বৃহস্পতিবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২২   অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৯   ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
কোনো ভুল মানুষকে পাশে রাখতে চাই না বাসস্থানের চরম সংকটে নিউইয়র্কবাসী ট্রাকসেল লাইনে মধ্যবিত্ত-নিম্নবিত্ত একাকার! ছুটি ৬ মাসের বেশি হলে কুয়েতের ভিসা বাতিল ১০ হাজার বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত চুক্তিতে বিয়ে করে ইউরোপে পাড়ি আইফোন ১৪ প্রোর ক্যামেরায় নতুন দুই সমস্যা পায়ের কিছু অংশ কাটা হলো গায়ক আকবরের ১৫ দিনে রেমিট্যান্স এসেছে ১০০ কোটি ডলার নারী ফুটবলে দক্ষিণ এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে আবার বাড়লো স্বর্ণের দাম
১৩৫

বিশ্বখ্যাত মুসলিম ধর্মীয় নেতা ইউসূফ আল কারযাভীর মৃত্যু

প্রকাশিত: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২  

ওয়ার্ল্ড ফেডারেশন অফ মুসলিম স্কলারের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ইউসুফ আল কারজাভি মারা গেছেন। (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্নইলাহি রাজিউন)। সোমবার তার অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে মৃত্যুর ঘোষণা দেওয়া হয়। তার বয়স হয়েছিলো ৯৬ বছর। আল জাজিরা

ইসলামের ব্যাখ্যা ও জাতিকে রক্ষা করার জন্য তিনি জীবন দিয়েছেন। আল্লাহ! আপনি তাকে নবী, সত্যবাদী, শহীদ এবং নেককারদের সাথে যুক্ত করুন। তার দাফন ও জানাজার সময় পরে জানানো হবে।

ইউসূফ আল-কারযাভী হলেন একজন মিশরীয় ইসলামিক স্কলার। ইসলামিক বিভিন্ন বিষয়ে লেখা তার কয়েকশ গ্রন্থ রয়েছে। সবগুলোই পাঠক মহলে ব্যাপক সমাদৃত হয়েছে।

আল জাজিরা টেলিভিশনে শরীয়াহ এবং জীবন নামক তার অনুষ্ঠান তাকে পৃথিবীব্যাপি পরিচিত করে তোলে। তিনি মিশর ভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংগঠন মুসলিম ব্রাদারহুড এর পরামর্শক। তাকে ব্রাদারহুড়ের শীর্ষস্থানীয় নেতা মনে করা হয়। তিনি আলেমদের আন্তর্জাতিক সংগঠন ইত্তেহাদুল আলামী লি উলামাইল মুসলিমীন এর সভাপতি ছিলেন।

ইসলামী শিক্ষায় অবদানের জন্য বাদশাহ ফয়সাল আন্তর্জাতিক পুরস্কারের জন্য তাকে  মনোনিত করা হয়। মুসলিম বিশ্বের নোবেল খ্যাত এ পদক তিনি পান ১৪১৩ হিজরীতে।

মিশরীয় ধর্মীয় নেতা কারযাভী কাতারে বসবাস করতেন। ২০১৩ সালে মুসলিম ব্রাহারহুডের নেতা মোহাম্মদ মুরসিকে ক্ষমতাচ্যুত করে মিশরের ক্ষমতা দখল করেন তৎকালীন সেনাপ্রধান আব্দুল ফাতাহ আল সিসি। কারযাভী আব্দুল ফাতাহ আল সিসির একজন কঠোর সমালোচক ছিলেন। এ কারণে ২০১৩ সালের পর আর নিজ দেশ মিশরে ফিরতে পারেনি ইউসুফ-আল-কারযাভী।

সাপ্তাহিক আজকাল
সাপ্তাহিক আজকাল