ঢাকা, ২০২০-১১-২৮ | ১৪ অগ্রাহায়ণ,  ১৪২৭
সর্বশেষ: 
অমিতাভের পর অভিষেকও করোনা আক্রান্ত বিশ্ব ধরেই নিচ্ছে বাংলাদেশ জালিয়াতির দেশ : শাহরিয়ার কবির ইরাকে মর্গের পাশে রাত কাটছে বাংলাদেশিদের! বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শক বাংলাদেশের সেঁজুতি সাহা সাহেদর টাকা থাকত নাসির, ইন্ডিয়ান বাবু ও স্ত্রী সাদিয়ার কাছে ‘বাংলাদেশিদের ভোট দিন’ মানবতার সেবায় কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ অনিশ্চিতায় ফেরদৌস খন্দকার কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা থামছেই না বিক্ষোভ অব্যাহত গভর্নরের সিদ্ধান্ত মানছে না মেয়র অভিবাসীরা জিতলেন হারলেন ট্রাম্প করোনার ধাক্কা - মে মাসে রপ্তানি কমেছে ২০ হাজার কোটি টাকার পুলিশ সংস্কার বিল উঠলো মার্কিন কংগ্রেসে লাইফ সাপোর্টে থাকা নাসিমের জন্য মেডিকেল বোর্ড পুনর্গঠন আইসিইউ নিয়ে হাহাকার ঈদের ছুটিতে অনিরাপদ হয়ে উঠছে গ্রামগুলো ঘরে ঘরে ভুতুড়ে বিল, বিদ্যুৎ বিভাগ বলছে সমন্বয় হবে নিউইয়র্কে ‘ট্রাম্প ডেথ ক্লক’ নিউইয়র্কে জেবিবিএ’র পরিচালক ইকবালুর রশীদ লিটনের মৃত্যু নিজ আয়ে চলা শুরু করলো বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি কবে খুলবে নিউইয়র্ক নিউইয়র্কে এবার নতুন ভাইরাসে শিশুরা আক্রান্ত

করোনায় খালেক খায়েরের মুত্যু তিনজনের একই যাত্রাপথ

প্রকাশিত: ০২:৫৬, ১৪ নভেম্বর ২০২০  


 
আজকাল রিপোর্ট
তাঁরা ৩ জন। সবাই নিউইয়র্কে বাংলাদেশি কমিউনিটিতে পরিচিত মুখ। আমেরিকায় বাংলাদেশিদের বৃহত্তম সংগঠন বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচিত নেতা ছিলেন। কামাল আহমেদ সভাপতি ও কার্যনির্বাহী সদস্য ছিলেন আজাদ বাকির। তাঁরা কয়েক মাস আগে মারা যান করোনা আক্রমণে। ভাইস প্রেসিডেন্ট আব্দুল খালেক খায়ের গত সোমবার একই রোগে মারা যান।
ওইদিন রাত ৮টায় তিনি নিউইয়র্কের লং আইল্যান্ড জ্ইুস হাসপাতালে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নাল্লিাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজেউন)। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ৩ সপ্তাহ ধরে তিনি ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।
মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে এবং দুই মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। মরহুম আব্দুল খালেক খায়ের যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি, বৃহত্তর নোয়াখালী সোসাইটির উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এবং বৃহত্তর বেগমগঞ্জ সোসাইটির প্রতিষ্ঠা সভাপতি ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত ছিলেন। তার মৃত্যুর খবরে কমিউনিটিতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
গত ফেব্রুয়ারিতে মহান একুশে ফেব্রুয়ারি পালনের এক অনুষ্ঠানে একই ফ্রেমে বন্দী হন বাংলাদেশ সোসাইটির তিন নেতাÑ কামাল আহমেদ, আজাদ বাকির ও আবদুল খালেক খায়ের। আজ তারা তিনজনই অতীত, স্মৃতি। কমিউনিটির বিশিষ্ট নেতারা বলেছেন, ভাবা যায় না, মোটামুটি সুস্থ সবল তিনজন মানুষকে করোনা কিভাবে কেড়ে নিল। তিনজনই একই পথের যাত্রী হলেন। তারা আরও বলেন, এই তিন নেতা বেঁচে থাকবেন প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটির মনের কোণে। ওপারে তারা ভাল থাকবেন এটাই আমাদের প্রত্যাশা।
প্রসঙ্গত, যুক্তরাষ্ট্রে ১০.৪ মিলিয়ন মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ২ লাখ ৪৩ হাজার। এরমধ্যে শুধুমাত্র নিউইয়র্কেই মারা গেছেন অন্তত তিনশ বাংলাদেশি।

 

নিউইয়র্ক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
সর্বশেষ
জনপ্রিয়