থেকে পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণের পরপরই ভেঙে পড়ে ভারতের এই সুপারসনিক ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

ব্রহ্মসের সবচেয়ে বেশি পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রটিরই পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ চলছিল। এটি ৪৫০ কিলোমিটার দূরের যে কোনও লক্ষ্যবস্তুর ওপর আঘাত হানার ক্ষমতাসম্পন্ন।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র বলছে, সোমবার বালেশ্বরের সমুদ্র উপকূল থেকে উৎক্ষপণের পরপরই ভেঙে পড়েছে ব্রহ্মস। কেন এই দুর্ঘটনা তা এখনও জানা যায়নি। কারণ অনুসন্ধানের জন্য ব্রহ্মস অ্যারোস্পেস কর্পোরেশন এবং প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা (ডিআরডিও)-র বিজ্ঞানীদের নিয়ে একটি বিশেষজ্ঞ দল গঠন করা হয়েছে। ব্রহ্মসের ভেঙে পড়ার কারণ খুঁজে বের করবেন তারা। সূত্র: আনন্দবাজার।

বুধবার, ১৪ জুলাই ২০২১, ০৩:০৩

মার্কিন যুদ্ধজাহাজকে ধাওয়া করে তাড়ানো নিয়ে যা জানাল চীন

মার্কিন যুদ্ধজাহাজকে ধাওয়া করে তাড়ানো নিয়ে যা জানাল চীন

 যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যকার সম্পর্ক ক্রমশই উত্তপ্ত হয়ে উঠছে। এমন পরিস্থিতিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি যুদ্ধজাহাজকে ধাওয়া করে তাড়িয়ে দিয়েছে চীনের সামরিক বাহিনী। যুদ্ধজাহাজটি দক্ষিণ চীন সাগরে পার্সেল দ্বীপপুঞ্জের কাছে চীনের সীমানায় অবৈধভাবে প্রবেশ করেছিল বলে জানিয়েছে শি জিনপিংয়ের সামরিক বাহিনী।

সোমবার এ ঘটনা ঘটে বলে খবর প্রকাশ করেছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। এ ব্যাপারে চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির (পিএলএ) সাউদার্ন থিয়েটার কমান্ড এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, চীনা যুদ্ধজাহাজ 'ইউএসএস বেনফোল্ড' পার্সেল দীপপুঞ্জের পানি সীমায় অবৈধভাবে প্রবেশ করেছিল। সেখানে প্রবেশের জন্য চীন সরকারের কোনো অনুমতি নেয়নি মার্কিন জাহাজ। কারণ চীনের পানিসীমা লঙ্ঘন করেছে ওই মার্কিন যুদ্ধজাহাজ।
একইসঙ্গে উত্তেজনা সৃষ্টিকারী এমন কর্মকাণ্ড দ্রুত সময়ের মধ্যে বন্ধ করতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে চীন। দেশটি দাবি করেছে, ‘দক্ষিণ চীন সাগরে পার্সেল দ্বীপপুঞ্জের কাছে মার্কিন যুদ্ধজাহাজের অবৈধ প্রবেশ করে আমেরিকা সরাসরি তাদের সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘন করেছে।’ যদিও মার্কিন নৌবাহিনীর সপ্তম বহর চীনের এমন দাবি প্রত্যাখ্যান করেছে।

মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই ২০২১, ০৭:১৩

জাতিসংঘে প্রথমবারের মতো রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে প্রস্তাব গৃহীত

জাতিসংঘে প্রথমবারের মতো রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে প্রস্তাব গৃহীত

বাংলাদেশের সীমানা উন্মুক্ত করে দেন প্রধানমন্ত্রী। তবে অত্যন্ত পরিতাপের বিষয়, গত চার বছরেও মিয়ানমারের অসহযোগিতা ও অনীহার কারণে এখন পর্যন্ত রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন করা সম্ভব হয়নি।

রাষ্ট্রদূত মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, জাতিসংঘের আলোচ্যসূচিতে রোহিঙ্গা সংকট সমাধান ও রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার সুরক্ষায় বিষয়টি সক্রিয় আলোচনায় রাখা প্রয়োজন।

কেবল মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক পরিস্থিতির কারণে বিশ্ব সম্প্রদায়ের রোহিঙ্গাদের প্রতি মনোযোগ হারোনো উচিত হবে না বলেও মন্তব্য করেন রাষ্ট্রদূত। জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের পূর্ণ নিরাপত্তা ও সম্মানের সঙ্গে তাদের নিজ ভূমে পাঠানোর জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে দৃশ্যমান ও কার্যকর ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান তিনি।

কী আছে রেজুলেশনে

জেনেভা দূতাবাস থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, প্রস্তাবটিতে বিতাড়িত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে আশ্রয় প্রদান করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের ভূয়সী প্রশংসা করা হয়। এছাড়া, তাদের মিয়ানমারে ফেরত যাওয়া পর্যন্ত এ গুরুভার বহনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে মানবিক সহায়তা প্রদান অব্যাহত রাখার আহ্বান জানানো হয়।

গৃহীত এ প্রস্তাবে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে যৌন অপরাধসহ সব প্রকার নির্যাতন, মানবতাবিরোধী অপরাধ ও যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের জাতীয়, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক বিচার ব্যবস্থার আওতায় আনা এবং তদন্ত প্রক্রিয়া জোরদার করার প্রতি গুরুত্বারোপ করা হয়। এ প্রেক্ষিতে, আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত এবং আন্তর্জাতিক আদালতে চলমান বিচার প্রক্রিয়াকেও সমর্থন জানানো হয়। এছাড়া, প্রস্তাবটিতে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে চলমান সব প্রচেষ্টাকে স্বাগত জানিয়ে এ রূপ পরিস্থিতিতে করণীয় নির্ধারণে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের এখতিয়ারের কথা পুনর্ব্যক্ত করা হয়।

প্রস্তাবে জাতিসংঘ মানবাধিকার হাইকমিশনারকে মিয়ানমার বিষয়ক ‘নিরপেক্ষ আন্তর্জাতিক তথ্যানুসন্ধানী মিশন’ এর সুপারিশসমূহ বাস্তবায়নের অগ্রগতির ওপর মানবাধিকার পরিষদ এবং জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে প্রতিবেদন উপস্থাপনের অনুরোধ জানানো হয়। এছাড়া, এ প্রস্তাব গ্রহণের মধ্য দিয়ে ‘রোহিঙ্গা মুসলিম ও অন্যান্য সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে মানবাধিকার লঙ্ঘনের মূল কারণ’ বিষয়ে মানবাধিকার পরিষদে একটি প্যানেল আলোচনা অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত হয়।

 

মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই ২০২১, ০৪:৫২

দুবাই বন্দরে জাহাজে ভয়াবহ বিস্ফোরণে আগুন (ভিডিও)

দুবাই বন্দরে জাহাজে ভয়াবহ বিস্ফোরণে আগুন (ভিডিও)

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই বন্দরে নোঙ্গর করা কন্টেইনারবাহী একটি জাহাজে ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটেছে। বুধবার রাতের ওই বিস্ফোরণের ফলে জাহাজটিতে আগুন ধরে যায়।

বৃহস্পতিবার, ৮ জুলাই ২০২১, ০৭:৪৪

পুলিশে ধরা দিলেন জুমা, আফ্রিকা দেখল নতুন ইতিহাস

পুলিশে ধরা দিলেন জুমা, আফ্রিকা দেখল নতুন ইতিহাস

অবশেষে কারাদণ্ড ভোগ করতে পুলিশে আত্মসমর্পণ করেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমা (৭৯)। জুমা ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে দেশটির জনগণ নতুন এক ইতিহাসের সাক্ষী হলো। কারণ এর আগে দেশটি কোনো সাবেক প্রেসিডেন্টের কারাভোগ দেখেনি।

বৃহস্পতিবার, ৮ জুলাই ২০২১, ০৭:৩৪

অনুমতি ছাড়া মসজিদুল হারামে প্রবেশে জরিমানা

অনুমতি ছাড়া মসজিদুল হারামে প্রবেশে জরিমানা

 করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও হজ্জ্ব ব্যবস্থাপনাকে সামনে রেখে মসজিদুল হারাম এলাকায় অনুমতি ছাড়া প্রবেশ করলে ১০ হাজার রিয়াল জরিমানা গুণতে হবে।

রবিবার সৌদি আরবের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানিয়েছে।
আগামীকাল ৫ জুলাই হতে ২৩ জুলাই পর্যন্ত অনুমতি ছাড়া মসজিদুল হারাম ও তার আশেপাশের এলাকা, আরাফাহ, মিনা, মুজদালিফায় প্রবেশের চেষ্টা করলে ১০ হাজার রিয়াল জরিমানা করা হবে। এসময় সেখানে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মোতায়েন থাকবে। অনুমতি ছাড়া মসজিদুল হারামে প্রবেশে বিরত থাকার অনুরোধ করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।

সোমবার, ৫ জুলাই ২০২১, ০৫:২৪

পুরুষদের দাড়ি রাখতেই হবে, একা বাড়ির বাইরে যেতে পারবেন না নারীরা
দখলকৃত অঞ্চলে নতুন আইন তালেবানের

পুরুষদের দাড়ি রাখতেই হবে, একা বাড়ির বাইরে যেতে পারবেন না নারীরা

 উত্তর-পূর্ব আফগানিস্তানে তাকহার প্রদেশে দখল করা অঞ্চলগুলোতে নতুন আইন চালু করেছে তালেবান। ওই অঞ্চলে আফগান পুরুষদের দাড়ি রাখতে, নারীদের পুরুষ অভিভাবক ব্যতীত বাড়ির বাইরে যাওয়ায় নিষেধাজ্ঞা এবং বিয়ের দেনমোহর ও যৌতুক সংক্রান্ত বিধিনিষেধ জারি করেছে তালেবান।

এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে তালেবান এসব নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে বলে দেশটির সংবাদমাধ্যম আরিয়ানা নিউজের খবরে এ তথ্য উঠে এসেছে।
খবরে বলা হয়েছে, উত্তর-পূর্ব প্রদেশে দখল করা অঞ্চলগুলোতে গত বৃহস্পতিবার থেকে নতুন আইন চালু করেছে তালেবান। আফগান পুরুষদের দাড়ি রাখতে, নারীদের পুরুষ অভিভাবক ব্যতীত বাড়ির বাইরে যাওয়ায় নিষেধাজ্ঞা এবং বিয়ের দেনমোহর ও যৌতুক সংক্রান্ত বিধিনিষেধ জারি করা হয়েছে।

আফগানিস্তানে ৯০ দশকের তালেবান শাসন ব্যবস্থার কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে। সে সময় চুরির জন্য হাত কেটে দেওয়া হতো, পাথর নিক্ষেপ করে মানুষ হত্যা করা হতো, এমনকি নারীদের ওপর ছিল নানা রকম বিধিনিষেধ।

আফগানিস্তানে মার্কিন সেনা মোতায়েন হওয়ার আগে এসব আইন জারি করেছিল তালেবান। তখন দেশটিতে নারীদের চাকরি তো দূরের কথা, কোনো পুরুষ আত্মীয় ছাড়া বাইরে বের হওয়াও নিষেধ ছিল। এমনকি এই নিয়ম না মানলে কঠোর শাস্তিও ভোগ করতে হতো।

যুদ্ধ বিধ্বস্ত আফগানিস্তান থেকে ধীরে ধীরে সরে যাচ্ছে মার্কিন সেনারা। এরই মধ্যে ফের সক্রিয় হতে শুরু করেছে তালেবান। এরই মধ্যে দেশটির ৪২১টি জেলার মধ্যে ১৪০টি জেলা দখলে নিয়েছে তালেবান।

গভর্নর আবদুল্লাহ কারলুক বলেন, তালেবানরা তাদের দখলকৃত এলাকায় বহু সরকারি স্থাপনা ধ্বংস করে ফেলেছে। তালেবান অবশ্য এসব অভিযোগ অস্বীকার করে জানিয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করা হচ্ছে।

সোমবার, ৫ জুলাই ২০২১, ০৫:২১

কানাডায় তীব্র দাবদাহ, বাড়ছে মৃতের সংখ্যা

কানাডায় তীব্র দাবদাহ, বাড়ছে মৃতের সংখ্যা

 দাবদাহে বিপর্যস্ত কানাডার স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। তীব্র দাবদাহে কানাডার ব্রিটিশ কলম্বিয়া প্রদেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে সহস্রাধিক। কর্তৃপক্ষ বলেছে, অতিরিক্ত তাপমাত্রায় অস্বাভাবিক মৃত্যুর হার বেড়ে গেছে। রেকর্ড ভাঙা তাপমাত্রায় ভোগান্তিতে সাধারণ মানুষ।

চলতি সপ্তাহে দেশটিতে ৪৬ দশমিক ৬ ডিগ্রি থেকে ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। বিশেষ করে মধ্য কানাডার ব্রিটিশ কলম্বিয়ার পরিস্থিতি নাজুক। সেখানকার প্রধান লিসা লাপয়েন্তে গত শুক্রবার দেশটির বাসিন্দাদের বলেন, ‘অনুগ্রহ করে পরিবার, বন্ধু-বান্ধব, প্রতিবেশী এবং বিশেষ করে যারা একা থাকেন তাদের খোঁজ নিন’।
এদিকে দাবদাহের মধ্যেই যুক্ত হয়েছে দাবানল। এতে ঝুঁকিতে পড়েছেন বহু মানুষ। কলম্বিয়ার ফায়ার সার্ভিস একাধিক দাবানলের কথা জানিয়েছে। এরই মধ্যে পুড়ে গেছে অনেক জায়গায়। সেখানকার দমকল বাহিনীর মুখপাত্র এরিক বার্গ জানিয়েছেন, ‘দাবানল নতুন নতুন জায়গায় দেখা দিচ্ছে’। ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা থেকে প্রায় ১ হাজার মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

‘হিট ডোম’-এর প্রভাবে কানাডার ইতিহাসে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। বায়ুমন্ডলে সাগরের উষ্ণ বায়ু আটকে পড়লে যে উচ্চচাপ তৈরি হয় তাকে হিট  ডোম বলা হয়। মারাত্মক এই তাপদাহের কারণে  সেখানকার শত শত মানুষের মৃত্যুর কথা জানিয়েছেন কর্মকর্তারা। এ অবস্থায় নাগরিকদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দিচ্ছে সরকার। প্রাপ্ত খবরে আরও জানা গেছে, পশ্চিমাঞ্চলে তীব্র দাবদাহ এবং বজ্রপাত থেকে দাবানল ছড়িয়ে পড়েছে। ১৩০টির বেশি ছোটবড় দাবানলের কারণে লোকজনের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। দাবানল নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ব্রিটিশ, কলম্বিয়া প্রদেশে কমপক্ষে শতাধিক দাবানল সক্রিয় রয়েছে। এর মধ্যে ৭৭টি সৃষ্টি হয়েছে গত দুদিনে। এগুলোর বেশির ভাগই বজ্রপাত থেকে সৃষ্টি। দাবানলের আগুন নেভাতে স্থানীয় দমকল কর্মীদের ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ব্রিটিশ কলম্বিয়ার প্রায় ১ হাজার বাসিন্দা দাবানল  থেকে বাঁচতে ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে। এখনো অনেকেই নিখোঁজ রয়েছে।

তাপমাত্রা কমার লক্ষণ না থাকায় সাধারণ মানুষকে সাবধানে চলাফেরার নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। বিশেষ করে পরিমাণ মতো পানি পানের কথা বলছেন চিকিৎসকরা। একান্ত প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে না বের হওয়ারও পরামর্শ দিচ্ছেন তারা।

দায়িত্বরত এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, সবাই প্রতিবেশীদের দিকে খেয়াল রাখুন, পরিবারের সদস্যদের খেয়াল রাখুন। বয়োজ্যেষ্ঠদের যাদের চেনেন, তাদের খোঁজ নিন। যারা শারীরিকভাবে দুর্বল, তাদের জন্য এই আবহাওয়া ভয়ানক। বিশেষ করে বয়স্কদের ক্ষেত্রে।

রোববার, ৪ জুলাই ২০২১, ০৭:৫০

বিশ্বের ৭৪ দেশে পৌঁছেছে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট

বিশ্বের ৭৪ দেশে পৌঁছেছে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট

করোনার সবচেয়ে ভয়ানক ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট প্রথম শনাক্ত হয়েছে ভারতে। ভারতে প্রথম শনাক্ত হওয়ার অনেকে এটিকে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট বলেন। তারপর এটি ছড়াতে শুরু করে বিশ্বের অন্যান্য দেশে। এখন পর্যন্ত পৃথিবীর ৭৪টি দেশে শনাক্ত হয়েছে এ ভ্যারিয়েন্ট।

ডেল্ট ভ্যারিয়েন্টে ভারতের পর সবচেয়ে নাজুক পরিস্থিতিতে পড়েছে যুক্তরাজ্য। দেশটিতে নতুন শনাক্ত হওয়াদের মধ্যে ৯০ শতাংশের শরীরে মিলছে এ ভ্যারিয়েন্ট।

মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ০৩:৫৮

ফিলিস্তিনি বেদুইনদের ঘরবাড়ি ধ্বংস করল ইসরায়েল

ফিলিস্তিনি বেদুইনদের ঘরবাড়ি ধ্বংস করল ইসরায়েল

 টানা ১১ দিন গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের বর্বর হামলায় নারী-শিশুসহ আড়াই শতাধিক ফিলিস্তিনির প্রাণহানি হয়েছে। এরপর হামাসের চাপে যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হলেও নিরীহ ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলি বর্বরতা অব্যাহত রয়েছে। জানা গেছে, পশ্চিম তীরে যাযাবর বেদুইন জনগোষ্ঠির অন্তর্ভুক্ত ফিলিস্তিনি পরিবারগুলোর তাবু ধ্বংস করে দিয়েছে ইসরায়েল বাহিনী। খবর আনাদোলু এজেন্সির।

গণমাধ্যমটি বলছে, গত রবিবার অধিকৃত পশ্চিম তীরের রামাল্লার উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত তাইব গ্রামের কাছে বেদুইনদের সব ঘরবাড়ি ধ্বংস করার এ ঘটনা ঘটে। অনেক আগে থেকেই এসব ফিলিস্তিনির বাড়িঘর ধ্বংস করার পরিকল্পনা ছিলো। ইসরায়েল চাইছে বেদুইন সম্প্রদায়ের ওই এলাকাটিকে খালি করে ইহুদি বসতি নির্মাণ করে দখলদার কোম্পানিগুলোকে সুবিধা দিতে।

মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ০৩:৪৮

পুরুষ অভিভাবক ছাড়া হজের অনুমতি পেলেন সৌদি নারীরা

পুরুষ অভিভাবক ছাড়া হজের অনুমতি পেলেন সৌদি নারীরা

এখন থেকে পুরুষ অভিভাবক বা মাহরাম ছাড়াই হজ করতে পারবেন সৌদি আরবের নারীরা। এর জন্য তাদের নিবন্ধিত হওয়ার অনুমতি দিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে দুবাইভিত্তিক সংবাদমাধ্যম গালফ নিউজ।

সৌদির হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়ের তথ্যমতে, এখন থেকে অন্য নারীদের সঙ্গে দলবদ্ধভাবে হজ করতে পারবেন নিবন্ধিত সৌদি নারীরা।

মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ০৩:৩৯

ইরানের পরমাণু আর্কাইভ থেকে নথি চুরি করেছিল মোসাদ

ইরানের পরমাণু আর্কাইভ থেকে নথি চুরি করেছিল মোসাদ

ইসরায়েলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদ প্রধানের দায়িত্ব থেকে সদ্য বিদায় নেয়া ইয়োসি কোহেন সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে ইরানের পরমাণু আর্কাইভ থেকে কীভাবে নথিপত্র চুরি করা তার বিস্তারিত তুলে ধরেছেন।

ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসির বরাতে জানা যায়, ইয়োসি কোহেন জানান, ২০১৮ সালে অভিযান চালিয়ে ঐ আর্কাইভ থেকে হাজার হাজার নথিপত্র চুরি করে ইসরায়েল নিয়ে আসা হয়।

ইরানের নাতাঞ্জ পারমাণবিক কেন্দ্রে নাশকতা এবং ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানীর হত্যার পেছনে ইসরায়েলি সম্পৃক্ততা রয়েছে বলেও তিনি ইঙ্গিত দিয়েছেন।

২০১৮ সালে একটি সংবাদ সম্মেলনে চুরি যাওয়া এসব নথির কথা উল্লেখ করে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু বলেছিলেন, ইরান একবার গোপনে পরমাণু অস্ত্র তৈরির চেষ্টা করেছে এবং অস্ত্র তৈরির প্রযুক্তি তাদের আছে। কিন্তু ইরান বরাবরই সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

নাতাঞ্জ পারমাণবিক স্থাপনাটি ইরানের রাজধানী তেহরানের দক্ষিণে মরুভূমি এলাকায় অবস্থিত। তেল আবিবের একটি কমান্ড সেন্টার থেকে ঐ অভিযানের নজরদারি করেন মোসাদ প্রধান। এজেন্টরা ওয়্যারহাউজের ভেতরে প্রবেশ করে ৩০টির বেশি সিন্দুক ভাঙ্গে।

২০২০ সালের জুলাই মাসের ঐ নাশকতার ঘটনায় নাতাঞ্জ পারমাণবিক কেন্দ্রের ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ অংশে আগুন লাগে। এই বছরের এপ্রিল মাসে নতুন সরঞ্জাম সংযোজনের পরদিনই কর্মকর্তারা জানান, সেখানে আবার নাশকতার ঘটনা ঘটেছে এবং বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

রোববার, ১৩ জুন ২০২১, ০৩:২৫

চীনকে মোকাবিলা করতে পশ্চিমা দেশগুলোর প্রতি বাইডেনের আহ্বান

চীনকে মোকাবিলা করতে পশ্চিমা দেশগুলোর প্রতি বাইডেনের আহ্বান

 বিশ্ব অর্থনীতি ও সামরিক উভয় ক্ষেত্রে গত কয়েক বছর ধরেই আগ্রাসী গতিতে এগিয়ে চলছে চীন। চীনকে মোকাবিলা করতে পশ্চিমা দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। যুক্তরাজ্যের কর্নওয়ালে চলমান জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনের দ্বিতীয় দিন শনিবার জো বাইডেন এ আহ্বান জানান।

সূত্রের বরাত দিয়ে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সম্মেলনে উন্নয়নশীল দেশগুলোর অবকাঠামোয় বেইজিংয়ের বিনিয়োগকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে নতুন জোট গঠন করার জন্য আহ্বান করেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন।
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্ররা জিনজিয়াং প্রদেশে জোরপূর্বক শ্রম এবং অন্যান্য মানবাধিকার লঙ্ঘনের দায়ে চীনকে অভিযুক্ত করেছে। নাম প্রকাশে ‍অনিচ্ছুক মার্কিন প্রশাসনের এক কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, চীনে জোর করে শ্রম দিতে বাধ্য করার বিরুদ্ধে শক্ত ব্যবস্থা গ্রহণে যুক্তরাষ্ট্র জি৭ ভুক্ত বাকি দেশগুলোকে রাজি করানোর চেষ্টা করছে।

শনিবার সামিটের অন্যতম ইস্যু বিশ্বব্যাপী ক্রমবর্ধমান চীনের প্রভাব মোকাবিলায় চ্যালেঞ্জ। বিশেষ করে বেইজিংয়ের বেল্ট অ্যান্ড রোড প্রকল্প, যার মাধ্যমে উন্নয়নশীল দেশগুলোর অবকাঠামোয় বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করতে পারে চীন। এর বিরুদ্ধে পশ্চিমা দেশগুলোকে অবশ্যই কাউন্টার করতে হবে।

২০১৩ সালে চীনের প্রেসিডেন্ট শি তার লাখো কোটি ডলারের অবকাঠামো প্রকল্প বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভ (বিআরআই) ঘোষণা করেন। এটি একটি উন্নয়ন এবং বিনিয়োগ উদ্যোগ যেটা এশিয়া থেকে শুরু করে ইউরোপ ছাড়িয়ে আরো বহুদূর পর্যন্ত বিস্তৃত। বিআরআই প্রকল্পের আওতায় চীন নানা দেশের রেলপথ, বন্দর, মহাসড়ক এবং অন্যান্য অবকাঠামোগত উন্নয়ন কাজে সহায়তা করবে। বিশ্বের ১০০টির বেশি দেশ চীনের এই সহায়তা প্রকল্পে সই করেছে।

এদিকে চীনের সঙ্গে আমেরিকার সম্পর্ক দিনকে দিন জটিল হচ্ছে। সম্প্রতি চীনের ৫৯টি সংস্থার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করে জো বাইডেনের প্রশাসন। যার মধ্যে কমিউনিকেশন জায়ান্ট হুয়াওয়েও আছে। তবে এই সিদ্ধান্তে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে চীন। সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ৩১টি চীনা সংস্থার বিরুদ্ধে আগেই নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিলেন। মার্কিন প্রশাসন জানিয়েছিল, মার্কিন সামরিক বাহিনীর সঙ্গে আলোচনার সাপেক্ষেই ওই সংস্থাগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল। সম্প্রতি জো বাইডেন প্রশাসন সেই তালিকা নিয়েই ফের আলোচনায় বসেছিল। সেখানে একদিকে বেশ কয়েকটি সংস্থার ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে, আবার নতুন করে কয়েকটি সংস্থার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। সব মিলিয়ে ৫৯টি সংস্থার ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। মূলত চীনা সেনাবাহিনীর সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে এমন অনেক চীনা প্রযুক্তি ও প্রতিরক্ষা প্রতিষ্ঠানে মার্কিন নাগরিকদের বিনিয়োগে নিষেধাজ্ঞা আরোপ হচ্ছে। ২ আগস্ট থেকে নতুন এ নির্বাহী আদেশ কার্যকর হবে। হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, যে সংস্থাগুলোর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে, তারা সবাই কোনো না কোনোভাবে মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছে। বিশেষত, উইঘুর মুসলিমদের সঙ্গে অন্যায় আচরণ করেছে। ওই সংস্থাগুলো যুক্তরাষ্ট্রে কোনো রকম ব্যবসা করতে পারবে না।

ট্রাম্প আমলে চীনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক একেবারে তলানিতে গিয়ে ঠেকেছিল। ডোনাল্ড ট্রাম্প করোনা থেকে শুরু করে উইঘুর মুসলিমদের সঙ্গে চীনের ব্যবহার এবং একাধিক বিষয় নিয়ে চীনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছিলেন। অনেকেই মনে করেছিলেন, জো বাইডেন ক্ষমতায় এসে চীনের সঙ্গে সম্পর্ক খানিকটা উন্নত করবেন। কিন্তু বাস্তবে বাইডেন প্রশাসন সে পথে হাঁটছে না। চীনের ৫৯টি সংস্থার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি সে কথাই স্পষ্ট করল।

চীন জানিয়েছে, সম্পূর্ণ ভুল তথ্যের ওপর ভিত্তি করে আমেরিকা ওই সংস্থাগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে। এর ফলে চীনকেও কঠিন পদক্ষেপের কথা ভাবতে হবে।  চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন ইঙ্গিত দিয়েছেন, নতুন করে আরোপিত নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়ায় পাল্টা পদক্ষেপ নিতে পারেন তারা। তিনি বলেন, ‘চীনের প্রতিষ্ঠানের অধিকার আদায়, বৈধ স্বার্থ রক্ষার উদ্দেশ্যে ও আইন অনুযায়ী তাদের সহায়তার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে চীন।’

রোববার, ১৩ জুন ২০২১, ০৩:২২

মিয়ানমারে বিক্ষোভকারীদের হামলায় ২৭ সেনা নিহত

মিয়ানমারে বিক্ষোভকারীদের হামলায় ২৭ সেনা নিহত

 বন্দুকের ভয়কে পাত্তা না দিয়ে মিয়ানমারে গণতন্ত্রকামীদের আন্দোলন আরও বেগবান হচ্ছে। যদিও বিক্ষোভকারীদের উপর গুলি ও ধরপাকড় অব্যাহত রেখেছে সেনাসরকার। এরই মধ্যে দেশটির চিন রাজ্যের বিদ্রোহী গোষ্ঠী দাবি করেছে, মিয়ানমারের ২৭ সেনা নিহত হয়েছে তাদের অতর্কিত আক্রমণে।

বৃহস্পতিবার থান্টল্যাং এবং হাকহা শহর সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মিয়ানমারের নিহত ২৭ সেনার মধ্যে একজন ক্যাপ্টেন র‌্যাঙ্কের কর্মকর্তা রয়েছে বলেও বিদ্রোহী গোষ্ঠীর পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর।
স্থানীয় গণমাধ্যম ‘মিয়ানমারের নাও’ চিনল্যান্ড ডিফেন্স ফোর্সের (সিডিএফ) এর একজন মুখপাত্রের বরাতে জানিয়েছে, প্রায় ৩০ জন সেনা সদস্যকে ফাঁদে ফেলে খুয়ালরিং পাহাড়ি এলাকায়। এক ঘণ্টার মধ্যে ১৭ সেনা নিহত হয়। সেনারা মোটরসাইকেলে আসে। এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে তাদের ফাঁদে ফেলি আমরা। ওইদিনই হাখা থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে গাঙ্গাউ-হাখা মহাসড়কে সিডিএফ ৫০ সেনার একটি কলামে হামলা চালানো হয়। এতে ১০ সেনা নিহত হয়।

সিডিএফের আরেক সদস্য জানান, বুধবার ওই এলাকায় সেনাবাহিনীর ড্রোন দেখেছিলাম। ওই ড্রোনের মাধ্যমে জান্তা বাহিনী তাদের গতিবিধি নজরদারি করছিল। কিন্তু ওইদিন তারা আক্রমণ করেনি। কারণ, সেনাবাহিনী আবাসিক এলাকার কাছাকাছি ছিল। এরপর বৃহস্পতিবার সুযোগ বুঝে তারা আক্রমণ চালান। সংঘের্ষের সময় মিয়ানমারের সেনাবাহিনী রকেট চালিত গ্রেনেড এবং মেশিনগান ব্যবহার করেছিল। কিন্তু বিদ্রোহী গোষ্ঠীর কোনো ক্ষয়-ক্ষতি হয়নি বলেও তাদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

চলতি বছরের ১ ফেব্রুয়ারি সেনা অভ্যুত্থানের পর থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত প্রায় সাড়ে আট শতাধিক বিক্ষোভকারীর মৃত্যু হয়েছে। সর্বশেষ মিয়ানমারের বাগো শহরে বিক্ষোভকারীদের ওপর নিরাপত্তা বাহিনীর চালানো ক্র্যাকডাউনে ৮০ জনেরও বেশি মানুষ মারা গেছে বলে জানিয়েছেন আন্দোলনকারীরা।

রোববার, ১৩ জুন ২০২১, ০৩:১০

নাইজেরিয়ায় টুইটার নিষিদ্ধ করায় ট্রাম্পের অভিনন্দন

নাইজেরিয়ায় টুইটার নিষিদ্ধ করায় ট্রাম্পের অভিনন্দন

নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুহম্মু বুহারির টুইট মুছে ফেলায় দেশটিতে নিষিদ্ধ হয়েছে টুইটার। এবার এ সিদ্ধান্তের প্রশংসা করে নাইজেরিয়াকে অভিনন্দন জানিয়েছেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। পাশাপাশি, তিনি অন্যান্য দেশকেও টুইটার এবং ফেসবুক নিষিদ্ধ করার আহ্বান জানিয়েছেন। বুধবার (৯ জুন) এখবর দিয়েছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বিবৃতিতে ট্রাম্প টুইটার ও ফেসবুককে ইঙ্গিত করে প্রশ্ন তুলেছেন, তারা নিজেরাই মন্দ হলে ভাল ও মন্দের নির্দেশ দেওয়ার জন্য তারা কে? এছাড়াও এই দুইটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম মুক্ত ও অবাধ বক্তব্য দিতে দেয় না উল্লেখ করে সব দেশে টুইটার ও ফেসবুক নিষিদ্ধের আহ্বান জানান ট্রাম্প।

জানুয়ারিতে মার্কিন ক্যাপিটল দাঙ্গার পরে ট্রাম্প ফেসবুক এবং টুইটার থেকে নিষিদ্ধ আছেন। তার পোস্টগুলো সহিংসতাকে উৎসাহিত করেছিল বলে অভিযোগ করা হয়। টুইটার ইতোমধ্যেই এই নিষেধাজ্ঞাকে স্থায়ী করেছে। তবে গত সপ্তাহে ফেসবুক জানিয়েছে, আগামী দুই বছর নিষিদ্ধ থাকবেন ট্রাম্প। 

বৃহস্পতিবার, ১০ জুন ২০২১, ০৩:০৫

ফ্রান্স প্রেসিডেন্টকে চড় মারার মাশুল কতটা?

ফ্রান্স প্রেসিডেন্টকে চড় মারার মাশুল কতটা?

 ফ্রান্সের দক্ষিণাঞ্চলের দ্রোম এলাকার স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করতে গিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাঁক্রো। সেখানে সবার সঙ্গে কুশল বিনিময়কালে একজন হঠাৎ ম্যাক্রোঁর মুখে চড় বসিয়ে দেন। এ ঘটনায় সারা বিশ্বে আলোচনার ঝড় উঠেছে। এ নিয়ে ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ তৃতীয়বারের মতো জনসম্মুখে হামলার স্বীকার হলেন। খবর আল-জাজিরার।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে দেখা গেছে, সমর্থক ভেবে প্রেসিডেন্ট হাত মেলাতে গিয়েছিলেন, কিন্তু ওই ব্যক্তি সোজা চড় বসিয়ে দেন তার গালে। এ সময় ওই ব্যক্তি স্লোগান দিচ্ছিল ‘ম্যাক্রোঁবাদ নিপাত যাক।’ এ ঘটনায় অভিযুক্ত তরুণের নাম ড্যামিয়েন টারেল (২৮)। ছয় সপ্তাহের রাজনৈতিক সফর শুরুতেই এ কাণ্ডে হতভম্ব ম্যাঁক্রো।
ফ্রান্স পুলিশের দাবি, এর আগেও ড্যামিয়েনের অপরাধের রেকর্ড রয়েছে। প্রেসিডেন্টের গায়ে হাত তোলার অভিযোগে তার সর্বোচ্চ তিন বছরের কারাদণ্ড ও ৪৫ হাজার ইউরো জরিমানা হতে পারে। বর্তমানে তাকে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে। সে মধ্যযুগীয় তলোয়ারযুদ্ধের ভক্ত এবং বিভিন্ন উগ্র-ডানপন্থীদের সঙ্গে তার স্বকীয়তা। এছাড়া একটি মার্শাল আর্টস ক্লাবও পরিচালনা করেন ড্যামিয়েন।  

উল্লেখ্য, এর আগে ২০১৭ সালের মার্চে প্যারিসে আয়োজিত একটি কৃষি প্রদর্শনীতে এক বিক্ষোভকারীর হাতে ডিম হামলার শিকার হয়েছিলেন এমান্যুয়েল ম্যাক্রোঁ। ২০১৬ সালেও প্যারিসে একদল বিক্ষুব্ধ জনতা তার দিকে ডিম ছুঁড়েছিল। সেই সময় শ্রম আইন সংস্কারের বিরুদ্ধে দেশটির কট্টর-বামপন্থী ট্রেড ইউনিয়নের সদস্যদের ডাকা ধর্মঘট থেকে ম্যাক্রোঁকে লক্ষ্য করে ডিম ছোড়া হয়।

বৃহস্পতিবার, ১০ জুন ২০২১, ০২:৩৯

ভারতের গ্রামে গ্রামে ‘অজানা মৃত্যুর‘ চিত্র
বিবিসি বাংলার প্রতিবেদন

ভারতের গ্রামে গ্রামে ‘অজানা মৃত্যুর‘ চিত্র

 কোভিড সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউতে বিপর্যস্ত ভারত। হাসপাতালে রোগীরা জায়গা পাননি। মৃতদের দাহ করার জায়গা মেলেনি শ্মশানে।

কোভিডের উপসর্গ নিয়ে মারা গেলেও মৃত্যুর আগে শত শত রোগীর কোনো চিকিৎসা তো দূরের কথা পরীক্ষা পর্যন্ত হয়নি। ঘরের ভেতরে বসেই তাদের মৃত্যু হয়েছে। ফলে এসব মৃত্যু সরকারি তালিকাতেও জায়গা পায়নি।
কিন্তু ভারতে বিশেষজ্ঞরা এখন নিশ্চিত গলায় বলছেন যে, সরকার কোভিডে মৃত্যুর যে হিসেব দিচ্ছে তার চেয়ে অনেক বেশি মানুষ ভারতে - বিশেষ করে দেশের গ্রামাঞ্চলে - মারা গেছে।

গ্রামের বাস্তব পরিস্থিতি কি, মৃত্যুর সংখ্যা চাপ দেয়ার অভিযোগ সত্যি কি না - সরেজমিনে তা অনুসন্ধানের জন্য দিল্লিতে বিবিসির বিকাশ পাণ্ডে এবং অনশুল বর্মা গিয়েছিলেন উত্তর প্রদেশ রাজ্যের কয়েকটি গ্রামে।

ডেটলাইন - কৌশল্যা এবং কানৌজা

বিবিসির সংবাদদাতারা তাদের অনুসন্ধানের জন্য প্রথম যে গ্রামটিতে যান তার নাম কৌশল্যা। দিল্লি থেকে ১০০ কিলোমিটারের মতো দূরের এই গ্রাম থেকে প্রচুর মৃত্যুর খবর জানা গেছে। সংবাদদাতারা গ্রামের অনেক সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলেন। সেই সাথে কথা বলেন গ্রাম পঞ্চায়েতের নেতাদের সাথেও।

কৌশল্যা গ্রামের সমাজকর্মী মুস্তাফিজ খান কাগজে হাতে লেখা একটি লিস্ট দেখিয়ে বলেন, সরকার যা বলছে তাদের গ্রামে মৃত্যুর সংখ্যা তার কয়েকগুণ বেশি।

গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য আবরার বললেন, কোভিডের উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুর শিকার এসব মানুষের অধিকাংশরই কোনো পরীক্ষা হয়নি। ওষুধপত্র বা চিকিৎসাও তারা পাননি।

গ্রামের বাসিন্দা শফিক আহমেদ - যিনি পেশায় একজন আইনজীবী - জানালেন, ওই গ্রামের অধিকাংশ মানুষ হয় দিনমজুর না হয় কৃষক বা কৃষি-শ্রমিক। ফলে, তিনি বলেন, খুব কম লোকেই শহরে গিয়ে কোনো বেসরকারি ল্যাবে কোভিডের পরীক্ষা করিয়েছেন।

গ্রামের একটি সড়কে বাড়ি বাড়ি গিয়ে কথা বলেন বিবিসির সংবাদদাতারা। জানতে পারেন, প্রতি দুটো বাড়ির অন্তত একটিতে এক বা একাধিক মানুষ কোভিডের উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন।

গ্রামের ফারমান, সালমান এবং জাহিন তাদের মা এবং বড় ভাইকে হারিয়েছেন। বাড়ির দরজার বাইরে দাঁড়িয়ে শোকাহত তিন ভাই-বোন বিবিসির সাথে কথা বলেন।

‘যেদিন আমার ভাই মারা গেলের, সেদিন গ্রামে নয়জন মারা গিয়েছিল, “ বলেন ফারমান। “কয়েক জায়গায় নিয়ে গিয়েছিলাম ভাইকে। সব জায়গাতেই বললো বেড নেই, অক্সিজেন নেই। তাদের করার কিছু নেই। ভাই শ্বাস নিতে পারছিলেন না। আতঙ্কে আমরা অক্সিজেনের জন্য নানা জায়গায় ছোটাছুটি করেছি।’

কিন্তু ভাই মেহমুদকে বাঁচাতে পারেননি তারা। একই পরিণতি হয়েছে তাদেরও মায়েরও।

সালমান বললেন, ‘ক্লিনিকে নিয়ে গিয়েছিলাম, কারণ বড় হাসপাতালে তো জায়গাই ছিলনা। ভেন্টিলেটর খালি ছিলনা। দরজা থেকেই তারা আমাদের পাঠিয়ে দিত।’

দুই ভাইয়ের কোলে ছিল বড় ভাইয়ের দুই বাচ্চা - একটি ছেলে, একটি মেয়ে। ফারমান বললেন ‘কে দেখবে এদের? সরকার কি কোনো দায়িত্ব নেবে।? আমাদের নিয়ে যে সরকারের কোনো মাথাব্যথাই নেই, তারা কি এই দুই শিশুর দায়িত্ব নেবে।?’

তাদের বোন জাহিন কাঁদতে কাঁদতে বললেন, ‘সরকারকে কিছু তো ভাবতে হবে। এই বাচ্চা দুটোর সামনে পুরো জীবন পড়ে রয়েছে।’

কৌশল্যার পরে কানৌজা নামে উত্তরপ্রদেশের আরেকটি গ্রামে গিয়েছিলেন বিবিসির সংবাদদাতারা। একই কাহিনী সেখানেও। বহু মানুষ কোভিডের উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। কিন্তু তাদের পরীক্ষা হয়নি, চিকিৎসা হয়নি।

কানৌজা গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য উমেশ শর্মা একটি খাতা বের করলেন যাতে তার গ্রামের কোভিডে মৃতদের নাম লেখা রয়েছে। বললেন, “এদের মধ্যে এক বা বড় জোর দু'জনের নাম সরকারি হিসাবের মধ্যে গেছে, বাকি ৩০-৫৫ জনের কোনো হিসাব নেই।“

দুই গ্রামেরই লোকজন বললেন, এপ্রিল এবং মে মাসে কোভিড সংক্রমণ যখন চূড়ায় ছিল, গ্রামের সরকারি স্বাস্থ্য ক্লিনিক অচল ছিল।

প্রতিটি গ্রামে একটি প্রাথমিক চিকিৎসা কেন্দ্র রয়েছে। সেখানে একজন ডাক্তার থাকার কথা, নার্স থাকার কথা। কিন্তু কৌশল্যা গ্রামের প্রাথমিক চিকিৎসা কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায় সেখানে নির্মাণ কাজ চলছে। কোনো ডাক্তার বা নার্স নেই। শুধু ক'জন শ্রমিক বসে রয়েছেন।

গ্রামবাসীরা বলছেন, সরকারি এই চিকিৎসা কেন্দ্রগুলোতে শুধু যদি কিছু অক্সিজেনের ব্যবস্থা থাকতো তাহলেও অনেকগুলো প্রাণ হয়তো বাঁচতো।

নদীর ধারে সারি সারি কবর

উত্তরপ্রদেশের এলাহাবাদ শহরের কাছে গঙ্গার তীরে শত শত নতুন কবরের সারি। দাহ করার জন্য শ্মশানে জায়গা হয়নি বলে মানুষজন মৃত স্বজনদের এখানে এনে মাটি চাপ দিয়ে চলে গেছেন। কবর দেয়ার এসব ঘটনা ঘটেছে প্রধানত এপ্রিল মাসে।

এলাহাবাদে কবর প্রসঙ্গে কর্মকর্তারা বলছেন, অনেক হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে মৃতদেহ না পুড়িয়ে নদীর পাশে কবর দেয়ার চল রয়েছে। এটা অস্বাভাবিক কিছু নয়।তবে স্থানীয় অনেক মানুষ এবং সাংবাদিকরা বিবিসিকে বলেন, এবছর এই কবর দেয়ার সংখ্যা অস্বাভাবিক মাত্রায় বেশি।

“এই একটি জায়গাতেই এ বছর ২৪০০ থেকে ৩০০০ লোককে কবর দেয়া হয়েছে, “ বিবিসিকে বলেন স্থানীয় শ্রীংভেরপুর শ্মশানের পুরোহিত লবকুশ মিশ্র।

এলাহাবাদের কাছে মেনডারা গ্রামের পঞ্চায়েত প্রধান বিবিসিকে জানান, তার গ্রামে ডজন ডজন মানুষ কোভিডের লক্ষণ নিয়ে বিনা চিকিৎসায় মারা গেছে।

মহেশ্বর কুমার সোনি বলেন, মৃত এসব রোগীর কখনো কোভিডের পরীক্ষাও হয়নি। “আমাদের গ্রামে এই হারে মৃত্যু আমরা জীবনেও দেখিনি। ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম।“

মেনডারা গ্রামের পঞ্চায়েত প্রধান বলেন, সরকারের উচিৎ তদন্ত করে কোভিডে মৃতদের পরিবারগুলোকে ক্ষতিপূরণ দেয়ার ব্যবস্থা করা।

গ্রামের মানুষজন বলছেন, বহু মানুষ যে কোভিডের পরীক্ষা বা চিকিৎসার অভাবে মারা গেছেন সরকারের উচিত তা অন্তত স্বীকার করা। তাতে অন্তত সেসব মৃত মানুষদের কিছুটা মর্যাদা দেওয়া হবে।

বুধবার, ৯ জুন ২০২১, ০৭:২৫

হাড় কাঁপানো ঠান্ডা লাদাখে, ৯০ শতাংশ সেনাকে বার বার বদলাচ্ছে চীন

হাড় কাঁপানো ঠান্ডা লাদাখে, ৯০ শতাংশ সেনাকে বার বার বদলাচ্ছে চীন

 হাড় কাঁপানো ঠান্ডায় পূর্ব লাদাখে পাহাড়ি এলাকায় সীমান্ত রক্ষায় প্রায় ৯০ শতাংশ সেনাকে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে মোতায়েন করতে হচ্ছে চীন সরকারকে।

সোমবার, ৭ জুন ২০২১, ০৩:২৪

করোনায় আক্রান্ত ধর্ষণে সাজাপ্রাপ্ত ধর্মগুরু রাম রহিম

করোনায় আক্রান্ত ধর্ষণে সাজাপ্রাপ্ত ধর্মগুরু রাম রহিম

 করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে ২০ বছরের যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত  ৫৩ বছর বয়সি ভারতের স্বঘোষিত ধর্মগুরু গুরমিত রাম রহিম সিং।

রবিবার হরিয়ানার রোহতকের সুনারিয়া জেল থেকে গুরগাঁওয়ের একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর করোনা ধরা পড়ে রাম রহিমের।

সোমবার, ৭ জুন ২০২১, ০৩:১৬

সর্বশেষ
জনপ্রিয়