সোমবার   ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩   মাঘ ২৩ ১৪২৯   ১৫ রজব ১৪৪৪

সর্বশেষ:
ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিলেন লুলা যে কোনো দিন খুলবে স্বপ্নের বঙ্গবন্ধু টানেল শীতে কাঁপছে উত্তরাঞ্চল দেশে করোনার নতুন ধরন, সতর্কতা বিএনপির সব পদ থেকে বহিষ্কার আব্দুস সাত্তার ভূঁইয়া নৌকার প্রার্থীর পক্ষে মাঠে কাজ করবো: মাহিয়া মাহি মর্মান্তিক, মেয়েটিকে ১২ কিলোমিটার টেনে নিয়ে গেল ঘাতক গাড়ি! স্ট্যামফোর্ড-আশাসহ ৪ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত বর্ষবরণে বায়ু-শব্দদূষণ জনস্বাস্থ্যে ধাক্কা কোনো ভুল মানুষকে পাশে রাখতে চাই না বাসস্থানের চরম সংকটে নিউইয়র্কবাসী ট্রাকসেল লাইনে মধ্যবিত্ত-নিম্নবিত্ত একাকার! ছুটি ৬ মাসের বেশি হলে কুয়েতের ভিসা বাতিল ১০ হাজার বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত চুক্তিতে বিয়ে করে ইউরোপে পাড়ি আইফোন ১৪ প্রোর ক্যামেরায় নতুন দুই সমস্যা পায়ের কিছু অংশ কাটা হলো গায়ক আকবরের ১৫ দিনে রেমিট্যান্স এসেছে ১০০ কোটি ডলার নারী ফুটবলে দক্ষিণ এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে আবার বাড়লো স্বর্ণের দাম
৪২৭

কোন জোর জবরদস্তির মধ্যে আওয়ামী লীগ নেই: তোফায়েল

প্রকাশিত: ১২ ডিসেম্বর ২০১৮  

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ‘বিএনপি আমলে দেশে সীমাহীন অত্যাচার হয়েছে। মানুষ তাদের নিষ্ঠুর অত্যাচার, নির্যাতন, হত্যা, নারী ধর্ষণের কথা ভোলেনি। তাই আগামী ৩০ ডিসেম্বর ব্যালটের মাধ্যমে তার জবাব দিবে বাংলার মানুষ। আবারও শেখ হাসিনা বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হবেন ইনশাল্লাহ’।

বুধবার সকালে ভোলা শহরের গাজিপুর রোডস্থ নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে একমত বিনিময় সভায় তোফায়েল আহমেদ এ সব কথা বলেন।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘বিএনপি’র প্রার্থীরা এখন পর্যন্ত মাঠে যায়নি। আর গত ৩ মাস ধরে আমরা সাধারণ মানুষের ঘরে ঘরে গিয়েছি। উঠান বৈঠক, পথসভার মাধ্যমে নির্বাচনী মাঠে রয়েছি। কোন জোর জবরদস্তির মধ্যে আওয়ামী লীগ নেই। গত ১০ বছর ভোলায় আমাদের দ্বারা বিএনপির কেউ অত্যাচারিত হয়নি’।

আওয়ামী লীগের প্রবীণ এই উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য ভোলার নদী ভাঙ্গন সমস্যার কথা উল্লেখ করে আরও বলেন, সরকারের আন্তরিকতা ও বিপুল পরিমাণ অর্থ ব্যয়ে নদী ভাঙ্গা আজ রোধ করা সম্ভব হয়েছে। এতে করে সাধারণ মানুষ খুবই আনন্দিত। যার প্রতিফলন আসন্ন নির্বাচনে তারা দেখাবে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, এখানে প্রচুর গ্যাস রয়েছে। সেই গ্যাস দিয়ে শিল্প হচ্ছে। ভোলায় ১৮’শ মেঘাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র হবে। ভোলাকে শিল্প নগরী হিসাবে গোড়ে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে। এতে বেকারদের কর্মসংস্থানের সুযোগ হবে। ভোলা হবে বাংলাদেশের মধ্যে শ্রেষ্ঠ জেলা।

তিনি বলেন, ভোলার এক সময়ের বিচ্ছিন্ন চর ভেলুমিয়া ও ভেদুরিয়া ইউনিয়নে আগে পায়ে হেঁটে যেতো হতো। সরকারের ব্যাপক উন্নয়নে আজকে সেই জনপদের মানুষ ১০ মিনিটে সড়ক পথে ভোলা সদরে আসে। সেখানে রাস্তা-ঘাট পাকা, বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত। দেখলে শহর মনে হয়।

সাপ্তাহিক আজকাল
সাপ্তাহিক আজকাল
এই বিভাগের আরো খবর