সোমবার   ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩   মাঘ ২৩ ১৪২৯   ১৫ রজব ১৪৪৪

সর্বশেষ:
ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিলেন লুলা যে কোনো দিন খুলবে স্বপ্নের বঙ্গবন্ধু টানেল শীতে কাঁপছে উত্তরাঞ্চল দেশে করোনার নতুন ধরন, সতর্কতা বিএনপির সব পদ থেকে বহিষ্কার আব্দুস সাত্তার ভূঁইয়া নৌকার প্রার্থীর পক্ষে মাঠে কাজ করবো: মাহিয়া মাহি মর্মান্তিক, মেয়েটিকে ১২ কিলোমিটার টেনে নিয়ে গেল ঘাতক গাড়ি! স্ট্যামফোর্ড-আশাসহ ৪ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত বর্ষবরণে বায়ু-শব্দদূষণ জনস্বাস্থ্যে ধাক্কা কোনো ভুল মানুষকে পাশে রাখতে চাই না বাসস্থানের চরম সংকটে নিউইয়র্কবাসী ট্রাকসেল লাইনে মধ্যবিত্ত-নিম্নবিত্ত একাকার! ছুটি ৬ মাসের বেশি হলে কুয়েতের ভিসা বাতিল ১০ হাজার বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত চুক্তিতে বিয়ে করে ইউরোপে পাড়ি আইফোন ১৪ প্রোর ক্যামেরায় নতুন দুই সমস্যা পায়ের কিছু অংশ কাটা হলো গায়ক আকবরের ১৫ দিনে রেমিট্যান্স এসেছে ১০০ কোটি ডলার নারী ফুটবলে দক্ষিণ এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে আবার বাড়লো স্বর্ণের দাম
২৩১

রেলের সব সেবা এক অ্যাপে

প্রকাশিত: ৩১ জানুয়ারি ২০১৯  

ট্রেনের টিকেট কাটা থেকে শুরু করে রেলওয়ের সব সেবা এক অ্যাপে আনতে একটি সমন্বিত ডিজিটাল ব্যবস্থা গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। বুধবার রেল ভবনে রেলওয়ে সেবা ডিজিটাইজেশন সংক্রান্ত এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয় বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক জানান।

পলক বলেন, ইন্টিগ্রেটেড রেলওয়ে সেবা বাস্তবায়িত হলে একজন সাধারণ নাগরিক তার হাতে থাকা মোবাইল ফোন ব্যবহার করে ট্রেনের সিট বাছাই থেকে শুরু করে সিট বুকিং ও টিকেটের মূল্য পরিশোধ করতে পারবেন। পাশাপাশি স্টেশন বা ট্রেনের অবস্থান, গন্তব্যের দূরত্ব ও লোকাল ট্রান্সপোর্ট সেবা সম্পর্কে সহজেই তথ্য পাওয়া যাবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, যাত্রার সময় বিভিন্ন ধরনের অভ্যন্তরীণ সেবা বা কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতিতে রেল পুলিশের সহযোগিতার প্রয়োজন হলে কিংবা অভিযোগ জানাতে হলে সে ব্যবস্থাও থাকবে এই অ্যাপে।

যাত্রা শেষে সেবার মান নিয়ে যাত্রী এই অ্যাপে মতামত এবং ট্রেনের ‘রেটিং’ দিতে পারবেন জানিয়ে পলক বলেন, এই ইন্টিগ্রেটেড সিস্টেমে মোবাইল অ্যাপের পাশাপাশি ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন, কল সেন্টার ও এসএমএস এর মাধ্যমে সেবা পাওয়া যাবে।

এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ, ইউএসএইড এবং ইউএনডিপির সহায়তায় পরিচালিত এটুআই সব ধরনের সহযোগিতা দেবে বলে জানানো হয় বৈঠকে।

২০২০ সালের এপ্রিলের মধ্যে এ উদ্যেগ বাস্তবায়ন করা হবে জানিয়ে পলক বলেন, এই অ্যাকশন প্ল্যানে রেলপথ মন্ত্রণালয় ও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ মিলে একটি কমিটি করা হয়েছে।

রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বৈঠকে বলেন, বর্তমানে কিছু সেবা অনলাইনে ও এসএমএসের মাধ্যমে দেয়া হচ্ছে, প্রস্তাবিত সমন্বিত ব্যবস্থায় রেলের সব সেবা একটি মাত্র প্ল্যাটফর্মে নিয়ে আসা যাবে। বৈঠকে ঠিক হয়েছে, রেলপথ মন্ত্রণালয় এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ মিলে ‘ওয়ানস্টপ রেলওয়ে ডিজিটাল যাত্রীসেবা সিস্টেম’ ও মোবাইল অ্যাপ তৈরি এবং বাস্তবায়ন করবে।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোফাজ্জেল হোসেন, রেল মহাপরিচালক কাজী মো. রফিকুল আলম, এটুআই প্রকল্প পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমানসহ দুই মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।

সাপ্তাহিক আজকাল
সাপ্তাহিক আজকাল
এই বিভাগের আরো খবর