ঢাকা, ২০২০-০৮-১৫ | ৩১ শ্রাবণ,  ১৪২৭
সর্বশেষ: 
অমিতাভের পর অভিষেকও করোনা আক্রান্ত বিশ্ব ধরেই নিচ্ছে বাংলাদেশ জালিয়াতির দেশ : শাহরিয়ার কবির ইরাকে মর্গের পাশে রাত কাটছে বাংলাদেশিদের! বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শক বাংলাদেশের সেঁজুতি সাহা সাহেদর টাকা থাকত নাসির, ইন্ডিয়ান বাবু ও স্ত্রী সাদিয়ার কাছে ‘বাংলাদেশিদের ভোট দিন’ মানবতার সেবায় কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ অনিশ্চিতায় ফেরদৌস খন্দকার কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা থামছেই না বিক্ষোভ অব্যাহত গভর্নরের সিদ্ধান্ত মানছে না মেয়র অভিবাসীরা জিতলেন হারলেন ট্রাম্প করোনার ধাক্কা - মে মাসে রপ্তানি কমেছে ২০ হাজার কোটি টাকার পুলিশ সংস্কার বিল উঠলো মার্কিন কংগ্রেসে লাইফ সাপোর্টে থাকা নাসিমের জন্য মেডিকেল বোর্ড পুনর্গঠন আইসিইউ নিয়ে হাহাকার ঈদের ছুটিতে অনিরাপদ হয়ে উঠছে গ্রামগুলো ঘরে ঘরে ভুতুড়ে বিল, বিদ্যুৎ বিভাগ বলছে সমন্বয় হবে নিউইয়র্কে ‘ট্রাম্প ডেথ ক্লক’ নিউইয়র্কে জেবিবিএ’র পরিচালক ইকবালুর রশীদ লিটনের মৃত্যু নিজ আয়ে চলা শুরু করলো বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি কবে খুলবে নিউইয়র্ক নিউইয়র্কে এবার নতুন ভাইরাসে শিশুরা আক্রান্ত

নিউইয়র্ককে ছাড়িয়ে গেল ফ্লোরিডা ক্যালিফোর্নিয়া

প্রকাশিত: ০৫:৫৬, ৩১ জুলাই ২০২০  


আজকাল রিপোর্ট
করোনা সংক্রমণে নিউইয়র্ককে ছাড়িয়ে গেছে ক্যালিফোর্নিয়া ও ফ্লোরিডা। বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য বিভাগের প্রকাশিত পরিসংখ্যানে উঠে এসেছে এমন তথ্য। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ক্যালিফোনিয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ হাজার ৬০৯ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে রাজ্যটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো চার লাখ ৮৭ হাজার ৪৭৮।  ফ্লোরিডায়ও একদিনে নতুন করে আরও ৯ হাজার ৪৪৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এই রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা চার লাখ ৫১ হাজার ৪২৩ জন। গতকাল বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রে মোট এক হাজার ৪৮৫ জন মারা গেছেন।
এর আগে যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি করোনা আক্রান্ত স্টেট ছিল নিউইয়র্ক। সেখানে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা চার লাখ ৪২ হাজার ৬০। নিউইয়র্কে গত চব্বিশ ঘন্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭৯৮ জন।
আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটার-এর হিসাব অনুযায়ী, বিশ্বজুড়ে এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে এ পর্যন্ত ৪৫ লাখ ৬৮ হাজার ৩৭ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে এক লাখ ৫৩ হাজার ৮৪০ জনের মৃত্যু হয়েছে।
২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে ছড়িয়ে পড়ে করোনাভাইরাস। উৎপত্তিস্থল চীনে ৮৩ হাজারেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হলেও সেখানে ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব কমে গেছে। তবে বিশ্বের অন্যান্য দেশে এই ভাইরাসের প্রকোপ বাড়ছে। চীনের বাইরে করোনাভাইরাসের প্রকোপ ১৩ গুণ বৃদ্ধি পাওয়ার প্রেক্ষাপটে গত ১১ মার্চ দুনিয়াজুড়ে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।
আমেরিকার দুই মহাদেশ ও দক্ষিণ এশিয়ায় সংক্রমণ এখনও দ্রুত বাড়ছে। অন্যদিকে ইউরোপকে লন্ডভন্ড করে দিয়ে করোনা কিছুটা স্তিমিত হলেও সেখানে আবারও নতুন করে রোগটির প্রাদুর্ভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে। তবে আশার কথা হচ্ছে, এখন আক্রান্তের পর সুস্থ হওয়ার হার দ্রুত বাড়ছে।

 

সর্বশেষ
জনপ্রিয়