ঢাকা, ২০২০-০৮-১৫ | ৩১ শ্রাবণ,  ১৪২৭
সর্বশেষ: 
অমিতাভের পর অভিষেকও করোনা আক্রান্ত বিশ্ব ধরেই নিচ্ছে বাংলাদেশ জালিয়াতির দেশ : শাহরিয়ার কবির ইরাকে মর্গের পাশে রাত কাটছে বাংলাদেশিদের! বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শক বাংলাদেশের সেঁজুতি সাহা সাহেদর টাকা থাকত নাসির, ইন্ডিয়ান বাবু ও স্ত্রী সাদিয়ার কাছে ‘বাংলাদেশিদের ভোট দিন’ মানবতার সেবায় কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ অনিশ্চিতায় ফেরদৌস খন্দকার কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা থামছেই না বিক্ষোভ অব্যাহত গভর্নরের সিদ্ধান্ত মানছে না মেয়র অভিবাসীরা জিতলেন হারলেন ট্রাম্প করোনার ধাক্কা - মে মাসে রপ্তানি কমেছে ২০ হাজার কোটি টাকার পুলিশ সংস্কার বিল উঠলো মার্কিন কংগ্রেসে লাইফ সাপোর্টে থাকা নাসিমের জন্য মেডিকেল বোর্ড পুনর্গঠন আইসিইউ নিয়ে হাহাকার ঈদের ছুটিতে অনিরাপদ হয়ে উঠছে গ্রামগুলো ঘরে ঘরে ভুতুড়ে বিল, বিদ্যুৎ বিভাগ বলছে সমন্বয় হবে নিউইয়র্কে ‘ট্রাম্প ডেথ ক্লক’ নিউইয়র্কে জেবিবিএ’র পরিচালক ইকবালুর রশীদ লিটনের মৃত্যু নিজ আয়ে চলা শুরু করলো বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি কবে খুলবে নিউইয়র্ক নিউইয়র্কে এবার নতুন ভাইরাসে শিশুরা আক্রান্ত

সোমবার থেকে খুলছে সেলুন ও রেস্টুরেন্ট

গভর্নরের সিদ্ধান্ত মানছে না মেয়র

প্রকাশিত: ০১:৪৬, ২০ জুন ২০২০   আপডেট: ০১:৪৮, ২০ জুন ২০২০



আজকাল রিপোর্ট
নিউইয়র্ক সিটিতে অনেক কিছুই খুলে দেয়া হচ্ছে। কোভিড-১৯ প্রকোপ কমে যাওয়ায় এবার দ্বিতীয় পর্যায়ে সোমবার থেকে খোলা হচ্ছে হেয়ার সেলুন, বারবারশপ এবং বাইরের খাবার দোকান। গভর্নর অ্যান্ড্রু ক্যুমো এ ঘোষণা দিয়েছেন। তার কিছুক্ষণ আগে অবশ্য মেয়র বিল ডি ব্লাসিও দ্বিতীয় পর্যায়ে খোলার সুনির্দিষ্ট দিনক্ষণ দিতে অস্বীকার করেছিলেন। ব্লাসিও তখন বলেন, নগরীতে সাম্প্রতিক বিক্ষোভের কারণে কোভিড-১৯ বেড়ে গেছে কিনা তা দেখে সিদ্ধান্ত নিতে চান তিনি। বিক্ষোভের কোনও প্রভাব পড়েছে কিনা সেটা স্বাস্থ্য বিভাগ জানে।
মেয়র ব্লাসিও বলেন, সোমবার খোলার সম্ভাবনা আছে। তবে তিনি আগে বলেছিলেন, জুলাইয়ের আগে দ্বিতীয় পর্যায়ের খোলা নাও হতে পারে।
তবে অ্যান্ড্রু ক্যুমো বলেন, প্রাণঘাতী ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নিউইয়র্ক নগরী উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি সাধন করেছে। স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে যাওয়ার পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণে নগরী প্রস্তুত রয়েছে। তিনি বলেন, ‘নগরী সামনে এগিয়ে যাওয়ার মানদন্ড পুরা করেছে। নিউইয়র্ক সিটি দ্বিতীয় পর্যায়ে প্রবেশ করবে সোমবার’।
নিউইয়র্কে দ্বিতীয় পর্যায়ে খুচরা দোকান খুলবে। কিছু অফিস, উপাসনালয়, রিয়েল স্টেট অফিস এবং কার ডিলারশিপও সীমিত আকারে খোলা হবে। হেয়ার সেলুন এবং বারাবারশপ সীমিত আকারে (৫০ শতাংশ ক্যাপাসিটি) খুলবে। রেস্তোরাঁগুলোও তাদের আউটডোর ৫০ শতাংশ ক্যাপাসিটিতে খুলবে। এক্ষেত্রে, গ্রাহক এবং স্টাফদের মুখে মাস্ক পড়তে হবে।
নিউইয়র্ক সিটিতে সন্দেহভাজন কোভিড রোগীদের নতুন করে হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা নাটকীয়ভাবে কমে গেছে। নগরীর লক্ষ্য ছিল দিনে দুইশ’ জনের কম রোগী হাসপাতালে ভর্তি হবে। বাস্তবে ভর্তি হয়েছেন ৫৫ জন। এটা টার্গেটের চেয়ে অনেক কম।
নগরীর যেসব বাসিন্দা পরীক্ষা করিয়েছেন তাদের মধ্যে মাত্র দুই শতাংশের মধ্যে কোভিড-১৯ পাওয়া গেছে।
তবে যুক্তরাষ্ট্রের অন্যান্য স্টেটে করোনা আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। চলমান বর্ণবাদ বিরোধী বিক্ষোভের মধ্যে নিউইয়র্কেও আবার আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন অনেকে।

 

আরও পড়ুন
নিউইয়র্ক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
সর্বশেষ
জনপ্রিয়