শুক্রবার   ০৭ অক্টোবর ২০২২   আশ্বিন ২২ ১৪২৯   ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
চুক্তিতে বিয়ে করে ইউরোপে পাড়ি আইফোন ১৪ প্রোর ক্যামেরায় নতুন দুই সমস্যা পায়ের কিছু অংশ কাটা হলো গায়ক আকবরের ১৫ দিনে রেমিট্যান্স এসেছে ১০০ কোটি ডলার নারী ফুটবলে দক্ষিণ এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে আবার বাড়লো স্বর্ণের দাম
৩৭

বিএনপির জন্য নির্বাচন বসে থাকবে না: কাদের

প্রকাশিত: ৩ মার্চ ২০১৯  

উপজেলা নির্বাচনে অংশ না নিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ধ্বংসের পথে আরো একধাপ এগিয়ে গেলো বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

শনিবার দুপুরে ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, বিএনপির জন্য নির্বাচন বা সংবিধান কোনো কিছুই বসে থাকবে না। উপজেলা নির্বাচনে অংশ না নেওয়ার নির্দেশনা বিএনপির তৃণমূল মানেনি।

 

উপজেলা নির্বাচনে মন্ত্রী এমপিদের নির্বাচনী এলাকায় আচরণবিধি লঙ্ঘন না করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচন ব্যবস্থা পুরোপুরি প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেওয়ার আগে কিছু কিছু ভুল ত্রুটি ওভারকাম করতে হবে। আমরা ইলেকশন করতে করতে একটা সময় দেখা যাবে গণতন্ত্র প্রাতিষ্ঠানিক রূপ নিয়েছে। তখন এ ধরনের ত্রুটি বিচ্যুতি আসবে না।

সুবিধা বুঝে বিএনপি নির্বাচন করে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আগে তারা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে অংশ নিয়েছিল। তখন চারটিতেই জিতেছিল। তাতে তো আকাশ ভেঙে পড়েনি। বিএনপি যেভাবে একের পর এক নির্বাচন বয়কট শুরু করেছে তাতে আগামী জাতীয় নির্বাচনে তাদের অবস্থা আরো খারাপ হবে। নির্বাচন থেকে দূরে সরে যাওয়া মোটেও গণতান্ত্রিক পথ নয়।

সিটি কর্পোরেশনে কাউন্সিলর পদের মতো ভাইস চেয়ারম্যান পদ ওপেন করে দেয়া হয়েছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, সিটি কর্পোরেশনে আমরা কাউন্সিলর পদ ওপেন করে দিয়েছিলাম। উপজেলায়ও প্রথম ভাইস চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দিতে চেয়েছিলাম। পরে আমরা তা ওপেন করে দিয়েছি। তাই এখানেও প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে।

 

বিএনপি দলগতভাবে না আসলেও তাদের তৃণমূল অংশ নিচ্ছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, এখানে বিএনপি না চাইলেও গত তিনটি ধাপে তাদের অনেকে অংশ নিয়েছে। তাদের কথা তৃণমূল শুনেনি। গত নির্বাচনেও প্রথম তিন ধাপে বিএনপিই বেশি সংখ্যা জিতেছিল। তাদের মধ্যে অনেকেই এবারো প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

সাপ্তাহিক আজকাল
সাপ্তাহিক আজকাল
এই বিভাগের আরো খবর