ঢাকা, ২০২০-১০-২০ | ৫ কার্তিক,  ১৪২৭
সর্বশেষ: 
অমিতাভের পর অভিষেকও করোনা আক্রান্ত বিশ্ব ধরেই নিচ্ছে বাংলাদেশ জালিয়াতির দেশ : শাহরিয়ার কবির ইরাকে মর্গের পাশে রাত কাটছে বাংলাদেশিদের! বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শক বাংলাদেশের সেঁজুতি সাহা সাহেদর টাকা থাকত নাসির, ইন্ডিয়ান বাবু ও স্ত্রী সাদিয়ার কাছে ‘বাংলাদেশিদের ভোট দিন’ মানবতার সেবায় কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ অনিশ্চিতায় ফেরদৌস খন্দকার কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা থামছেই না বিক্ষোভ অব্যাহত গভর্নরের সিদ্ধান্ত মানছে না মেয়র অভিবাসীরা জিতলেন হারলেন ট্রাম্প করোনার ধাক্কা - মে মাসে রপ্তানি কমেছে ২০ হাজার কোটি টাকার পুলিশ সংস্কার বিল উঠলো মার্কিন কংগ্রেসে লাইফ সাপোর্টে থাকা নাসিমের জন্য মেডিকেল বোর্ড পুনর্গঠন আইসিইউ নিয়ে হাহাকার ঈদের ছুটিতে অনিরাপদ হয়ে উঠছে গ্রামগুলো ঘরে ঘরে ভুতুড়ে বিল, বিদ্যুৎ বিভাগ বলছে সমন্বয় হবে নিউইয়র্কে ‘ট্রাম্প ডেথ ক্লক’ নিউইয়র্কে জেবিবিএ’র পরিচালক ইকবালুর রশীদ লিটনের মৃত্যু নিজ আয়ে চলা শুরু করলো বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি কবে খুলবে নিউইয়র্ক নিউইয়র্কে এবার নতুন ভাইরাসে শিশুরা আক্রান্ত

১৭ বছর পর মৃত্যুদন্ড কার্যকর

প্রকাশিত: ০২:২৮, ১৮ জুলাই ২০২০  


আজকাল রিপোর্ট
যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টের অনুমতি পেয়ে প্রায় ১৭ বছর পর যুক্তরাষ্ট্রে প্রথমবারের মতো খুনের দায়ে অভিযুক্ত এক আসামির মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হয়েছে। ড্যানিয়েল লুইস লি নামের এই আসামি খুনের দায়ে মৃত্যুদন্ডের সাজা পেয়ে দীর্ঘদিন কারাবন্দি ছিলেন।
এর আগে সোমবার দেশটির একটি আদালতের বিচারক অমীমাংসিত আইনি চ্যালেঞ্জের কারণে বেশ কিছু মৃত্যুদন্ড কার্যকরের সাজা স্থগিত রাখার নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু দেশটির সুপ্রিম কোর্ট স্থগিতাদেশ বাতিল করে অনুমতি দেয়ায় ড্যানিয়েলের মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হয়। বিভিন্ন মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামিদের যুক্তি ছিল, প্রাণঘাতী ইনজেকশন প্রয়োগ করে মৃত্যুদন্ড কার্যকর ‘অমানবিক’ এবং ‘অপ্রচলিত সাজা’।
এই পদ্ধতির বিরুদ্ধে আবেদন করায় দীর্ঘদিন ধরে দেশটির বেশ কয়েকজন গুরুতর আসামির মৃত্যুদন্ড কার্যকর ঝুলে ছিল। দেশটি সুপ্রিম কোর্টে পরিকল্পনা অনুযায়ী সাজা কার্যকরের পক্ষে ৫-৪ ভোটের রায় আসে।
ট্রাম্প প্রশাসন বলছে, তারা পুনরায় মৃত্যুদন্ড কার্যকর শুরু করবে। মঙ্গলবার সকালের দিকে ইন্ডিয়ানার টেরে হওতের একটি কারাগারে প্রাণঘাতী ইনজেকশন প্রয়োগে ড্যানিয়েলের মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হয়।
ড্যানিয়েল ও অন্যান্য আসামিদের স্বজনরা ইনজেকশন প্রয়োগে মৃত্যুদন্ড কার্যকরের বিরোধিতা করে তা স্থগিতের আবেদন জানিয়েছিলেন। তাদের যুক্তি ছিল, এভাবে মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হলে সেখানে তাকে দেখতে গেলে স্বজনদের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি তৈরি হতে পারে।
১৯৯৬ সালে আরকানসাসের আর্লিন পিটারসনের (৮১) মেয়ে, নাতনি এবং পূত্রবধূকে হত্যা করেছিলেন লি। পিটারসন বলেন, তিনি চেয়েছিলেন ৪৭ বছর বয়সী এই আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দেয়া হোক। লির এক সহযোগী এই মামলায় যাবজ্জীবন কারাদন্ড ভোগ করছেন।

 

সর্বশেষ
জনপ্রিয়