শুক্রবার   ০৭ অক্টোবর ২০২২   আশ্বিন ২২ ১৪২৯   ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
চুক্তিতে বিয়ে করে ইউরোপে পাড়ি আইফোন ১৪ প্রোর ক্যামেরায় নতুন দুই সমস্যা পায়ের কিছু অংশ কাটা হলো গায়ক আকবরের ১৫ দিনে রেমিট্যান্স এসেছে ১০০ কোটি ডলার নারী ফুটবলে দক্ষিণ এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে আবার বাড়লো স্বর্ণের দাম
৪৭

তিরিশ মিনিটে নারিকেল দুধে ফুলকপি ডাল

প্রকাশিত: ১৮ মার্চ ২০১৯  

কে বলছে শুধু মাছ ও মাংসের হরেক রকম মুখরোচক পদ তৈরি হয়!

সবজি ও ডালের মিশেলেও চমৎকার মজাদার খাবার তৈরি করে নেওয়া যায়। শুধু প্রয়োজন একেবারেই ভিন্নধর্মী রান্নার সঠিক রেসিপিটি জানা। আর কিছুদিনের মাঝে ফুলকপি শেষ হয়ে যাবে একেবারেই। ফুলকপির সময় থাকতেই তৈরি করে নিন নারিকেল দুধে ফুলকপি ডাল।

 

নারিকেল দুধে ফুলকপি ডাল তৈরিতে যা লাগবে

 

১. দেড় কাপ পানি।

২. ২/৩ কাপ মসুরের ডাল।

৩. ২ টেবিল চামচ নারিকেল তেল।

৪. ১ টেবিল চামচ সরিষা দানা।

৫. ১ টেবিল চামচ জিরা দানা।

৬. ১ টেবিল চামচ ধনিয়া দানা।

৭. ৩টি সম্পূর্ণ এলাচ।

৮. ১/২ কাপ পেঁয়াজ কুঁচি।

৯. দেড় টেবিল চামচ আদা কুঁচি।

১০. ২-৩টি কাঁচামরিচ।

১১. ২ কোয়া রসুন কুঁচি।

১২. ১ কাপ ফুলকপি কুঁচি।

১৩. ১ কাপ ক্যাপসিকাম কুঁচি।

১৪. দেড় কাপ আলু।

১৫. ১ টেবিল চামচ কারি পাউডার।

১৬. ১/৪ টেবিল চামচ লবণ।

১৭. ২টি টমেটো কুঁচি।

১৮. দেড় কাপ ভেজিটেবল ব্রথ।

১৯. ২ টেবিল চামচ নারিকেল দুধ।

২০. ১ টেবিল চামচ ম্যাপল সিরাপ।

 

নারিকেল দুধে ফুলকপি ডাল যেভাবে তৈরি করতে হবে

১. পাত্রে পানি নিয়ে চুলায় উচ্চ তাপে বলক আনতে হবে। পানি ফুটে উঠলে এতে মসুর ডাল দিয়ে দিতে হবে। চুলার আঁচ কমিয়ে দিয়ে পাত্রের মুখ খুলে রেখে ৮-১০ মিনিট ফুটাতে হবে। ডাল সিদ্ধ হবে, তবে একেবারে নরম হয়ে যাবে না। এমন অবস্থায় নামিয়ে পানি ঝরিয়ে রেখে দিতে হবে।

২. এর মাঝে অন্য একটি বড় পাত্র মাঝারি তাপে গরম করে এতে তেল দিতে হবে। তেল গরম হলে সরিষা দানা, জিরা দানা, ধনিয়া দানা ও এলাচ দিয়ে দিতে হবে। গন্ধ ছাড়লে এতে পেঁয়াজ, আদা, কাঁচামরিচ দিয়ে ৩ মিনিট নাড়তে হবে। পেঁয়াজ নরম হয়ে আসলে রসুন কুঁচি দিয়ে পুনরায় নাড়তে হবে।

৩. এর মাঝে আলু, ফুলকপি, ক্যাপসিকাম, কারি পাউডার, লবণ দিয়ে নেড়ে মেশাতে হবে সবকিছু। মিনিট চারেক রান্নার পর টমেটো কুঁচি দিয়ে দিতে হবে। কিছুক্ষণ নেড়েচেড়ে ভেজিটেবল ব্রথ দিয়ে দিতে হবে। চুলার আঁচ মাঝারি রেখে ফুটাতে হবে। প্রয়োজনে পাত্রের মুখ ঢেকে আলু সিদ্ধ করে নিতে হবে।

 

৪. এখন এতে আগে থেকে সিদ্ধ করে রাখা ডাল, নারিকেল দুধ, ম্যাপল সিরাপ দিয়ে নাড়তে হবে। পুনরায় চুলার মাঝারি আঁচে রেখে হালকা বলক আনতে হবে। এ অবস্থায় চুলায় রাখতে হবে অন্তত ১৫ মিনিট।

৫. এর মাঝে দেখতে হবে ডালের স্বাদ ঠিক আছে কিনা। প্রয়োজনে লবণ, কারি মশলা অথবা কাঁচামরিচ, নইলে ম্যাপল সিরাপ যোগ করতে হবে।

সকল উপাদান ভালোভাবে সিদ্ধ হয়ে আসলে নামিয়ে নিতে হবে। ডাল ফুলকপির একেবারেই ভিন্ন ঘরানার এই খাবারটি ভাত, পোলাও কিংবা নানের সঙ্গে খুব সহজেই মানিয়ে যাবে।

সাপ্তাহিক আজকাল
সাপ্তাহিক আজকাল