ঢাকা, ২০২০-০৮-১৫ | ৩১ শ্রাবণ,  ১৪২৭
সর্বশেষ: 
অমিতাভের পর অভিষেকও করোনা আক্রান্ত বিশ্ব ধরেই নিচ্ছে বাংলাদেশ জালিয়াতির দেশ : শাহরিয়ার কবির ইরাকে মর্গের পাশে রাত কাটছে বাংলাদেশিদের! বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শক বাংলাদেশের সেঁজুতি সাহা সাহেদর টাকা থাকত নাসির, ইন্ডিয়ান বাবু ও স্ত্রী সাদিয়ার কাছে ‘বাংলাদেশিদের ভোট দিন’ মানবতার সেবায় কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ অনিশ্চিতায় ফেরদৌস খন্দকার কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা থামছেই না বিক্ষোভ অব্যাহত গভর্নরের সিদ্ধান্ত মানছে না মেয়র অভিবাসীরা জিতলেন হারলেন ট্রাম্প করোনার ধাক্কা - মে মাসে রপ্তানি কমেছে ২০ হাজার কোটি টাকার পুলিশ সংস্কার বিল উঠলো মার্কিন কংগ্রেসে লাইফ সাপোর্টে থাকা নাসিমের জন্য মেডিকেল বোর্ড পুনর্গঠন আইসিইউ নিয়ে হাহাকার ঈদের ছুটিতে অনিরাপদ হয়ে উঠছে গ্রামগুলো ঘরে ঘরে ভুতুড়ে বিল, বিদ্যুৎ বিভাগ বলছে সমন্বয় হবে নিউইয়র্কে ‘ট্রাম্প ডেথ ক্লক’ নিউইয়র্কে জেবিবিএ’র পরিচালক ইকবালুর রশীদ লিটনের মৃত্যু নিজ আয়ে চলা শুরু করলো বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি কবে খুলবে নিউইয়র্ক নিউইয়র্কে এবার নতুন ভাইরাসে শিশুরা আক্রান্ত

করোনাকালে ফল খাওয়ার আগে

প্রকাশিত: ০৬:২২, ৩০ জুন ২০২০  

করোনায় ফল খাওয়ার ক্ষেত্রে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। ফল বাজার থেকে আনার পর কী করতে হবে পরামর্শ দিয়েছেন ইবনে সিনা হাসপাতালের চিকিৎসক ও অধ্যাপক মোহাম্মদ লুত্ফুল কবির। শুনেছেন এ এস এম সাদ। করোনার এই সময় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য অন্যান্য খাবারের সঙ্গে নিয়মিত ফল খাওয়া জরুরি। দিনে অন্তত দুবেলা ফল খাওয়ার চেষ্টা করুন। কিন্তু বাজার থেকে আনার পর সাবধানতা অবলম্বন করে প্যাকেট থেকে ফল বের করে ধুয়ে খেতে হবে।

প্যাকেট সাবধানে ফেলা

বাজার থেকে আনা ফলের প্যাকেট দ্রুত ডাস্টবিনে ফেলে দিন। প্যাকেটে করোনাভাইরাস থাকার কোনো বৈজ্ঞানিক প্রমাণ না মিললেও সতর্ক থাকা জরুরি। তাই যে প্যাকেটে ফল আনা হয়েছে তা ঘরের কোথাও না রাখাই ভালো। ফেলে দেওয়ার সময় সাবধানে ফেলুন, যেন ডাস্টবিনের বাইরে না পড়ে।

হাত পরিষ্কার করুন

নিজের হাত পরিষ্কার করে তারপর ফল পরিষ্কার করতে হবে। ভালো করে সাবান কিংবা হ্যান্ডওয়াশ দিয়ে হাত ধুয়ে নিন। অপরিষ্কার হাত থেকে খাদ্য উপাদানেও ছড়াতে পারে এ ভাইরাস। অন্তত ২০ সেকেন্ড সময় নিয়ে হাত ধুয়ে তবেই ফল ও সবজি পরিষ্কারে হাত দিতে হবে। তবে বাইরে থেকে এলে কনুই পর্যন্ত হাত ধুয়ে নেওয়া ভালো।

প্রবহমান পানির ব্যবহার

প্রবহমান পানি অর্থাৎ জোরে পানির ট্যাপ ছেড়ে তার নিচে ফল পরিষ্কার করতে হবে। কোনো পাত্রে সীমিত পানি নিয়ে ফল ধুলে জীবাণু থাকার আশঙ্কা থেকে যায়। অনেক গবেষণা এই ধরনের বার্তা দিচ্ছে। তাই নিজের ও নিজের পরিবারের সুরক্ষায় এখন আমাদের ধৈর্য ও সময় নিয়ে ফল পরিষ্কার করতে হবে। যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) বলছে, প্রবহমান পানির নিচে খাদ্য উপাদান পরিষ্কার করা হলে পানির তোড়ের সঙ্গে ময়লা ও জীবাণু ধুয়ে চলে যায়। সেই সঙ্গে হাতের সাহায্যে আলতোভাবে ঘষে পরিষ্কার করতে হবে ফল ও সবজি।

কচলে ধুতে হবে

এখানে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে, ফলটি কচলে ধুতে হবে। প্রবহমান পানির মধ্যে হাত দিয়ে ফল কচলে ধুয়ে নিলে জীবাণু চলে যায়। আরো সুরক্ষার জন্য ব্রাশ বা স্পঞ্জ ব্যবহার করতে পারেন। এফডিএরও এটাই সুপারিশ।

সাবান বা ডিটারজেন্ট নয়

কোনো অবস্থায় খাবারে সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার করে যাবে না। সাবান পেটে চলে গেলে বিপত্তি ঘটবে। তাই খাবারে কোনো ধরনের সাবান ও ডিটারজেন্ট ব্যবহার করা চলবে না।

পাতাযুক্ত ও নরম ফল

এখন লিচুর সময়, তাই সেটাও খাওয়া হবে। কিন্তু বাজার থেকে আনার আগেই বাইরে থেকে পাতাগুলো ফেলে দিয়ে এলে ভালো হয়। এ ছাড়া কলা কিংবা এ রকম নরম ফল প্রবহমান পানির নিচে একটু সময় নিয়ে ধুয়ে নিতে হবে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়