সোমবার   ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩   মাঘ ২৩ ১৪২৯   ১৫ রজব ১৪৪৪

সর্বশেষ:
ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিলেন লুলা যে কোনো দিন খুলবে স্বপ্নের বঙ্গবন্ধু টানেল শীতে কাঁপছে উত্তরাঞ্চল দেশে করোনার নতুন ধরন, সতর্কতা বিএনপির সব পদ থেকে বহিষ্কার আব্দুস সাত্তার ভূঁইয়া নৌকার প্রার্থীর পক্ষে মাঠে কাজ করবো: মাহিয়া মাহি মর্মান্তিক, মেয়েটিকে ১২ কিলোমিটার টেনে নিয়ে গেল ঘাতক গাড়ি! স্ট্যামফোর্ড-আশাসহ ৪ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত বর্ষবরণে বায়ু-শব্দদূষণ জনস্বাস্থ্যে ধাক্কা কোনো ভুল মানুষকে পাশে রাখতে চাই না বাসস্থানের চরম সংকটে নিউইয়র্কবাসী ট্রাকসেল লাইনে মধ্যবিত্ত-নিম্নবিত্ত একাকার! ছুটি ৬ মাসের বেশি হলে কুয়েতের ভিসা বাতিল ১০ হাজার বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত চুক্তিতে বিয়ে করে ইউরোপে পাড়ি আইফোন ১৪ প্রোর ক্যামেরায় নতুন দুই সমস্যা পায়ের কিছু অংশ কাটা হলো গায়ক আকবরের ১৫ দিনে রেমিট্যান্স এসেছে ১০০ কোটি ডলার নারী ফুটবলে দক্ষিণ এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে আবার বাড়লো স্বর্ণের দাম
৩১৭

অফিসে ৫০ লাখ টাকার বেশি রাখতে পারবেন না মানিচেঞ্জাররা

প্রকাশিত: ১২ নভেম্বর ২০২২  


আজকাল ডেস্ক
দেশের কোনো মানিচেঞ্জারের অফিসে একদিনে ৫০ লাখ টাকার বেশি রাখা যাবে না। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংক এ নির্দেশনা দিয়েছে। এর আগে মানিচেঞ্জাররা প্রতিদিন কত টাকা রাখতে পারবে, সে বিষয়ে কোনো নির্দেশনা ছিল না। এবার হুন্ডি ব্যবসা প্রতিরোধ করতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের এক কর্মকর্তা বলেন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন,  ‘কিছু মানিচেঞ্জারদের বিরুদ্ধে হুন্ডি ব্যবসার অভিযোগ আছে। একজন মানিচেঞ্জার যদি ১ কোটি টাকার বেশি রাখেন তবে তাদের হুন্ডির সঙ্গে জড়িত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।' 'তাদের ব্যবসা এমন নয় যে এত বড় অংকের অর্থ রাখা অযৌক্তিক, যোগ করেন তিনি। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী, একজন মানিচেঞ্জার প্রতিদিন সর্বোচ্চ ২৫ হাজার ডলার বা সমপরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা সংরক্ষণ করতে পারেন।
এই সীমার বাইরে বৈদেশিক মুদ্রা হয় যে ব্যাংক থেকে নগদ টাকা করে ফেলতে হবে, নয়তো মানিচেঞ্জারের নিজস্ব ফরেন কারেন্সি অ্যাকাউন্টে জমা করতে হবে। তবে ওই অ্যাকাউন্টেও একসঙ্গে ৫০ হাজার ডলারের বেশি বৈদেশিক মুদ্রা থাকতে পারবে না।
বৈদেশিক মুদ্রার বাজারে চলমান অস্থিরতার মধ্যে স্থানীয় খোলা বাজারে মার্কিন ডলারের দাম সম্প্রতি বেড়ে ১২০ টাকা হয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘খোলা বাজারে ডলার বিনিময় হার বাড়ানোর পেছনের কারসাজিতে মানিচেঞ্জাররাও জড়িত ছিল।' এর পরিপ্রেক্ষিতে চলতি বছরের জুলাই মাসে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের একাধিক পরিদর্শক দল গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যদের নিয়ে ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন মানিচেঞ্জার অফিসে আকস্মিক অভিযান চালায়। খোলাবাজারে মার্কিন ডলারের দাম বাড়ানোর কারসাজিতে জড়িত থাকার অভিযোগে বাংলাদেশ ব্যাংক অন্তত ৫ মানিচেঞ্জারের লাইসেন্স স্থগিত করেছে এবং প্রায় ৪০ জনকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে।

 

সাপ্তাহিক আজকাল
সাপ্তাহিক আজকাল
এই বিভাগের আরো খবর