ঢাকা, ২০২০-০৮-১৫ | ৩১ শ্রাবণ,  ১৪২৭
সর্বশেষ: 
অমিতাভের পর অভিষেকও করোনা আক্রান্ত বিশ্ব ধরেই নিচ্ছে বাংলাদেশ জালিয়াতির দেশ : শাহরিয়ার কবির ইরাকে মর্গের পাশে রাত কাটছে বাংলাদেশিদের! বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শক বাংলাদেশের সেঁজুতি সাহা সাহেদর টাকা থাকত নাসির, ইন্ডিয়ান বাবু ও স্ত্রী সাদিয়ার কাছে ‘বাংলাদেশিদের ভোট দিন’ মানবতার সেবায় কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ অনিশ্চিতায় ফেরদৌস খন্দকার কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা থামছেই না বিক্ষোভ অব্যাহত গভর্নরের সিদ্ধান্ত মানছে না মেয়র অভিবাসীরা জিতলেন হারলেন ট্রাম্প করোনার ধাক্কা - মে মাসে রপ্তানি কমেছে ২০ হাজার কোটি টাকার পুলিশ সংস্কার বিল উঠলো মার্কিন কংগ্রেসে লাইফ সাপোর্টে থাকা নাসিমের জন্য মেডিকেল বোর্ড পুনর্গঠন আইসিইউ নিয়ে হাহাকার ঈদের ছুটিতে অনিরাপদ হয়ে উঠছে গ্রামগুলো ঘরে ঘরে ভুতুড়ে বিল, বিদ্যুৎ বিভাগ বলছে সমন্বয় হবে নিউইয়র্কে ‘ট্রাম্প ডেথ ক্লক’ নিউইয়র্কে জেবিবিএ’র পরিচালক ইকবালুর রশীদ লিটনের মৃত্যু নিজ আয়ে চলা শুরু করলো বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি কবে খুলবে নিউইয়র্ক নিউইয়র্কে এবার নতুন ভাইরাসে শিশুরা আক্রান্ত

যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী তরুণীর লাশ মিলল মিশরের হোটেলে

একাকী খুকির বেপরোয়া জীবনই কাল হলো!

প্রকাশিত: ০৬:৩৮, ২৫ জুলাই ২০২০  



আজকাল রিপোর্ট
নিউইয়র্ক ও নিউজার্সির পরিচিত মুখ বিউটি এক্সপার্ট বাংলাদেশি আমেরিকান ফাতেমা খান খুকির (৪৪) মরদেহ মিশরের কায়রোর একটি হোটেল থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। কয়েকদিন আগে খুকি ব্যক্তিগত ভ্রমণে কায়রো গিয়েছিলেন। সেখানে গত মঙ্গলবার হোটেল কক্ষে তাঁকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় পুলিশ। জানা গেছে, প্রেমঘটিত কারণে এ হত্যাকান্ড ঘটে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ ইতিমধ্যে হোটেল ম্যানেজার, রুমবয় সহ নিহত খুকির এক মিসরীয় বন্ধুকে গ্রেফতার করেছে। মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই এবং মিশরীয় গোয়েন্দা বাহিনী আমান উদ দৌলা যৌথভাবে হত্যাকান্ডের তদন্ত করছে।
ফাতেমা খান খুকির ঘনিষ্ট একজন বান্ধবী নামপ্রকাশ না করার শর্তে আজকালকে বলেন, খুকি বেশ অনেকদিন ধরেই একাকী ছিলেন। তিনি সব সময় একজন সঙ্গী খুঁজতেন। তিনি আরও জানান, ‘সম্প্রতি অনলাইনে একটি ডেটিং সাইটে মিশরের এক ছেলের সাথে তাঁর পরিচয় হয়। ধারণা করি, ওই ছেলের সাথে দেখা করতেই সে মিশরে গিয়েছিল।’ অপর একটি সূত্র জানায়, খুকি ঘনিষ্ট কয়েকজন বন্ধুকে বলে গিয়েছিলেন, তিনি পাস্টিক সার্জারি করতে মিশরের কায়রো যাচ্ছেন। খুকির ভারতীয় এক ছেলে বন্ধু তাঁকে কায়রোতে যাওয়ার দিন বিমানবন্দরে নামিয়ে দেন। তাঁকেও একই কথা বলেছিলেন খুকি।
জানা গেছে, খুকি ছিলেন ডিভোর্সি। তাঁর কোনো সন্তান ছিল না। সুন্দরী, স্মার্ট খুকি চাকরি করতেন যুক্তরাষ্ট্রের কারেকশন ডিপার্টমেন্টে। সেখানকার চাকরি ছেড়ে দিয়ে তিনি কিছুদিন মেসি’জ এ কাজ করেছেন। তিনি ছিলেন একজন বিউটি এক্সপার্ট। তবে বেশ কিছুদিন ধরে তিনি কোনো কাজ করছিলেন না। আইটিতে পড়াশোনা করছিলেন। থাকতেন নিউইয়র্ক সংলগ্ন নিউজার্সির একটি এলাকায়। সেখানে আরও তিনজন বান্ধবীর সাথে একটি বাসা শেয়ার করে থাকতেন তিনি। তবে পেনসিলভেনিয়ায় খুকির একটি কেনা বাড়ি রয়েছে বলে জানা গেছে। স্থানীয় একজন বিএনপি নেতা বাড়িটি তত্ত্বাবধান করেন বলে জানা গেছে।
বিভিন্ন সূত্র জানায়, খুকি আর্থিকভাবে স্বচ্ছল ছিলেন। কিন্তু সব সময় একাকী বোধ করতেন। এজন্য তিনি সঙ্গী খুঁজতেন। আর এজন্য বেপোরোয়া ছিলেন তিনি। শেষমেষ সেই সঙ্গীর খোঁজেই গিয়েছিলেন মিশরের কায়রোতে। সেটাই তাঁর কাল হলোÑ জানালেন তাঁরই এক বান্ধবী।
জানা গেছে, ফেইসবুকে ‘রাসেল’ নামে একটি একাউন্ট ছিল খুকির। ঢাকায় খুকির পরিবারের ঘনিষ্ট একটি সূত্র আজকালকে জানায়, খুকি চাইতো না পরিচিতজনরা তাঁকে খুঁজে পাক। এজন্য সে নাম, পরিচয় গোপন করে ফেইসবুকে একাউন্ট খুলেছিল। সূত্রটি বলে, “একদিন দেখলাম ‘রাসেল’ থেকে একাউন্টটি ‘ফাতেমা খান খুকি’ হয়ে গেছে।”
মিশরে কায়রোতে হোটেল কক্ষে খুকির মৃতদেহ উদ্ধারের পর স্থানীয় পুলিশ তদন্তে নেমেছে। তদন্ত করছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই। জানা গেছে, খুকির পরিবার চাইলেও তাঁর মরদেহ কায়রো থেকে সরাসরি বাংলাদেশে পাঠানো হচ্ছে না। মার্কিন নাগরিক হওয়ার কারণে তাঁর মরদেহ আনা হবে যুক্তরাষ্ট্রে। খুকির মা প্রতি বছরই যুক্তরাষ্ট্রে আসেন। তিনি একজন ক্যান্সার রোগী।
গত মঙ্গলবার মিশরের কায়রোর মার্কিন দূতাবাস বাংলাদেশে ফাতেমা খান খুকির বোনকে টেলিফোনে মৃত্যুর খবরটি জানায়। এরপর পরিবার থেকে খুকির বান্ধবীদের জানানো হলে মৃত্যুর খবরটি নিউইয়র্ক ও নিউজার্সিতে তাঁর পরিচিত মহল জানাজানি হয়।
গত বুধবার ফাতেমা খান খুকির মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে ফেইসবুকে একটি পোস্ট দেন তাঁর বান্ধবী জাতীয় পার্টির নেত্রী শাহজাদী নাহিনা নূর। শাহজাদী তাঁর ফেইসবুক পেইজে লিখেন, ‘আমাদের প্রিয় দোস্ত ফাতেমা খান খুকি আর নেই। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। কোভিড নাইনটিনে আক্রান্ত হয়ে নয়, সাত দিন আগে তাঁর লাশ পাওয়া গেছে মিশরের একটি হোটেলে। এইমাত্র আমাকে এক বন্ধু বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।’ শাহজাদী আরও লিখেন, ‘গত সপ্তাহেই (১১ জুলাই) তাঁর জন্মদিন ছিল। আমি বাকরুদ্ধ। কে তাঁকে হত্যা করলো কিংবা কিভাবে সে মারা গেল, তার কারণ কেউ জানে না। খুকি, কেন তুমি মিশর গিয়েছিলে?’
খুকির বান্ধবী নিউইয়র্কের টিভি উপস্থাপিকা শারমিনা সিরাজ সোনিয়া বলেন, ‘আমিও খবরটি পেয়েছি। আমি কোনোভাবেই বিষয়টি মেনে নিতে পারছি না। খুকি কেন মিশর গিয়েছিল, কারো সাথে গিয়েছিল কি-না, কিংবা কারো সাথে দেখা করতে গিয়েছিল কি-না তার কোনো কিছুই আমরা পরিস্কারভাবে জানি না। পুরো বিষয়টি রহস্যাবৃত।’

 

সারা বিশ্ব বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
সর্বশেষ
জনপ্রিয়