ঢাকা, ২০২১-০৯-২৬ | ১১ আশ্বিন,  ১৪২৮
সর্বশেষ: 
অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় হস্তক্ষেপ না করার ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্র বিচার ১২৩ বছর আগে গ্রেপ্তার গাছ, শেকলে বন্দি আজো ফ্রান্স প্রেসিডেন্টকে চড় মারার মাশুল কতটা? কুরআনের আয়াত বাতিলে ‘ফালতু’ রিট করায় আবেদনকারীকে জরিমানা আদালতের দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদনে নতুন রেকর্ড ওয়াক্ত ও তারাবি নামাজের জামাতে সর্বোচ্চ ২০ জন বিদেশে মারা গেছে ২৭০০ বাংলাদেশি আর্থিক ক্ষতি মেনেই সাঙ্গ হলো বইমেলা সুন্দরী মডেলের অপহরণ চক্র ! মোটরসাইকেল উৎপাদনে বিপ্লবে দেশ যুক্তরাজ্যে করোনার আরও মারাত্মক ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত ৮ থেকে ১২ সপ্তাহ বিরতিতে অক্সফোর্ডের টিকা বেশি কার্যকর সবাই সপরিবারে নির্ভয়ে করোনা ভ্যাকসিন নিন: প্রধানমন্ত্রী শেষ রাতে দু’রাকাত নামাজ জীবন পরিবর্তন করে দিতে পারে নতুন করোনাভাইরাস আতঙ্কে ইউরোপ-আমেরিকার শেয়ারবাজারে ধস জুনের মধ্যে আসছে আরও ৬ কোটি করোনার টিকা বাড়িভাড়ায় নাভিশ্বাস, ফের বাড়ানোর পাঁয়তারা অমিতাভের পর অভিষেকও করোনা আক্রান্ত বিশ্ব ধরেই নিচ্ছে বাংলাদেশ জালিয়াতির দেশ : শাহরিয়ার কবির ইরাকে মর্গের পাশে রাত কাটছে বাংলাদেশিদের! বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শক বাংলাদেশের সেঁজুতি সাহা সাহেদর টাকা থাকত নাসির, ইন্ডিয়ান বাবু ও স্ত্রী সাদিয়ার কাছে ‘বাংলাদেশিদের ভোট দিন’ মানবতার সেবায় কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ অনিশ্চিতায় ফেরদৌস খন্দকার কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা থামছেই না বিক্ষোভ অব্যাহত গভর্নরের সিদ্ধান্ত মানছে না মেয়র অভিবাসীরা জিতলেন হারলেন ট্রাম্প করোনার ধাক্কা - মে মাসে রপ্তানি কমেছে ২০ হাজার কোটি টাকার পুলিশ সংস্কার বিল উঠলো মার্কিন কংগ্রেসে লাইফ সাপোর্টে থাকা নাসিমের জন্য মেডিকেল বোর্ড পুনর্গঠন আইসিইউ নিয়ে হাহাকার ঈদের ছুটিতে অনিরাপদ হয়ে উঠছে গ্রামগুলো ঘরে ঘরে ভুতুড়ে বিল, বিদ্যুৎ বিভাগ বলছে সমন্বয় হবে নিউইয়র্কে ‘ট্রাম্প ডেথ ক্লক’ নিউইয়র্কে জেবিবিএ’র পরিচালক ইকবালুর রশীদ লিটনের মৃত্যু নিজ আয়ে চলা শুরু করলো বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি কবে খুলবে নিউইয়র্ক নিউইয়র্কে এবার নতুন ভাইরাসে শিশুরা আক্রান্ত

আজকালকে শাহানা হানিফ

অভিবাসীদের সমস্যা নিয়ে কাজ করবো

প্রকাশিত: ০৫:১৪, ২৬ জুন ২০২১  



 
সোহেল মাহমুদ
শাহানা হানিফ বললেন, আমি উৎফুল্ল। গর্বিত বাংলাদেশি বাবা মায়ের সন্তান হিসেবে। একজন মুসলিম নারী হিসেবে। আপনাদের সবার স্বজন হিসেবে। ভোটার ও শুভানুধ্যায়ী সবার প্রতি আমার কৃতজ্ঞতা। নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিলে ডিস্ট্রিক্ট ৩৯-এ বাংলাদেশি এ তরুণী কাউন্সিলওমেন হিসেবে  জিততে চলেছেন। এটি এখন প্রায় নিশ্চিত। র‌্যাঙ্কিং চয়েস ভোটের জটিল হিসেব-নিকেশের পরও মনে করা হচ্ছে, শাহানাই বিজয়ী হবেন দলীয় প্রাইমারির এই নির্বাচনে।
বুধবার কেনসিংটনের রাঁধুনী রেস্টুরেন্টে আজকালের পক্ষে শাহানার সাথে কথা হয় এই প্রতিবেদকের। জানালেন, তিনি কৃতজ্ঞ সবার প্রতি। ভোটাররা তার প্রতি যে আস্থা রেখেছেন, সেটি যেন অব্যাহত রাখা যায়, সেজন্য কাজ করবেন তিনি। ৩৩ শতাংশেরও বেশি ভোট পাওয়া শাহানার সাথে তার কাছের প্রতিদ্বন্দ্বীর ভোটহারের ব্যবধান অন্তত ১০ শতাংশ। এরপরও ৫০ শতাংশ ভোট পাওয়ার বাধ্যবাধকতা কিভাবে পূরণ করবেন তিনি? শাহানা জানালেন, র‌্যাঙ্ক চয়েসের পদ্ধতি বেশ জটিল মনে হলেও এটি গণতন্ত্রের জন্য উপকারী। এ পদ্ধতিতে কোন প্রার্থী সরাসরি ভোটে যদি অন্তত ৫০ শতাংশ ভোট না পান, তাহলে তালিকার শেষ প্রার্থীর ব্যালটে তিনি দ্বিতীয় হিসেবে যা ভোট পেয়েছেন, সেগুলো যোগ হবে তার মূল ভোটে। এভাবে জটিল হিসেব-নিকেশের মাধ্যমে বিজয়ী নির্ধারণ করা হবে। তিনি বলেন, ‘নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীর সাথে আমার ভোটের যে ব্যবধান, তাতে আমি শতভাগ নিশ্চিত, জয় আমারই হবে।’
দলীয় প্রাইমারিতে জিতে যাওয়া মানে আপনি নভেম্বরের মূল নির্বাচনেও জিতে যাচ্ছেন, তাই না? ‘হ্যা।’ বললেন শাহানা।
ভয়ংকর ব্যাধি লুপাসের সাথে যুদ্ধ করে বেঁচে থাকা শাহানার বাবা-মা যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসী হয়েছেন চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি থেকে। বাবা মোহাম্মদ হানিফ যুক্তরাষ্ট্রে চট্টগ্রাম সমিতির সাবেক সভাপতি। ট্রাস্টিবোর্ডের চেয়ারম্যান। তিনি যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের রাজনীতি করেছেন দীর্ঘদিন। রাজনীতি সচেতন পরিবারে তিন কন্যা সন্তানের মধ্যে জ্যেষ্ঠ শাহানা নিউইয়র্কে পোগ্রেসিভ রাজনীতির সাথে জড়িত। কিশোরী থাকাবস্থায় মানুষের কল্যাণে, অভিবাসীদের জন্য আবাসন, শিক্ষা, চিকিৎসাসহ তাদের মৌলিক অধিকারের পক্ষে আন্দোলন করে আসছেন শাহানা। পড়াশোনা শেষ করে যোগ দিয়েছেন সিটি কাউন্সিলে কর্মকর্তা পদে। সংযুক্ত ছিলেন নিজের এলাকা ডিস্ট্রিক্ট থার্টি নাইনের কাউন্সিলমেম্বার ব্র্যাড লেন্ডারের অফিসে, ডাইরেক্টর অব অর্গানাইজিং এন্ড কমিউনিটি এনগেজমেন্ট পদে। এই অফিসে তখন তিনিই ছিলেন একমাত্র বাংলাদেশি।
দায়িত্ব নেবার পর প্রথম অগ্রাধিকার কি? সোজা উত্তর, ‘একটা নিরাপদ ডিস্ট্রিক্ট। আমি চাই, আমার এলাকায় কোন স্কুলে সমস্যা থাকবে না। মানুষের আবাসন নিয়ে সংকট থাকবে না। রাতারাতি সব হয়তো পাল্টাবে না। কিন্তু, শুরু করতে চাই। এই সিটিতে অভিবাসীদের সমস্যাগুলো নিয়ে ভাবার জন্য সময় এবং নেতৃত্ব দুটোই দরকার। আমাদের নিজেদের মধ্যে সম্প্রীতি আর সংহতির সংযোগটা বাড়াতে চাই আমি।’ শাহানা আরো যোগ করলেন, ‘বাংলাদেশিরা নিউইয়র্কে ইতিহাসের অংশ হতে যাচ্ছে। আমি সেই ইতিহাসের অংশ হিসেবে এমন কিছু করতে চাই, যেন সাধারণ মানুষ নিজেদের নিরাপত্তা, আবাসন, স্বাস্থ্যসেবা, শিক্ষা সুবিধা নিয়ে নিশ্চিন্তে থাকতে পারেন।’

 

Space For Advertisement Advertisement Advertisement Advertisement Advertisement Advertisement Advertisement Advertisement Advertisement Advertisement
সর্বশেষ
জনপ্রিয়