সোমবার   ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩   মাঘ ২৩ ১৪২৯   ১৫ রজব ১৪৪৪

সর্বশেষ:
ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিলেন লুলা যে কোনো দিন খুলবে স্বপ্নের বঙ্গবন্ধু টানেল শীতে কাঁপছে উত্তরাঞ্চল দেশে করোনার নতুন ধরন, সতর্কতা বিএনপির সব পদ থেকে বহিষ্কার আব্দুস সাত্তার ভূঁইয়া নৌকার প্রার্থীর পক্ষে মাঠে কাজ করবো: মাহিয়া মাহি মর্মান্তিক, মেয়েটিকে ১২ কিলোমিটার টেনে নিয়ে গেল ঘাতক গাড়ি! স্ট্যামফোর্ড-আশাসহ ৪ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত বর্ষবরণে বায়ু-শব্দদূষণ জনস্বাস্থ্যে ধাক্কা কোনো ভুল মানুষকে পাশে রাখতে চাই না বাসস্থানের চরম সংকটে নিউইয়র্কবাসী ট্রাকসেল লাইনে মধ্যবিত্ত-নিম্নবিত্ত একাকার! ছুটি ৬ মাসের বেশি হলে কুয়েতের ভিসা বাতিল ১০ হাজার বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত চুক্তিতে বিয়ে করে ইউরোপে পাড়ি আইফোন ১৪ প্রোর ক্যামেরায় নতুন দুই সমস্যা পায়ের কিছু অংশ কাটা হলো গায়ক আকবরের ১৫ দিনে রেমিট্যান্স এসেছে ১০০ কোটি ডলার নারী ফুটবলে দক্ষিণ এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে আবার বাড়লো স্বর্ণের দাম
২২০

সেই চানবরু আর নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক 

প্রকাশিত: ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮  

ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সড়কে ফেলে রাখা বৃদ্ধা চানবরু আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

সোমবার বিকেলে ৮০ বছর বয়সে তিনি মারা যান।

খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে যান ঝালকাঠির সদর ইউএনও আতাহার মিয়া। বৃদ্ধা চানবরুর দাফনের জন্য পৌর কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় কয়েকজনকে দায়িত্ব দেন তিনি।

বৃদ্ধা চানবরু চির কুমারী ছিলেন। বাবা-মায়ের সঙ্গেই জীবন যাপন করতেন। বাবা-মা মারা যাবার পর ছোট বোন জাহানুল বেগমের কাছে থাকতেন তিনি। পারিবারিক প্রয়োজনে জাহানুল বেগমও ঢাকায় চলে যান। এরপর আত্মীয় স্বজনদের বাড়ি, ঘরের বারান্দা, রান্না ঘর, গোয়াল ঘরে আশ্রয় নিয়ে জীবন অতিবাহিত করেন। বয়সের ভারে স্বাভাবিক জীবন যাপন করতেও অক্ষম তিনি। বাসন্ডা এলাকায়ই তার পিতা-মাতা এবং আত্মীয় স্বজনদের বাড়িতে কাটাতেন।

 

এক মাস পূর্বে শহরের বাসন্ডা ব্রিজের ঢালে সড়কের পাশে তার আত্মীয় স্বজনরা ফেলে রেখে যায়। বিষয়টি সংবাদ কর্মী এবং স্থানীয়রা ডিসি মো. হামিদুল হককে জানালে তিনি সদর ইউএনও মো. আতাহার মিয়াকে সেখানে পাঠিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ করেন। তাকে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. গোলাম ফরহাদ তাকে চিকিৎসা পর্যবেক্ষণে রাখেন।

এ ব্যাপারে ইউএনও আতাহার মিয়া বলেন, এক মাস পূর্বে শহরের বাসন্ডা ব্রিজের ঢালে পরিত্যক্ত অবস্থায় পাওয়া যায় তাকে। বিষয়টি সংবাদকর্মী এবং স্থানীয়রা

ডিসি মো. হামিদুল হকের নির্দেশে বৃদ্ধা চানবরুকে উদ্ধার করে সার্বিক চিকিৎসাসহ আর্থিক সহায়তা দেই । সোমবার বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃদ্ধা চানবরু মারা যান। চানবরুর দাফনের জন্য আমরা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ব্যবস্থা করব।

সাপ্তাহিক আজকাল
সাপ্তাহিক আজকাল
এই বিভাগের আরো খবর