সোমবার , ১৮ ডিসেম্বর ২0১৭, Current Time : 1:40 am
  • হোম »জাতীয়» অনিয়ম, প্রতারণা ॥ শাস্তির মুখে ২২৮ হজ এজেন্সি




অনিয়ম, প্রতারণা ॥ শাস্তির মুখে ২২৮ হজ এজেন্সি

সাপ্তাহিক আজকাল : 07/12/2017

আগামী বছরের হজ চুক্তির আগেই শাস্তি দেয়া হচ্ছে ২২৮ হজ এজেন্সিকে। ইতোমধ্যেই এসব এজেন্সিকে চিহ্নিত করা হয়েছে। এখন চলছে কোন এজেন্সিকে কী ধরনের শাস্তি দেয়া হবে সেটার নীতিমালা প্রণয়নের কাজ। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আনিসুর রহমান বলেছেন, যে যতটুকু অপরাধ করেছে- তাকে ততটুকু শাস্তিই দেয়া হবে। কোন ধরনের তদবির বা ওজর-আপত্তি আমলে নেয়া হবে না। এদিকে হজের ওপর প্রথমবারের মত প্রকাশ করা হয়েছে হজ ক্যালেন্ডার। এই ক্যালেন্ডার অনুযায়ী-২০১৮ সালের ১০ জানুয়ারি থেকে ১৫ জানুয়ারির মধ্যে জেদ্দায় সৌদি-বাংলাদেশ দ্বিপক্ষীয় হজ চুক্তি সম্পন্ন হবে। সেখানে দ্বি-পক্ষীয় হজ চুক্তির পর হজ প্যাকেজ ঘোষণা করা হবে। সচিব আনিসুর রহমান জানিয়েছেন, হজ ব্যবস্থাপনা ঢেলে সাজাতে নতুন নতুন পরিকল্পনা ও উদ্যোগ গ্রহণ করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। এ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো হজ ক্যালেন্ডার প্রকাশ করা হয়েছে। এই ক্যালেন্ডারে প্রকাশিত সময়সূচি অনুযায়ী কার্যক্রম রক্ষা করা হবে। প্রকাশিত ক্যালেন্ডারে আগামী বছরের গোটা হজ ব্যবস্থাপনার ওপর অর্ধশত কার্যক্রমের সুনির্দিষ্ট দিনক্ষণ উল্লেখ করা আছে।

সে অনুযায়ী ২০১৮ সালের হজের বিভিন্ন কার্যক্রম শুরু হয়েছে গত ১ নবেম্বর থেকে। যা চলবে আগামী বছরের ১৪ আগস্ট পর্যন্ত। প্রকাশিত হজ ক্যালেন্ডারে হজের বিভিন্ন কাজের সম্ভাব্য শুরু ও শেষের তারিখ নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে বাস্তবায়নকারী কর্তৃপক্ষকে সেটাও বলে দেওয়া হয়েছে। এতে হজের বিভিন্ন কাজ নিয়ে মন্ত্রণালয়গুলো আর ফাইল চালাচালি নিয়ে গড়িমসি করার সুযোগ পাবে না। ফলে আগের চেয়ে হজ ব্যবস্থাপনা আরও স্বচ্ছ, গতিশীল ও কার্যকর হবে। ধর্ম সচিব আনিসুর রহমানের মতে, আসন্ন হজ উপলক্ষে সৌদি আরবের সঙ্গে বাংলাদেশের দ্বি-পক্ষীয় হজ চুক্তি ও হজযাত্রী সংখ্যা নির্ধারণ করা হবে ২০১৮ সালের ১৫ জানুয়ারির মধ্যে।

প্রাক-নিবন্ধন তালিকা থেকে নির্বাচিতরা নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা পরিশোধসাপেক্ষে চূড়ান্ত নিবন্ধন করতে পারবেন গোটা ফেব্রুয়ারি মাসে। এরই ধারাবাহিকতায় বিমান ও সৌদিয়া সিডিউল প্রকাশ করবে ১৫ এপ্রিল থেকে ৩০ এপ্রিলের মধ্যে। থার্ড ক্যারিয়ার চালু করা না হলে এ দুটো এয়ারলাইন্স ২ মে থেকে টিকিট বুকিং শুরু করবে। নতুন ক্যালেন্ডার অনুযায়ী হজের আগাম প্রস্তুুতির অন্যতম দিক হচ্ছে- প্রধানমন্ত্রী ২০১৮ সালের হজ কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন জুলাই মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে। সে হিসেবেই ১২ জুলাই থেকে শুরু হবে হজযাত্রী প্রেরণ। চলবে ২৪ আগস্ট পর্যন্ত।

এদিকে চলতি বছরের হজে নানা অনিয়ম ও প্রতারণার সঙ্গে জড়িত হজ এজেন্সিগুলোকে কঠোর শাস্তি পেতে হচ্ছে। এতে বিন্দুুমাত্র ছাড় দেওয়া হবে না বলে দৃঢ়তার সঙ্গে জানিয়েছেন ধর্মবিষয়ক সংসদীয় কমিটির সভাপতি বজলুল হক হারুন। ইতোমধ্যে প্রাথমিক অনুসন্ধানে বিগত হজ মৌসুমে নানা অনিয়মের দায়ে ২২৮টি হজ এজেন্সিকে চিহ্নিত করা হয়েছে। এসব এজেন্সির মধ্যে ৪৫টি এজেন্সির বিরুদ্ধে সরাসরি সৌদি সরকার শোকজ করেছে। আরও বেশ কয়েকটির বিরুদ্ধে শোকজ নোটিশের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এদের মধ্যে কিছু এজেন্সির বিরুদ্ধে অপরাধ প্রমাণিত হলে সৌদি সরকারই তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেবে। বাকিগুলোর বিরুদ্বে দেশীয় আইনেই ব্যবস্থা নেয়া হবে। এসব এজেন্সিকে শাস্তি দেয়া হবে বিভিন্ন ধরনের। অপরাধের গুরুত্ব বিবেচনায় এজেন্সির লাইসেন্স, জামানত বাতিল ও বিভিন্ন অঙ্কের জরিমানাসহ নানা শাস্তি দেয়া হবে।

বজলুল হক হারুন বলেন, এসব অভিযুক্ত এজেন্সিগুলোর মালিকদেরকে অবিলম্বে শুনানিতে ডাকা হবে। শুনানিতে কারও শাস্তি মওকুফ করা হবে না। শুনানিসহ তদন্তের অন্যান্য কার্যক্রম সম্পন্ন করা হবে আগামী ১৫ জানুয়ারির মধ্যে। তারপরই ২৫ জানুয়ারির মধ্যে বৈধ চূড়ান্ত হজ এজেন্সির তালিকা প্রকাশ করা হবে। এটা নিশ্চিত করেই বলা যায় আগামী হজ ব্যবস্থা হবে অনেক সুশৃঙ্খল ও নির্ঝঞ্ঝাট। সে লক্ষ্যেই সংসদীয় কমিটি সতর্ক রয়েছে। জনকণ্ঠ



Chief Editor & Publisher: Zakaria Masud Jiko
Editor: Manzur Ahmed
37-07 74th Street, Suite: 8
Jackson Heights, NY 11372
Tel: 718-565-2100, Fax: 718-865-9130
E-mail: ajkalnews@gmail.com
� Copyright 2009 The Weekly Ajkal. All rights reserved.